cbn  

সোয়েব সাইদ, রামু:

হাজার হাজার নেতাকর্মী, সমর্থক ও সর্বস্তুরের জনতার ভালোবাসায় সিক্ত হয়েছেন, আসন্ন একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে কক্সবাজার-৩ (সদর-রামু) আসনে বাংলাদেশ আওয়ামীলীগের মনোনয়নপ্রাপ্ত বর্তমান সংসদ সদস্য আলহাজ¦ সাইমুম সরওয়ার কমল। মঙ্গলবার (২৭ নভেম্বর) বিকালে কক্সবাজার বিমানবন্দরে সাংসদ কমলকে এ ফুলেল সংবর্ধনা দেয়া হয়।

মনোনয়ন লাভের পর কক্সবাজার আসার খবর পেয়ে নেতাকর্মী-সমর্থকরা তাকে সংবর্ধনা জানাতে বিমানবন্দরে ছুটে যান। দুপুরের পর থেকে বিমানবন্দর এলাকায় বাড়তে থাকে মানুষের ¯্রােত। বিকাল সাড়ে চারটায় তিনি কক্সবাজার পৌঁছান। এসময় হাজারো নেতাকর্মী তাকে ফুলেল শুভেচ্ছা জানিয়ে বরণ করে নেন।

এসময় সংবর্ধনার জবাবে এমপি সাইমুম সরওয়ার কমল বলেন, “ক্ষমতা থাকি আর নাই থাকি, কখনো মানুষের কাছ থেকে দূরে সরে যাইনি। চেষ্টা করেছি কক্সবাজার-রামুর অবহেলিত জনপদের কাংখিত উন্নয়ন আর শিক্ষাক্ষেত্রে এগিয়ে নেয়ার। আর এ কারনে প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনা আমাকে অতীতের মত আবারো নৌকা প্রতীকের মনোনয়ন দিয়েছেন। এ সম্মান আমার নয়, পুরো কক্সবাজার-রামুর প্রতিটি জনতার”।

তিনি বলেন, চট্টগ্রামের এক জাপা নেতাকে এখানে মনোনয়ন দেয়ার চেষ্টা করলে কক্সবাজার-রামুবাসী কলাগাছ নিয়ে দূর্বার আন্দোলন শুরু করে। যে কারনে আমি কাংখিত মনোনয়ন ফিরে পেয়েছি। মানুষের ভালোবাসার এ ঋন কখনো শোধ করা যাবে না।

কক্সবাজার বিমানবন্দর হতে রামু যাওয়ার পথে সড়কের দুপাশে দাঁড়িয়ে হাজার হাজার নারী-পুরুষ সাংসদ কমলকে অভিনন্দন জানান। এসময় সাংসদ কমলও তাদের শুভেচ্ছা ও অভিবাদন জানান। রাতে রামু চৌমুহনী স্টেশনে পৌঁছলে সেখানে বিপুল সংখ্যক নেতাকর্মী ও সর্বস্তুরের জনতা কমলকে ফুলেল শুভেচ্ছা জানান।

এসময় সাংসদ কমল দলের সকল নেতাকর্মীকে ঐক্যবদ্ধ হয়ে নৌকা প্রতিককে জয়ী করতে সর্বাত্মকভাবে কাজ করা আহবান জানান। তিনি বলেন, নৌকা জয়ী না হলে রেললাইন নির্মাণসহ কক্সবাজার-রামুর অনেক উন্নয়নমূলক কাজ বন্ধ হয়ে যাবে।

এসময় রামু উপজেলা চেয়ারম্যান রিয়াজ উল আলম, কক্সবাজার জেলা আওয়ামীলীগের সহ সভাপতি জাফর আলম চৌধুরী, মহিলা বিষয়ক সম্পাদক মুসরাত জাহান মুন্নী, প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক খোরশেদ আলম, রামু উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান আলী হোসেন, জেলা শ্রমিকলীগ সভাপতি জহির উল্লাহ সিকদার, সাধারন সম্পাদক শফি উল্লাহ আনসারী, কক্সবাজার জেলা পরিষদ সদস্য শামসুল আলম চেয়ারম্যান, নুরুল হক কোম্পানী, কক্সবাজার সদর উপজেলা আওয়ামীলীগ সভাপতি আবু তালেব, সাধারণ সম্পাদক মাহমুদুল করি মাদু, বিশিষ্ট আওয়ামীলীগ নেতা মুক্তিযোদ্ধা ফরিদ আহমদ মাস্টার, ঝিলংজা ইউপি চেয়ারম্যান টিপু সুলতান, চৌফলদন্ডী ইউপি চেয়ারম্যান ওয়াজ করিম বাবুল, জালালাবাদ ইউপি চেয়ারম্যান ইমরুল রাশেদ, চাকমারকুল ইউপি চেয়ারম্যান নুরুল ইসলাম সিকদার, ফতেখাঁরকুল ইউপি চেয়ারম্যান ফরিদুল আলম, খুনিয়াপালং ইউপি চেয়ারম্যান সাংবাদিক আবদুল মাবুদ, দক্ষিণ মিঠাছড়ি ইউপি চেয়ারম্যান ইউনুচ ভূট্টো, কাউয়ারখোপ ইউপি চেয়ারম্যান মোস্তাক আহমদ, রাজারকুল ইউপি চেয়ারম্যান মুফিজুর রহমান, রশিদনগর ইউপি চেয়ারম্যান এমডি শাহ আলম, ঈদগড় ইউপি চেয়ারম্যান ফিরোজ আহমদ ভূট্টো, জোয়ারিয়ানালা ইউপি চেয়ারম্যান কামাল শামসুদ্দিন আহমেদ প্রিন্স, কচ্ছপিয়া ইউপি চেয়ারম্যান আবু ইসমাইল মো. নোমান, সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান সিরাজুল ইসলাম ভূট্টো ও এমএম নুরুচছাফা, কক্সবাজার ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক মোর্শেদুর রহমান তানিম, কক্সবাজার জেলা স্বেচ্ছাসেবকলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক রোস্তম আলী, সদর উপজেলা স্বেচছাসেবকলীগের সভাপতি এড. একরামুল হুদা, সাধারণ সম্পাদক সরওয়ার আলম চৌধুরী, সাংগঠনিক সম্পাদক মোহাম্মদুল হক মুন্না, কক্সবাজার পৌর কাউন্সিলর দিদারুল ইসলাম রুবেল, সদর উপজেলা যুবলীগ সভাপতি ইফতেখাঁর উদ্দিন পুতু, শহর যুবলীগের যুগ্ন আহবায়ক ডালিম বড়–য়া, উপজেলা যুবলীগ সাধারণ সম্পাদক সাংবাদিক নীতিশ বড়–য়া, সহ সভাপতি ওসমান সরওয়ার মামুন, রামু উপজেলা স্বেচ্ছাসেবকলীগের সভাপতি এডভোকেট মোজাফ্ফর আহমদ হেলালী, সাধারণ সম্পাদক তপন মল্লিক, সাংবাদিক খালেদ হোসেন টাপু, জেলা তাঁতীলীগের সহ সভাপতি আনছারুল হক ভূট্টো, আওয়ামীলীগ নেতা হাজ¦ী নুরুল হক, সৈয়দ মো. আবদুস শুক্কুর, খুনিয়াপালং ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক মো. আবদুল্লাহ সিকদার, ঝিলংজা ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সভাপতি সরওয়ার আলম, সাধারণ সম্পাদক কুদরত উল্লাহ সিকদার মেম্বার, খুরুশকুল ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সহ সভাপতি আতা উল্লাহ, জালালাবাদ ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক সেলিম মোরশেদ ফরাজী, ইউপি সদস্য ওসমান সরওয়ার, জেলা কৃষকলীগের সহ সভাপতি রফিক উদ্দিন, ভারুয়াখালী ইউনিয়ন আওয়ামীলীগ সভাপতি কামাল উদ্দিন, সাধারণ সম্পাদক মাঈন উদ্দিন, জেলা কৃষকলীগ নেতা ইয়াকুব আলী ইমন, সদর উপজেলা আওয়ামীলীগের যুগ্ন সাধারণ সম্পাদক আতাউস সামাদ, প্রচার সম্পাদক মোহাম্মদ রিয়াদ, খুরুশকুল ইউনিয়ন যুবলীগের সভাপতি কাজী দিদার, সাধারণ সম্পাদক বোরহান উদ্দিন চৌধুরী, খুরুশকুল ইউনিয়ন পরিষদের মেম্বার শেখ কামাল, সদর যুবলীগ নেতা ইমন চৌধুরী, খুনিয়াপালং ইউনিয়ন যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক আবদুল্লাহ বিদ্যুৎ মেম্বার, সাংসদ কমলের একান্ত সচিব ও জেলা স্বেচ্ছাসেবকলীগ নেতা মিজানুর রহমান, উপজেলা স্বেচ্ছাসেবকলীগের সহ সম্পাদক ও সাংসদ কমলের একান্ত সচিব আবু বক্কর ছিদ্দিক, কচ্ছপিয়া ইউনিয়ন যুবলীগ সভাপতি নজরুল ইসলাম, মক্কা বঙ্গবন্ধু সৈনিকলীগের সভাপতি মোহাম্মদ ইব্রাহিম, উপজেলা তাঁতীলীগ সভাপতি নুরুল আলম জিকু, সাধারণ সম্পাদক মোস্তাক আহমদ, রামু উপজেলা সৈনিকলীগের সভাপতি মিজানুল হক রাজা, সাধারণ সম্পাদক রাশেদুল হক বাবু, উপজেলা শ্রমিকলীগ সভাপতি শফিউল আলম কাজল, সাধারণ সম্পাদক সাহাব উদ্দিন, ফতেখাঁরকুল ইউনিয়ন স্বেচ্ছাসেবকলীগ সভাপতি আজিজুল হক, ছাত্রলীগ নেতা সাদ্দাম হোসেন, মোহাম্মদ নোমান, বঙ্গবন্ধু ছাত্র পরিষদের সভাপতি একরামুল হাসান ইয়াছিন প্রমূখ।

বিকালে সাংসদ কমল কক্সবাজার জেলা আওয়ামীলীগের সাবেক সভাপতি ও মুক্তিযুদ্ধের অন্যতম সংগঠক মরহুম মোজাম্মেল হকের কবর জেয়ারত করেন। এছাড়া রাতে রামুতে পৌছে তিনি বাবা সাবেক সাংসদ ও রাষ্ট্রদূত মরহুম আলহাজ¦ ওসমান সরওয়ার আলম চৌধুরী এবং মাতা মরহুমা রওশন সরওয়ারের কবর জেয়ারত করেন।

এছাড়া কক্সবাজার সদর ও রামু উপজেলা আওয়ামীলীগ আওয়ামীলীগ, যুবলীগ, ছাত্রলীগ, স্বেচ্ছাসেবকলীগ, শ্রমিকলীগ, সৈনিকলীগ, তাঁতীলীগ, বঙ্গবন্ধু ছাত্রপরিষদসহ বিভিন্ন অঙ্গসংগঠনের নেতৃবৃন্দ সর্বস্তুরের হাজার হাজার জনতা উপস্থিত ছিলেন।

উল্লেখ্য সকল জল্পনা-কল্পনার অবসান ঘটিয়ে কক্সবাজার-৩ (সদর-রামু) আসনে আওয়ামীলীগের প্রার্থী হিসেবে মনোনয়নপত্র পেয়েছেন বর্তমান সংসদ সদস্য আলহাজ¦ সাইমুম সরওয়ার কমল। সোমবার (২৬ নভেম্বর) দুপুরে প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনা স্বাক্ষরিত মনোনয়নপত্র সাইমুম সরওয়ার কমলের হাতে তুলে দেন দলের মনোনয়ন কমিটির নেতৃবৃন্দ।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •