cbn  

ইমাম খাইর /মুহাম্মদ আবু সিদ্দিক ওসমানী :

কক্সবাজার-৪ (উখিয়া টেকনাফ) আসনের সাংসদ সদস্য আবদুর রহমান বদির গাড়ি লক্ষ্য করে গুলিবর্ষণ করেছে দুর্বত্তরা। এসময় গাড়ীতে বদি, টেকনাফ উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান জাফর আহামদ, টেকনাফ পৌরসভার কাউন্সিলর ফরিদুল আলম থাকলেও তাঁরা তিনজনই সম্পূর্ণ অক্ষত রয়েছেন।

কক্সবাজার-টেকনাফ সড়কের টেকনাফ উপজেলার হোয়াইক্ষ্যং কাঞ্জরপাড়ায় ৩০ নভেম্বর রাত পৌনে নয়টার দিকে এ হামলা হয় বলে অভিযোগ উঠেছে।

হামলায় সংসদ সদস্যের জীপ নং ঢাকা মেট্রো-১৩-৬৮৮০ এর পেছনের কাঁচ ভেঙ্গে যায়। ঘটনায় কারা জড়িত তা জানা যায়নি।

টেকনাফ পৌরসভা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মোহাম্মদ আলম বাহাদুর জানান, প্রয়াত জেলা আ’লীগের সভাপতি এডভোকেট আহমদ হোসেনের মেজবান থেকে আমরা ফিরছিলাম। সামনের গাড়িতে এমপি আবদুর রহমান বদি, উপজেলা চেয়ারম্যান জাফর আহমদ ও ফরিদ কমিশনার ছিলেন। পেছনে আরেকটি গাড়িতে বদির স্ত্রী আওয়ামী লীগের এবারের এমপি প্রার্থী শাহিন আক্তারসহ আমি ছিলাম। তিনি জানান, এলাকাটি একটু অন্ধকারাচ্ছন্ন ছিল। হঠাৎ পেছন দিকে বিকট আওয়াজে আমরা মনে করেছি ওই গাড়িটি পাংচার হয়েছে। কাছে গিয়ে দেখি গাড়ির পেছনে অসংখ্য গুলির চিহ্ন। ফেটে গেছে গ্লাস। তবে এ ঘটনায় জড়িত এমন কাউকে দেখা যায়নি বলে জানান আওয়ামী লীগ নেতা বাহাদুর।

এদিকে সাংসদ বদির গাড়ি লক্ষ্য করে গুলিবর্ষণের প্রতিবাদে রাত সোয়া নয়টার দিকে হোয়াইক্ষ্যং কান্ঞ্জর পাড়া এলাকায় যুবলীগ-ছাত্রলীগ তাৎক্ষনিক বিক্ষোভ মিছিল অনুষ্ঠিত হয়েছে বলে জানা গেছে। ঘটনায় জড়িতদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দাবি করেছে স্থানীয় আ’লীগ নেতারা।

টেকনাফ মডেল থানার ওসি প্রদীপ কুমার দাশ হামলার বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, কে বা কারা সংসদ সদস্যের গাড়িতে গুলি করেছে তা তদন্তকরে দ্রুত বের করার চেষ্টা চলছে।

 

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •