দীর্ঘদিন রাজ্য সরকার কর্তৃক মনোনয়নের এই সাবক্লাস ১৯০ ভিসাটি বন্ধ ছিল এসিটিতে। আগামী ২৯ নভেম্বর থেকে পয়েন্টভিত্তিক সাবক্লাস ১৯০ ভিসা পুনরায় চালুর ঘোষণা দিয়েছে এসিটি রাজ্য সরকার। সেইসঙ্গে পরিবর্তন আনা হয়েছে ভিসা প্রক্রিয়ার বেশকিছু পদ্ধতি ও রাজ্যের চাহিদার পেশা তালিকায়।

সাবক্লাস ১৯০ ভিসায় এসিটি সরকারের মনোনয়ন প্রার্থীর ন্যূনতম যোগ্যতা থাকতে হবে। প্রার্থীর পেশা যদি ব্যবস্থাপনা কিংবা পেশাদার বিভাগের হয় তবে অবশ্যই ইংরেজি ভাষায় দক্ষ হতে হবে। যা আইইএলটিএস সর্বনিম্ন ৭ এর সমান। এসিটি সরকারের নির্ধারিত পেশা তালিকার সঙ্গে সম্পর্কিত পেশায় কমপক্ষে ১২ মাসের পূর্ণকালীন ও বৈতনিক কাজের অভিজ্ঞতা থাকতে হবে।

এসিটি রাজ্যে কোনো চাকরির আমন্ত্রণ থাকা বাধ্যতামূলক নয়। তবে প্রার্থীর যে পেশায় অভিজ্ঞতা রয়েছে সে পেশার এসিটির চাকরির বাজারে চাহিদা থাকতে হবে। সেইসঙ্গে এটাও প্রমাণ করতে হবে যে, এসিটিতে আসার পর চাকরি না পাওয়ার আগ পর্যন্ত রাজ্যে বাস করার সামর্থ্য রয়েছে প্রার্থীর। ভিসা মঞ্জুর হলে কমপক্ষে দুই বছর এসিটিতে বাস করার আবশ্যিক শর্তও রয়েছে।

ভিসা প্রক্রিয়া

এসিটির নতুন স্কোর পদ্ধতিকে ক্যানবেরা ম্যাট্রিক্স নাম দেয়া হয়েছে। দুইটি ধাপে সাবক্লাস ১৯০ ভিসায় আবেদন করতে হবে। প্রথম ধাপে রাজ্য কর্তৃক মনোনয়ন পাওয়ার ইচ্ছা জানিয়ে এক্সপ্রেস অব ইন্টারেস্ট (ইওআই) পূরণ করতে হবে। ধাপটি সম্পূর্ণ অনলাইন ভিত্তিক।

এই ধাপে ক্যানবেরা ম্যাট্রিক্সে বয়স, শিক্ষা, কাজের অভিজ্ঞতা ও ভাষা দক্ষতাসহ আরও বেশ কয়েকটি বিষয়ে সর্বনিম্ন ২০ পয়েন্ট হলে ইওআই পূরণ করা যাবে। দ্বিতীয় ধাপে সর্বোচ্চ ক্যানবেরা ম্যাট্রিক্সে পয়েন্টধারীদের সাবক্লাস ১৯০ ভিসায় আবেদনের আমন্ত্রণ জানাবে এসিটি সরকার। তখনই মূল ভিসায় আবেদন করা যাবে। তবে এটা মনে রাখতে হবে, আবেদনের আমন্ত্রণ পেলেই ভিসা মঞ্জুর হয়ে গেছে, বিষয়টা এমনটা নয়।

অস্ট্রেলিয়ান ক্যাপিটাল টেরিটরির স্কিলড নমিনেটেড ভিসা (সাবক্লাস ১৯০) ভিসার পেশা তালিকা ও বিস্তারিত এসিটি রাজ্যের সরকারি ওয়েবসাইট www.canberrayourfuture.com.au এ পাওয়া যাবে।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •