সৌদি আরবে এক বছরের জন্য বাদশাহ হবেন আহমেদ!

ডেস্ক নিউজ:
সৌদির বাদশাহ সালমান বিন আবদুল আজিজ আল-সৌদকে ক্ষমতাচ্যুত করে আগামী এক বছরের জন্য আহমেদ বিন আবদুল আজিজ আল-সৌদকে মসনদে বসাতে চায় দেশটির বিরোধী একটি জোট।
রোববার ‘সুশাসনের মিত্র’ নামে পরিচিত দেশটির বিরোধী একটি জোট আগামী এক বছরের জন্য ‘নতুন বাদশাহ’ হিসেবে আহমেদকে ক্ষমতা নেয়ার আহ্বান জানিয়েছেন।

সৌদির এ বিরোধী জোট প্রথমবারের মতো দেশটির শাসন ক্ষমতায় পরিবর্তনের ডাক দিয়ে বিবৃতি দিয়েছে। দৈনিক আল খালিজ অনলাইনে প্রকাশিত ওই বিবৃতির উদ্ধৃতি দিয়ে মিডিল ইস্ট মনিটর এ খবর জানিয়েছে।
বিবৃতিতে বলা হয়েছে, ‘সৌদির শাসন ক্ষমতায় কারা থাকবেন তা দেশের জনগণ নির্ধারণ করবে।’ এতে আরো বলা হয়, ‘গত চার বছরে প্রমাণ হয়েছে যে, বাদশাহ সালমান ও যুবরাজ মোহাম্মদ দেশের শাসনকার্য চালানোর যোগ্য নন। তাদের শাসনব্যবস্থা দেশ, দেশের বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান, জনগণ ও সম্পদকে হুমকির মুখে ফেলেছে।’

দেশকে রক্ষা করতে প্রিন্স আহমেদের আগ্রহের ওপর সৌদির এ বিরোধী জোটের সমর্থন রয়েছে বলে জানানো হয়।
এতে বলা হয়েছে দেশের সশস্ত্র বাহিনী, নিরাপত্তা বাহিনী ও ব্যাপকসংখ্যক মানুষের সাথে পরামর্শ ও সমন্বয় করে নতুন বাদশাহ হিসেবে বাদশাহ সালমানের একমাত্র জীবিত ভাই আহমেদকে ক্ষমতা নেয়ার আহ্বান জানিয়েছেন।

তারা বলেছেন, যুবরাজ মোহাম্মদ বিন সালমানের ‘ভুল এবং দায়িত্ব জ্ঞানহীন সিদ্ধান্ত ও নীতিনৈতিকতা’র কারণে দেশে ঐতিহাসিক অচলাবস্থা সৃষ্টি হয়েছে।’ এতে বলা হয়েছে, ‘সাংবাদিক জামাল খাশোগি, তুর্কি আল-জাসের ও সুলেইমান আল-ওয়েসকে মর্মান্তিক গুপ্তহত্যা ও বাড়তে থাকা হত্যাকাণ্ডের ঘটনা সৌদি আরবকে সঙ্কটের মধ্যে ফেলেছে।’
সৌদি যুবরাজ মোহাম্মদ বিন সালমানের দায়িত্বহীন নীতিমালা, সংস্কারপন্থীদের দমন, শিশু, নারী ও বৃদ্ধদের গ্রেফতার, ইয়েমেন যুদ্ধ, কাতারের বিরুদ্ধে অবরোধ আরোপ ও ইসরাইলের সাথে ঘনিষ্ঠতা বাড়ানোর সমালোচনা করেছে দেশটির এই বিরোধী শিবির। সৌদির এই বিরোধী জোটে ছয়টি বিরোধী রাজনৈতিক ও সাতটি স্বতন্ত্র দল রয়েছে।

তুরস্কের ইস্তাম্বুলে সৌদি কন্স্যুলেটে সাংবাদিক জামাল খাশোগি হত্যাকাণ্ড ঘিরে বৈশ্বিক শোরগোলের মধ্যে গত ৩০ অক্টোবর সৌদিতে ফেরেন বাদশাহ সালমানের ভাই আহমেদ বিন আবদুল আজিজ। ওই দিন তাকে বিমানবন্দরে উষ্ণ অভ্যর্থনা জানান ভাতিজা ও দেশটির বর্তমান যুবরাজ মোহাম্মদ বিন সালমান। তবে তিনি ফেরার পরে বাদশাহর প্রতিক্রিয়া জানা যায়নি।

সৌদি রাজপরিবারের বয়োজ্যেষ্ঠ প্রিন্স আহমেদ লন্ডনে বসবাস করে আসছিলেন। তিনিই একমাত্র সৌদি বাদশাহর জীবিত ভাই। যুক্তরাষ্ট্র ও যুক্তরাজ্যের কাছ থেকে নিরাপত্তার নিশ্চয়তা পাওয়ার পরই তিনি দেশে ফেরেন। এর আগে তিনি ইয়েমেন হামলা নিয়েও মন্তব্য করেছেন। এতে সৌদি বাদশাহ তার ওপর ক্ষেপে যান। তবে সৌদি গণমাধ্যমে বাদশাহর ভাই যে ব্যাখ্যা দিয়েছেন তা ভুল বলে সংবাদ প্রচার করা হয়।

তিনি অবসরে যাওয়ার আগে দেশটির উপস্বরাষ্ট্রমন্ত্রী ও পরে কিছু দিনের জন্য স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর দায়িত্ব পান। পরে অবসরের বাকি দিনগুলো লন্ডনে কাটান। বাদশাহর সাত ভাইয়ের মধ্যে এখন দু’জনই বেঁচে আছেন। ছোট ভাই আহমেদের বয়স ৭০ বছর।

সর্বশেষ সংবাদ

টেকনাফে নিহত যুবলীগ নেতার ভাইকে অপহরণচেষ্টা, ক্যাম্পে অভিযান

ঘুরে আসলাম সূর্যোদয়-অস্তের কুয়াকাটা

কক্সবাজার সদর থানা পুলিশের অভিযানে গ্রেফতার- ১৮

হালিশহরে মহেশখালের উপর অবৈধ স্থাপনা গুঁড়িয়ে দিল সিডিএ

মহাসড়কের ঈদগাঁওতে যত্রতত্রে গাড়ি পার্কিং : ব্যবসায়ীরা বিপাকে

সাবেক সাংসদ ও রাষ্ট্রদূত ওসমান সরওয়ার আলম চৌধুরীর ৯ম মৃত্যু বার্ষিকী মঙ্গলবার

এনজিওর ইন্ধনে রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসন সন্দেহ-সংশয়

পেকুয়ায় ভূঁয়া এনএসআই কর্মকর্তা আটক

এবার বাহরাইনেও সম্মাননায় ভূষিত নরেন্দ্র মোদি

এবার ব্যবস্থা নেয়া হচ্ছে নারী সহকর্মী সানজিদা’র বিরুদ্ধে

পেকুয়ায় ডেঙ্গু রোগী শনাক্ত

চকরিয়ায় ইয়াবাসহ যুবক গ্রেপ্তার

সৌদিআরবে প্রবাসী সমাবেশ ও হাজীদের সংবর্ধনা

উখিয়ায় লক্ষাধিক রোহিঙ্গার সমাবেশ থেকে বিশ্ববাসীর কাছে ৫ দফা

পেকুয়ায় বিদ্যুৎস্পৃষ্টে যুবকের মৃত্যু

কর্ণফুলী টানেলের বিশাল কর্মযজ্ঞ

রোহিঙ্গারা নানা অপরাধে জড়িয়ে পড়েছে : ২ বছরে ৪৭১ মামলায় ১০৮৮ জন আসামী

পেকুয়ায় সন্ত্রাসীদের গ্রেফতারের দাবীতে মানববন্ধন

বান্দরবানের নাইক্ষ্যংছড়িতে মাসিক আইন শৃঙ্খলা সভা অনুষ্ঠিত

রাঙ্গামাটি পৌরসভার ১১৫৪,৭৯৫,০০০ টাকার বাজেট ঘোষনা