ডেস্ক নিউজ:
জাতীয় পার্টির (জাপা) সদ্য সাবেক মহাসচিব এ বি এম রুহুল আমিন হাওলাদারের মনোনয়নপত্র আপিলেও বাতিল হয়েছে। শুক্রবার ইসির আপিল শুনানিতে ঋণখেলাপির দায়ে তার মনোনয়নপত্র বাতিল করা হয়।

শুক্রবার (৭ ডিসেম্বর) আগারগাঁওয়ে নির্বাচন ভবনে ১১তলায় দ্বিতীয় দিনের মতো চলছে মনোনয়ন প্রার্থিদের আপিল শুনানি। ৪ ডিসেম্বর জাতীয় পার্টির রুহুল আমিন হাওলাদারের পক্ষে তার আইনজীবী নির্বাচন কমিশনে প্রার্থিতা ফিরে পেতে আবেদন করেছিলেন। এর আগে ঋণখেলাপির দায়ে তার মনোনয়নপত্র বাতিল করা হয়েছিল।

এদিকে গত ৩ ডিসেম্বর জাতীয় পার্টির (জাপা) মহাসচিব এবিএম রুহুল আমিন হাওলাদারকে সরিয়ে দিয়ে নতুন মহাসচিব হিসেবে জাপার প্রেসিডিয়াম সদস্য মসিউর রহমান রাঙাকে নিয়োগ দেয়া হয়েছে।

আপিল আবেদনের ক্রমিক নম্বর ১ থেকে ১৬০ পর্যন্ত গতকাল বৃহস্পতিবার শুনানি শেষ হয়েছে। আজ শুক্রবার (৭ ডিসেম্বর) ১৬১ থেকে ৩১০ নম্বর পর্যন্ত এবং ৩১১ থেকে ৫৪৩ নম্বর পর্যন্ত ৮ ডিসেম্বর শুনানি অনুষ্ঠিত হবে।

গত ২৮ নভেরের মধ্যে ৩ হাজার ৬৫ জন মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন। বাছাইয়ে বাদ পড়েছে ৭৮৬টি, বৈধ প্রার্থীর মনোনয়নপত্র রয়েছে ২ হাজার ২৭৯টি। তাদের মধ্যে ৫৪৩ জন প্রার্থিতা ফেরত পেতে আপিল করেন। যার অধিকাংশই মনোনয়নপত্র বাতিলের বিরুদ্ধে। গতকাল বৃহস্পতিবার ১৬০ জনের মধ্যে ৮০ জন তাদের প্রার্থিতা ফেরত পেয়েছেন।

ইসির তফসিল অনুযায়ী আগামী ৩০ ডিসেম্বর একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠিত হবে। ৯ ডিসেম্বর প্রার্থিতা প্রত্যাহারের শেষ সময়। ১০ ডিসেম্বর প্রতীক বরাদ্দ দেয়ার পর থেকে প্রার্থী ও তার সমর্থকরা নির্বাচনী এলাকায় প্রচার-প্রচারণা চালাতে পারবেন।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •