ডেস্ক নিউজ:
ইদানীং বাসাবাড়িতে এলপিজি সিলিন্ডার ব্যবহারে অসতর্কতা বা ব্যবহারের সঠিক পদ্ধতি না জানার কারণে গ্যাস বিস্ফোরণ এবং অগ্নিদুর্ঘটনা ঘটছে। তাই এলপিজি সিলিন্ডারের সঠিক ব্যবহারে বেশ কিছু নির্দেশনা দিয়েছে সরকার।

বৃহস্পতিবার সরকারি এক তথ্যবিবরণীতে এসব নির্দেশনা উল্লেখ করা হয়। এতে বলা হয়, এ দুর্ঘটনা এড়াতে নিন্মোক্ত নির্দেশনা অনুসরণ জরুরি।

আগুন বা অন্য কোনোভাবে সিলিন্ডার গরম হলে তরল এলপিজি দ্রুত গ্যাসে রূপান্তরিত হয়ে অসাভাবিক চাপ বৃদ্ধির ফলে সিলিন্ডার বিস্ফোরিত হতে পারে। সিলিন্ডার কোনোভাবেই চুলার বা আগুনের পাশে রাখা যাবে না, এতে বিস্ফোরণ ঘটতে পারে। অতিরিক্ত গ্যাস বের করার জন্য সিলিন্ডারে তাপ দেয়া যাবে না।

রান্না শেষে চুলা ও এলপিজি সিলিন্ডারের রেগুলেটরের সুইচ অবশ্যই বন্ধ করতে হবে। গ্যাসের গন্ধ পেলে ম্যাচের কাঠি জ্বালানো যাবে না, ইলেকট্রিক সুইচ এবং মোবাইল ফোন অন বা অফ করা যাবে না।

এতে আরও উল্লেখ করা হয়, ঘরে গ্যাসের গন্ধ পেলে দ্রুত দরজা-জানালা খুলে দিতে হবে এবং এলপিজি সিলিন্ডারের রেগুলেটর বন্ধ করতে হবে। রান্না শুরু করার আধাঘণ্টা আগে রান্নাঘরের দরজা-জানালা খুলে দিতে হবে। সিলিন্ডার খাড়াভাবে রাখতে হবে, কখনই উপুড় বা কাত করে রাখা যাবে না।

চুলা সিলিন্ডার থেকে নিচুতে রাখা যাবে না, কমপক্ষে ৬ ইঞ্চি ওপরে রাখতে হবে। চুলা হতে যথেষ্ট দূরে বায়ু চলাচল করে এমন স্থানে সিলিন্ডার রাখা উচিত। রান্নাঘরের ওপরে ও নিচে ভেন্টিলেটর রাখা উচিত। সিলিন্ডারের ভাল্বের সঙ্গে সামঞ্জস্যপূর্ণ রেগুলেটর ব্যবহার করা উচিত।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •