cbn  

 

মুহাম্মদ আবু সিদ্দিক ওসমানী :

বাংলাদেশের বর্তমান আইন অনুযায়ী একজন সংসদ সদস্য নিয়মিত যেসব সুযোগ-সুবিধা পান সেগুলো হচ্ছে:
(১) সংসদ সদস্যদের মাসিক বেতন ৫৫,০০০ টাকা (২) নির্বাচনী এলাকার ভাতা প্রতিমাসে ১২,৫০০ টাকা (৩) সম্মানী ভাতা প্রতিমাসে ৫,০০০ টাকা
৪) সম্পূর্ণ শুল্কমুক্তভাবে গাড়ি আমদানির সুবিধা
(৫) মাসিক পরিবহন ভাতা ৭০,০০০ টাকা
(৬) নির্বাচনী এলাকায় অফিস খরচের জন্য প্রতিমাসে ১৫,০০০ টাকা (৭) প্রতিমাসে লন্ড্রি ভাতা ১,৫০০ টাকা
(৮) মাসিক ক্রোকারিজ, ও টয়লেট্রিজ কেনার জন্য ভাতা ৬,০০০ টাকা
(৯) দেশের অভ্যন্তরে বার্ষিক ভ্রমণ খরচ ১,২০,০০০ টাকা (১০) স্বেচ্ছাধীন তহবিল বার্ষিক পাঁচ লাখ টাকা
(১১) বাসায় টেলিফোন বিল বাবদ প্রতিমাসে ৭,৮০০ টাকা (১২) সংসদ সদস্যদের জন্য সংসদ ভবন এলাকায় অত্যাধুনিক সুবিধা সম্বলিত এমপি হোস্টেল আছে। (১৩) সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সভায় অংশ গ্রহন ভাতা ২৫,০০০ টাকা (১৪) সরকারী সম্পূর্ণ সরকারি খরচে সংসদীয় ও রাষ্ট্রীয় ভ্রমন (১৫) যেকোন বন্দরে নীল পাসপোর্টের সুযোগ সুবিধা পাওয়া (১৬) একান্ত সহকারী ভাতা প্রাপ্তি মাসিক ৩৫,০০০ টাকা (১৭) সর্বক্ষেত্রে সচিবের উপরে মর্যাদা ভোগ করা।
এছাড়াও আরো অনেক সুযোগ সুবিধাদি রয়েছে। যেমন- ২০১৫ -২০১৯ সাল পর্যন্ত একজন সংসদ সদস্য প্রতিবছর চার কোটি টাকা করে থোক উন্নয়ন বরাদ্দ পাচ্ছেন। এই থোক বরাদ্দের পরিমাণ আগে ছিল দুই কোটি টাকা।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •