cbn  

আবদুল মজিদ, চকরিয়া:

কক্সবাজার-১ (চকরিয়া-পেকুয়া) আসনের জাতীয় সংসদ সদস্য, জাতীয় পার্টির কেন্দ্রীয় ধর্মবিষয়ক সম্পাদক ও কক্সবাজার জেলা সভাপতি জননেতা আলহাজ্ব মোহাম্মদ ইলিয়াছ জাতীয় পার্টির একক প্রার্থী হিসেবে দলীয় মনোনয়ন পেয়েছেন। ২৬ নভেম্বর জাতীয় পার্টির মহাসচিব এবিএম রুহুল আমিন হাওলাদার স্বাক্ষরিত পার্টির মনোনয়নপত্র হাতে পেয়েছেন।

দলীয় সূত্রে জানা গেছে, জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান সাবেক রাষ্ট্রপতি হুসেইন মোহাম্মদ এরশাদ আওয়ামীলীগের নেতৃত্বাধীন বর্তমান মহাজোট সরকার থেকে জোটগত নির্বাচনে শতাধিক আসন চেয়েছেন। তন্মধ্যে জাপার বর্তমান ৩৬জন এমপিসহ দেশের বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ আসন রয়েছে। পল্লীবন্ধু এরশাদ ও বেগম রওশন এরশাদের নির্দেশে চকরিয়া-পেকুয়া আসনের বর্তমান সাংসদ হাজী ইলিয়াছ এমপি পূণরায় প্রার্থী হয়ে দলীয় একক মনোনয়ন সংগ্রহ করেছেন।

আলহাজ্ব মোহাম্মদ ইলিয়াছ এমপি স্থানীয় সাংবাদিকদের কাছে ও জনগনের মাঝে প্রতিক্রিয়ায় বলেন, বিগত ২০১৪ সালের ৫ জানুয়ারী অনুষ্টিত ১০ম জাতীয় নির্বাচনে জাতীয় পার্টি থেকে বিনাপ্রতিদ্বন্ধীতায় সংসদ সদস্য নির্বাচিত হন। এর পর থেকে দুই উপজেলায় ব্যাপক উন্নয়ন করেছেন। যা স্বাধীনতার পর থেকে কোন সরকারের আমলে হয়নি। বিগত ৫বছরে দু’উপজেলার ২৫টি ইউনিয়ন ও ১টি পৌরসভায় স্কুল, কলেজ, মসজিদ, মাদরাসা, মন্দির, গির্জা, সরকারী-বেসরকারী প্রতিষ্টান, অসহায় গরীব দুঃস্থ পরিবার ও সামাজিক প্রতিষ্ঠানে সৌর সোলার স্থাপন, ছোট বড় হাট-বাজার ও রাস্তায় সড়ক বাতি স্থাপন, অসংখ্য ব্রীজ-কালভার্ট, কাচা পাকা রাস্তা নির্মান, খাল খনন, বেড়ী বাঁধ নির্মান, অসংখ্য প্রাতিষ্টানিক ভবন কাম সাইক্লোন সেল্টার নির্মান, ঢেউটিন বিতরণ, নগদ অর্থ সহায়তা ও বহুমূখী উন্নয়ন করা হয়েছে।

হাজী ইলিয়াছ এমপি বলেন, বেসরকারী স্কুল-কলেজ সরকারী করণ, চকরিয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সকে ৫০শয্যা থেকে ১০০ শয্যায় উন্নতি করণ, পেকুায়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সকে ৩০ শয্যা থেকে ৫০ শয্যায় উন্নীতসহ পৃথক দুটি বভন নির্মান কাজ চলমান রয়েছে।

জাতীয় পার্টি চকরিয়া উপজেলা আহবায়ক আলহাজ্ব গিয়াস উদ্দিন, চকরিয়া পৌরসভা আহবায়ক মো: আবু ছাদেক, পেকুয়া উপজেলা সাধারণ সম্পাদক সাংবাদিক দিদারুল ইসলাম ও মাতামুহুরী থানা শাখা সভাপতি নুরুল হোছাইন এমইউপি বলেন, বর্তমানে হাজ্বী মোহাম্মদ ইলিয়াছ এমপির নেতৃত্বে চকরিয়া-পেকুয়ায় পার্টির অবস্থান অত্যন্ত সু-সংগঠিত। রাজনৈতিক ও সাংগঠনিকভাবে জাতীয় পার্টি অনেক এগিয়ে। আগামী একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে চকরিয়া-পেকুয়া আসনটি পুন:উদ্ধারে ব্যাপক প্রস্তুতি নিয়েছেন জাপা নেতৃবৃন্দরা।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •