মোহাঃ আবু সায়েমঃ

কক্সবাজার জেলা পুলিশের আয়োজনে ইউএনডিপি তথা কমিউনিটি রিকভারি এন্ড রেসিলেন্স প্রজেক্ট এর সহায়তায় কক্সবাজার সদর থানার কম্পাউন্ডে আজ সকাল ১০ টায় অফিসার ইনচার্জ ফরিদ উদ্দিন খন্দকারের সভাপতিত্বে সহকারী পুলিশ সুপার সাইফুল ইসলামের সঞ্চালনায় কমিউনিটি পুলিশিং ফোরাম চ্যালেঞ্জ ও সম্ভাবনা শীর্ষক আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়।

এতে প্রধান অতিথি ছিলেন কক্সবাজারের সুযোগ্য পুলিশ সুপার এ বিএম মাসুদ হোছাইন।

উক্ত আলোচনা সভায় কমিউনিটি পুলিশিং কার্যক্রমকে বেগবান এবং তরানি¦ত করতে উপস্থিত অতিথিবৃন্দরা কমিউনিটি পুলিশিং এর সদস্যবৃন্দদের সহযোগিতা চেয়েছেন।জেলা পুলিশ এবং ইউএনডিপির কর্মকর্তারা প্রত্যক্ষভাবে কাজের গতিকে বেগবান করার জন্য এবং আগের তুলনায় আরো বেশি সহযোগিতা , তথ্য উপাত্ত দিয়ে, মাদক নির্মূল, আইনশৃংখলা পরিস্থিতি স্বাভাবিক , বাল্যবিবাহ, নারী নির্যাতন প্রতিরোধ, সন্ত্রাস , মাদক,ডাকাত এবং সর্বোপরি কক্সবাজার জেলাকে নিরাপত্তার চাদরে আচ্ছাদিত করতে কমিউনিটি পুলিশিং এর সকল সদস্যবৃন্দদের সহযোগিতার আহ্বান জানিয়েছেন।

বক্তারা কক্সবজার জেলাকে একটা মডেল জেলা হিসেবে রুপান্তরিত করতে কমিউিনিটি পুলিশিং এর সর্বাতœক সহযোগিতা চেয়েছেন। তথ্য উপাত্ত দিয়ে পুলিশি কার্যক্রমকে বেগবান করার জন্য উপস্থিত প্রায় ৬০০ কমিউিনিটি পুলিশিং সদস্যদের দৃষ্টি আকর্ষণ করেছেন। জেলা পুলিশের আয়োজনকে স্বাগত জানিয়ে তাদের সার্বিক সহযোগিতা করার জন্য ইউএনডিপির প্রজেক্ট ম্যানেজার মাসুদ করিম আশ^াস দিয়েছেন।

তিনি বলেন, ইউএনডিপি বাংলাদেশ পুলিশ এর সাথে প্রত্যক্ষভাবে কাজ করে আসছে দীর্ঘদিন যাবত। ফলশ্রুতিতে কক্সবাজার জেলার মতো একটা সম্ভবনাময় এবং পর্যটন নগরী হিসেবে খ্যাত রুপ সৈান্দর্যে ভরপুর কক্সবাজার জেলায় যে মাদকের ছড়াছড়ি তা নির্মূলে এবং কক্সবাজার জেলাকে মডেল জেলায় রুপান্তরে ইউএনডিপির প্রত্যক্ষ ভূমিকা অব্যাহত থাকবে। কমিউনিটি পুলিশিং কার্যক্রমকে অধিকতর গতিশীল করতে আমাদের সহযোগিতা আশাব্যাঞ্জক। উক্ত আলোচনা সভায় কক্সবাজার জেলার কমিউিনিটি পুলিশিং এর সভাপতি প্রবীণ রাজনীতিবীদ এডঃ আমজাদ হোসেন বলেন, সমাজ বিনির্মানে , সুন্দর সুশৃঙ্খল দেশ গঠনে কমিউনিটি পুলিশিং ্এর ভূমিকা অপরিসীম। তিনি ভবিষ্যতে কমিউনিটি পুলিশিং এর কার্যক্রমকে আরো অধিকতর ফলফ্রসু ও সফলতার দিকে ধাবিত করার জন্য জেলা পুলিশ ও ইউএনডিপির সার্বিক সহযোগিতা কামনা করেছেন।

উক্ত আলোচনা সভার সভাপতি কক্সবাজার সদর মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ ফরিদ উদ্দীন খন্দকার বলেন, আমি যোগদান করার পর থেকে কক্সবাজারা সদর থানা তথা তার আওতাভুক্ত সকল উপজেলা ,ইউনিয়নকে মাদক , সন্ত্রাস, ডাাকাত নির্মূলে, আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি স্বাভাবিক, বাল্য বিবাহ, নারী নির্যাতন প্রতিরোধ ১০০% কাজ করে যাচ্ছি। কমিউনিটি পুলিশিং সদস্যবৃন্দদের সাথে মিটিং এবং প্রতিনিয়ত যোগাযোগ করে, তাদের তথ্য মোতাবেক অপারেশন পরিচালনা করে, সুন্দর সমাজ বিনির্মানে কার্যক্রম চালিেেয় যাচ্ছি। ভবিষ্যতে কক্সবজার সদর থানার কার্যক্রমকে তরান্বিত করতে , কমিউনিটি পুলিশিং সদস্যবৃন্দদের সাথে সু-সম্পর্ক বজায় রেখে তাদের দেওয়া তথ্য মোতাবেক প্রতিটি উপজেলা এবং ইউনিয়কে নিরাপত্তার চাদরে আচ্ছাদিত করতে আমাদের কার্যক্রম অব্যাহত থাকবে। উক্ত আলোচনা সভায় অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (প্রশাসন) ইকবাল হোছাইন বলেন, মাদক নির্মূলে পরিবারের প্রতিটি সদস্যদের দায়িত্ববোধের পাশাপাশি,ধর্মীয় এবং মানবিক মূল্যবোধ জাগ্রত , প্রতিটি ব্যক্তির সচেতনতা, ব্যক্তিগত দায়িত্ববোধ, এবং সর্বোপরি সুন্দর সমাজ বিনির্মানে প্রতিটি সু নাগরিকের সজাগ দৃষ্টি রেখে তথ্য উপাত্ত দিয়ে মাদক ব্যবসায়ীদের স-মূলে নির্মূল করতে হবে। কোন ইয়াবা ব্যবসায়ী যাতে এলাকায় প্রবেশ করতে না পারে সে জন্য আমাদের পুলিশ বিভাগ সজাগ রয়েছেন।

তিনি মাদক ব্যবসায়ীদের হুশিঁয়ারী উচ্ছারণ করে আরো বলেন, কক্সবাজার জেলায় মাদক ব্যবসায়ী থাকবে , না হলে আমি থাকবো। কোন ব্যবসায়ী ইয়াবার টাকায় যে বিলাস বহুল ভবন নির্মাণ করেছে সে ভবনে থাকার তো দুরের কথা বর্তমানে তারা মালয়েশিয়া, দুবাইতে পাড়ি জমিয়েছে। যারা ইয়াবা পাচার করে লক্ষ লক্ষ মায়ের বুক খালি করেছে, পথভ্রষ্ট করেছে তাদের স্থান এ বাংলাদেশে হবে না। কক্সবাজার জেলাকে মডেল জেলায় রুপান্তরে তিনি সকলের সার্বিক সহযোগিতা কামনা করেছেন।

প্রধান অতিথির বক্তৃতায় সুযোগ্য পুলিশ সুপার এবিএম মাসুদ হোসাইন বলেন, কমিউনিটি পুলিশিং এর সাথে যারা ওতপ্রোতভাবে জড়িত তথ্য উপাত্ত দিয়ে সহযোগিতা করে আসছে, সুন্দর সমাজ বিনির্মানে সাহায্য সহযোগিতা করে আসছে, আমি তাদের প্রত্যেককে স্বাগত জানায়।

তিনি আরো বলেন, যোগদানের পর থেকে কক্সবাজার জেলায় মাদকের ব্যাপারে অন্যান্য জেলায় যে না বোধক প্রতিক্রিয়া সে প্রতিক্রিয়া থেকে বেরিয়ে আসার জন্য পুলিশ বিভাগ কাজ করে যাচ্ছে।ভবিষ্যতে কক্সবাজার জেলাকে মাদক, সন্ত্রাস, ডাকাত নির্মূল, আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি স্বাভাবিক, বাল্য বিবাহ, নারী নির্যাতন প্রতিরোধ , এবং কক্সবাজারকে মডেল জেলা তথা নিরাপত্তার চাদরে আচ্ছাদিত করতে জেলা পুলিশের কার্যক্রম অব্যাহত থাকবে।

উক্ত আলোচনা সভায় আরো উপস্থিত ছিলেন, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (সদর সার্কেল) আদিবুল ইসলাম, ইউএনডিপির কর্মকর্তাবৃন্দ, কমিউিনিটি পুলিশিং এর সদর ও বিভিন্ন উপজেলা, ইউনিয়নের সভাপতি সাধারণ সম্পাদকসহ সদস্যবৃন্দরা, কক্সবাজার সদর মডেল থানার ওসি (তদন্ত ) খায়রুজ্জামান, ওসি অপারেশন মাইন উদ্দিন, শহর পুলিশ ফাড়িঁর ইনচার্জ পারভেজসহ কক্সবাজার সদর মডেল থানার অন্যান্য কর্মকর্তাবৃন্দ।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •