cbn  

শাহেদ মিজান, সিবিএন:
বিএনপি থেকে প্রার্থী হওয়ার প্রত্যাশায় মনোনয়নপত্র সংগ্রহ করেছেন নানা কারণে জেলা বিএনপির রাজনীতিতে আলোচিত দু’সাবেক সংসদ সদস্য আলমগীর ফরিদ ও ইঞ্জিনিয়ার শহীদুজ্জামান। গতকাল বুধবার দু’জনই বিএনপির মনোনয়নপত্র সংগ্রহ করেছেন বলে নিশ্চিত হওয়া গেছে। এর মধ্যে আলমগীর ফরিদ মনোনয়নপত্র নিয়েছেন মহেশখালী-কুতুবদিয়া আসন এবং ইঞ্জিনিয়ার শহীদুজ্জামান নিয়েছেন কক্সবাজার সদর-রামু আসন থেকে।

জানা গেছে, ২০০৬ সালে বাতিল হওয়া জাতীয় নির্বাচনে দলীয় মনোনয়ন না পেয়ে স্বতন্ত্র প্রার্থী হওয়ায় আলমগীর ফরিদকে দল থেকে বহিস্কার করেছিল বিএনপি। সেই নির্বাচন বাতিল হয়ে ২০০৮ সালে অনুষ্ঠিত হয়। কিন্তু তখন জেলে থাকায় আর নির্বাচন করতে পারেননি আলমগীর ফরিদ। সেই থেকে জেলা বিএনপির রাজনীতিতে কোনঠাসা ছিলেন আলমগীর ফরিদ। তিনি ও তার অনুসারীদের বাদ দিয়ে মহেশখালী-কুতুবদিয়া বিএনপির রাজনীতিতে প্রভাব ফেলে সালাহ উদ্দীন আহমদের অনুসারীরা। তবে শেষ মুহূর্তে এসে বুধবার (১৪ নভেম্বর) আলমগীর ফরিদের বহিস্কারাদেশ প্রত্যাহার করেছে বিএনপির হাইকমান্ড।

অন্যদিকে ওয়ান ইলেভেন’র সময় ‘সংস্কারপন্থী ’ ভূমিকার কারণে সাবেক সংসদ সদস্য ইঞ্জিনিয়ার শহীদুজামান পরবর্তী নির্বাচনে দলীয় মনোনয়ন বঞ্চিত হোন। সেই থেকে তিনি দলেও কোনঠাসা হয়ে পড়েন। এই কারণে গত ১০ বছরে তাঁকে বিএনপির কোনো কর্মকান্ডে দেখা যায়নি।


এ ব্যাপারে জানতে চাইলে জেলা বিএনপির সভাপতি শাহজাহান চৌধুরী বলেন, ‘আলমগীর ফরিদের বহিস্কারাদেশ প্রত্যাহার করেছে বলে আমি শুনেছি। তবে এখন পর্যন্ত কোন কাগজ পাইনি। তিনি এবং শহীদণজ্জামান দু’জন মনোনয়নপত্রও সংগ্রহ করেছে শুনেছি। যে কেউ তা নিতে পারে। তবে পূর্ণ সিদ্ধান্তটা দলীয় হাইকমান্ডের হাতে। হাইকমান্ড যাকে মনোনয়ন দেবে নেতাকর্মীরা তার পক্ষে কাজ করবে।’

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •