cbn  

মুহাম্মদ আবু সিদ্দিক ওসমানী :

বঙ্গোপসাগরের সেন্টমার্টিনে জেলের জালে আটকা পড়ল ৩৪ কেজি ওজনের একটি পোয়া মাছ। লম্বায় প্রায় সাড়ে চার ফুট মাছটি ৮ লাখ টাকায় বিক্রি হয়েছে। স্থানীয় মাছ ব্যবসায়ী ফজল করিম উচ্চ মূল্যে মাছটি কিনে নেন।

১৩ নভেম্বর মঙ্গলবার সকাল সাড়ে ১০ টার দিকে সেন্টমার্টিন দ্বীপের পশ্চিম পাড়ার মৃত সোলতান আহমদের ছেলে আব্দুল গণির মালিকানাধীন ট্রলার নিয়ে সাগরে মাছ শিকার করতে গেলে তার জালে আটকা পড়ে ৩৪ কেজি ওজনের ওই পোয়া মাছটি। এতেই আবদুল গনির ভাগ্য খুলে যায়।

পরে বেলা সাড়ে ১১টার দিকে মাছসহ ট্রলারটি সেন্টমার্টিন জেটি ঘাঁটে এসে পৌঁছালে উৎসুক মানুষের ভিড় জমে যায়।

মাছটির ক্রেতা সেন্টমার্টিন পশ্চিমপাড়ার বাসিন্দা মাছ ব্যবসায়ী ফজল করিম বলেন, মাছটির ফুসফুস বা স্থানীয় ভাষায় পদানা দিয়ে বিদেশে বিশেষ ধরনের স্যুপ তৈরী হয়। তাই মাছটির পদানার ওজন এক কেজি বা তার উপরে হলে কমপক্ষে ১০ লাখ টাকায় চট্টগ্রামে বিক্রি করা যাবে। পদানার ওজন এর কম হলে তার লোকসান হবে বলে জানায়। এই মাছটি স্থানীয়ভাবে কালা পোয়া মাছ নামে পরিচিত।

তবে এখন মাছটি জেটিঘাট সংলগ্ন মাছের হিমাগারে রাখা হয়েছে। এ মাছের ক্রয় মূল্য অনেক বেশি হওয়ায় চট্টগ্রাম নেয়া যায় কিনা সেখানকার ব্যবসায়ীদের সঙ্গে যোগাযোগ করা হচ্ছে বলেও জানান তিনি।

টেকনাফ উপজেলা সিনিয়র মৎস্য কর্মকর্তা মো. দেলোয়ার হোসেন জানান, বঙ্গোপসাগরে ৩৪ কেজি ওজনের বড় পোয়া মাছ ধরা পড়ার খবরটি শুনেছি। সাধারণত এত বড় পোয়া মাছের দেখা সহজে পাওয়া যায় না।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •