cbn

মোঃ নাজিম উদ্দিন, দক্ষিণ চট্টগ্রাম: 
চট্টগ্রামের সাতকানিয়ায় মাদক সেবনে প্রতিবাদ করায় এক কৃষককে গুলি করেছে সন্ত্রাসীরা। এতে গুলিবিদ্ধ হয়ে গুরুতর আহত হয়েছে আলমগীর (৪৫) নামের এক কৃষক। গত ২৮ নভেম্বর বুধবার রাতে সাতকানিয়ার দক্ষিণ চরতী কাটাখালী ব্রিজ এলাকায় এঘটনা ঘটে। পরে স্থানীয় লোকজন ধাওয়া করে ঘটনায় জড়িত সন্ত্রাসী মো. সেলিমের সহযোগী ওই এলাকার মৃত ফারুক আহমদের ছেলে মো. হোসেন (২৮) ও আশরাফ হোসেনকে (২২) আটক করে পুলিশের কাছে সোপর্দ করে।

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, দীর্ঘদিন ধরে আমিলাইশ চরতী সীমান্ত কাটাখালী এলাকায় নদীর পাড়ে মাদক বিক্রি ও সেবন করে আসছে সন্ত্রাসী সেলিমের নেতৃত্বে একাধিক ব্যক্তি। ঘটনারদিন সন্ধ্যায় কৃষক আলমগীরসহ কয়েক জন স্থানীয় ব্যক্তি ওই এলাকায় মাদক বিক্রি ও সেঁবন না করার জন্য বাঁধা দেয়। এতে ক্ষিপ্ত হয়ে রাত  ৮টার দিকে সন্ত্রাসী সেলিম তাঁর দলবল নিয়ে মাদক সেবনে বাধা দেয়া স্থানীয় লোকজনের উপর গুলি চালায়।

এসময় কৃষক আলমগীর গুলিবিদ্ধ হলে স্থানীয় লোকজন গুরুতর আহত অবস্থায় তাকে উদ্ধার করে প্রথমে কেরানীহাট আশশেফা হাসপাতালে নিয়ে যায়। পরে তার অবস্থা আশঙ্কা জনক হওয়ায় রাতে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

চরতীর সাবেক প্যানেল চেয়ারম্যান নজরুল ইসলাম জানান, মাদক বিক্রি ও সেবনে বাঁধা দেয়ায় বুধবার রাতে আলমগীরকে গুলি করে পালিয়েছে সন্ত্রাসী সেলিম। গত কয়েক মাস আগে সেলিম জেল থেকে ছাড়া পেয়ে চরতী এলাকায় মাদকের রাজত্ব কায়েম করেছে। বর্তমানে আলমগীর চমেকে চিকিৎসাধীন রয়েছে। তাঁর পেটে অস্ত্রপচার করা হয়েছে। আলমগীরের অবস্থা এখনো আশঙ্কা জনক। সাতকানিয়া থানার অফিসার ইনচার্জ মো. রফিকুল হোসেন বলেন, মাদক সেঁবনে বাঁধা দেয়ায় এলাকার চিহ্নিত মাদক ব্যবসায়ী সেলিমের নেতৃত্বে স্থানীয়দের উপর গুলি চালিয়েছে। এতে আলমগীর গুলিবিদ্ধ হয়ে গুরুতর আহত হয়। খবর পেয়ে দ্রুত ঘটনাস্থলে পুলিশ গিয়ে স্থানীয় লোকজনের সহযোগীতায় ঘটনায় জড়িত ২ জনকে আটক করেছে।

এব্যাপারে একটি মামলা দায়েরের প্রক্রিয়াধীন রয়েছে। চিহ্নিত মাদক ব্যবসায়ী সেলিমকে গ্রেফতারের জন্য পুলিশ বিভিন্ন স্থানে অভিযান চালাচ্ছে।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •