বান্দরবানে দুর্গম ১৪ টি ভোট কেন্দ্রে ব্যবহৃত হবে সেনা হেলিকপ্টার

নুরুল কবির, বান্দরবান:
আগামী একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে ৩০০ নং বান্দরবান আসনে ভোট গ্রহনের জন্য ১৪ টি ভোট কেন্দ্রে হেলিকপ্টার ব্যবহার করা হবে বলে জানিয়েছেন জেলা নির্বাচন অফিসার মোহাম্মদ রেজাউল করিম। তিনি বলেন দূর্গম এলাকা ও যোগাযোগ ব্যবস্থা না থাকায় ভোট গ্রহনের জন্য এসব কেন্দ্রে হেলিকপ্টারের মাধ্যমে নির্বাচনী সরঞ্জাম ও জনবল পৌঁছাতে হয়। জেলার ১৭৬ টি ভোট কেন্দ্রের মধ্যে ১৪ টি ভোট কেন্দ্র দূর্গম এলাকা হওয়ায় এগুলোতে নির্বাচনী সরঞ্জাম ও জনবল পৌছাতে সেনাবাহিনীর হেলিকপ্টারের প্রয়োজন হবে। কেন্দ্র গুলো হল রুমা উপজেলায় নুনতিয়া পাড়া সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়, পাকনিয়া পাড়া সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়, চিংলক পাড়া বে-সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়,

থানচি উপজেলায় রেমাক্রী বাজার সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়, বড় মধু বাজার সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়, ছোট মধু সাখইউ কারবারী পাড়া সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়, তিন্দু গ্রুপিং পাড়া সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়, চাইথোয়াইহ্লা কারবারী পাড়া বে- সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়, জিন্না পাড়া সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয় আলিকদমে মাংরুম পাড়া বে- সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়, কুরুকপাতা সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়, পোয়ামুহুরী মৈত্রী স্কুল রোয়াংছড়ি উপজেলায় রনিন পাড়া সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়, দৈয়কুমার পাড়া বেসরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়

জেলার ৭টি উপজেলা ২টি পৌরসভা ও ৩৩ টি ইউনিয়ন নিয়ে ৩০০ নং সংসদীয় আসন বান্দরবান। জেলা নির্বাচন অফিসের মতে এ আসনে মোট ২ লাখ ৪৬ হাজার ১৮৩ জন ভোটার রয়েছে। এর মধ্যে পুরুষ ভোটার ১ লাখ ২৮ হাজার ২৯ জন এবং মহিলা ভোটার ১ লাখ ১৭ হাজার ৫৪ জন।

এখানে বিভিন্ন আঞ্চলিক দলের প্রভাব থাকলেও মূলত আওয়ামীলীগ বিএনপির মধ্যেই লড়াই হয়ে থাকে। নির্বাচনকে সামনে রেখে জেলার সর্বত্র চলছে নির্বাচনী আমেজ। এ জেলায় আওয়ামীলীগের প্রার্থী হিসেবে মনোনয়ন পেয়েছেন বর্তমান সাংসদ পার্বত্য প্রতিমন্ত্রী বীর বাহাদুর উশৈসিং এমপি। অপরদিকে বিএনপি প্রার্থী চূড়ান্ত না হলেও নির্বাচন অফিস থেকে মনোনয়ন সংগ্রহ করেছেন জেলা বিএনপির সভাপতি সাবেক মহিলা সাংসদ ম্যাম্যচিং ও সাবেক সাংসদ ও রাজপুত্র সাচিং প্রু জেরী ও জেলা বিএনপির সাধারন সম্পাদক মোহাম্মদ জাবেদ রেজা । সতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে মনোনয়ন নিয়েছেন ডনাই প্রু নেলী।

পাহাড়ের আঞ্চলিক রাজনৈতিক দল পার্বত্য জনসংহতি সমিতি এবং ইউপিডিএফ এর পক্ষ থেকে এখনও কেউ মনোনয়ন না নিলেও নির্বাচনের জন্য প্রস্তুত বলে জানান দলটির নেতারা। সংসদ নির্বাচনে একক প্রার্থী থাকায় ১৯৯২ সাল থেকে আসনটি আওয়ামীলীগের দখলে। তবে এবার দলের দুই বহিস্কৃত নেতা মনোননয় চাওয়ায় বিপাকে একক প্রার্থী বীর বাহাদুর। তাই আগামী নির্বাচনে আসনটি ধরে রাখতে আওয়ামীলীগের জন্য বড় চ্যালেঞ্জ হযে দাড়িয়েছে। তবে দলের নেতারা বলছেন বীর বাহাদুর এলাকায় অনেক উন্নয়ন করেছেন সে হিসেবে আবারো নির্বাচনে আওয়ামীগ প্রার্থী জয়লাভ করবে।

cbn
কক্সবাজার নিউজ সিবিএন’এ প্রকাশিত কোনও সংবাদ, কলাম, তথ্য, ছবি, পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার দণ্ডনীয় অপরাধ।

সর্বশেষ সংবাদ

রোহিঙ্গাদের জন্য রাখাইনে ৫০টি বাড়ি দিল ভারত

দক্ষিণ রুমালিয়ার ছরার মমতাজ ড্রাইভার আর নেই

নির্বাচনে ১৫ হাজার পর্যবেক্ষকের অর্থায়ন করবে যুক্তরাষ্ট্র

বঙ্গবন্ধুর কবর জিয়ারতে প্রচার শুরু করছেন শেখ হাসিনা

হাইকোর্টে ধানের শীষ পেতে আপীল গৃহীত হয়নি : হামিদ আযাদ ইতিহাস সৃষ্টি করলো!

মহিলাদের অধিকার আদায় ও খালেদা জিয়াকে মুক্ত করতে ধানের শীষে ভোট দিন : শিরিন রহমান

রোহিঙ্গা ক্যাম্পে ত্রানের চাল নিয়ে সংঘর্ষ, আটক ৬

হ্নীলায় ইয়াবাসহ যুবক আটক

রামু উপজেলা বিএনপির সভাপতি ও ছাত্রদলের সাধারণ সম্পাদকসহ ১৫ জনের বিরুদ্ধে মামলা

কক্সবাজার-১ : জাফর আলমের পক্ষে নৌকায় স্ত্রীর ভোট প্রার্থনা

‘হারিয়ে যাওয়া স্বজনের খোঁজ পেতে রেডক্রিসেন্টের সহযোগিতা নিন’

সিংহ নিয়ে ভোটে নামছেন হিরো আলম

হ্নীলায় ৪০শতক সরকারী জমি উদ্ধার

বিজয় দিবস মিডিয়া কাপ ফুটবল টুর্নামেন্টের ট্রফি ও জার্সি উন্মোচন

শেখ হাসিনার বিজয় নিশ্চিত করতে নৌকায় ভোট দিন-  জেলা আ. লীগ নেতৃবৃন্দ

গণতন্ত্র ও ভোটাধিকার ফিরিয়ে আনতে ধানের শীষে ভোট দিন -এড.হাসিনা আহমেদ

গণপূর্তের জমিতে একযোগে ১৭ অবৈধ ভবন, চুপ গণপূর্ত

মুক্তিযুদ্ধের স্মৃতি ধারণ করে জীবন চলার অনুরোধ ক্যাপ্টেন সোবহানের

নৌকায় ভোট দিলে গরীবের অধিকার নিশ্চিত হবে-এমপি বদি

নির্যাতিত আ. লীগ নেতাকর্মী ও জনগণের দাবিতেই নির্বাচন করছি- ড. আনসারুল করিম