cbn  

মুহাম্মদ আবু সিদ্দিক ওসমানী :

একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে নিম্ন আদালতে দণ্ডিত কোনো ব্যক্তির সাজার ওপর পরবর্তী উচ্চ আদালতে স্থগিতাদেশ না থাকলে সংসদ নির্বাচনে তাঁর মনোনয়নপত্র বাতিল করার নির্দেশনা দিয়েছে নির্বাচন কমিশন। অর্থাৎ নিম্মআদালতে সাজার ওপর স্থগিতাদেশ ছাড়া উচ্চ আদালতে আপিল চলমান থাকলেও কেউ সংসদ নির্বাচনে প্রার্থী হতে পারবেন না।

একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের দায়িত্বপ্রাপ্ত রিটার্নিং অফিসারদের এই নির্দেশনা দেয়া হয়েছে বলে কক্সবাজারের রিটার্নিং অফিসারের কার্যালয় সুত্রে এ তথ্য জানা গেছে।

সাবেক প্রধানমন্ত্রী ও বিএনপি’র চেয়ারপার্সন খালেদা জিয়া দুর্নীতির দুটি মামলায় নিম্ন আদালতে দণ্ডিত হয়েছেন। একটি মামলায় আপিলের পর হাইকোর্টে তাঁর সাজা বেড়েছে। এখন পর্যন্ত উচ্চ আদালত থেকে তাঁর সাজার ওপর কোন স্থগিতাদেশ নেই। কিন্তু এরই মধ্যে তিনটি আসন থেকে তাঁর নামে দলীয় মনোনয়ন ফরম নেওয়া হয়েছে। রিটার্নিং কর্মকর্তার কাছে খালেদা জিয়ার মনোনয়নপত্র জমা দেওয়া হলে ইসির নির্দেশনা অনুসারে তাঁর মনোনয়নপত্র বাতিল হবে। তবে রিটার্নিং কর্মকর্তা প্রার্থিতা বাতিল করলে ইসির কাছে আপিল করার সুযোগ থাকবে। ইসিও যদি প্রার্থিতা বাতিল করে, তাহলে তিনি উচ্চ আদালতে যাওয়ার সুযোগ পাবেন।
স্থানীয় জনপ্রতিনিধি বা লাভজনক পদে থাকা কেউ সংসদ নির্বাচনে প্রার্থী হতে পারবেন কি না, এ বিষয়েও শিগগির একটি নির্দেশনা জারি করা হবে বলে সুত্রটি জানিয়েছে।
ইসি থেকে জানানো হয়েছে, ছোটখাটো ভুলে কারও মনোনয়নপত্র বাতিল করা যাবে না। মনোনয়নপত্র জমা দেওয়ার সময় সর্বোচ্চ পাঁচজন রিটার্নিং কর্মকর্তার কার্যালয়ে ঢুকতে পারবেন।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •