আবুল কালাম,চট্টগ্রাম :

আগামী দশ ডিসেম্বর হতে শুরু হবে মুক্তিযুদ্ধের বিজয় মেলা। সপ্তাহব্যাপী চলবে। মেলায় অনুষ্ঠান মালায় রয়েছে মুক্তিযুদ্ধের স্মৃতিচারণ বরেণ্য ব্যক্তিত্ব ও কৃতী শিক্ষার্থী সংবর্ধনা, চিত্রাংকন প্রতিযোগিতা এবং বিভিন্ন শিল্পীদের পরিবেশনায় সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান।

শনিবার (১০ ই নভেম্বর) সকালের দিকে নগরের মুক্তিযুদ্ধের বিজয় মেলা পরিষদের উদ্যোগে চট্টগ্রাম প্রেসক্লাবে সংবাদিকদের মতবিনিময় সভায় এসব তথ্য জানানো হয়।

সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন মুক্তিযুদ্ধের বিজয় মেলা পরিষদের কার্যকরী চেয়ারম্যান আবুল হাসেম।

তিনি বলেন, গত ৩০ বছর ধরে মুক্তিযুদ্ধের বিজয়ের আলোকিত চেতনাকে বুকেধারন করে, মুক্তিযুদ্ধের চেতনা বিকাশের অঙ্গীকার নিয়ে ‘মুক্তিযুদ্ধের বিজয় মেলা’ স্বতঃস্ফুর্তভাবে অনুষ্ঠিত হয়ে আসছে।

মুক্তিযোদ্ধাদের উদ্যোগে চট্টগ্রামে সর্বপ্রথম ১৯৮৯ সালে বিজয় মেলার সূচনা হয়। জাতির জীবনে বিজয়ে মুহূর্ত সবচেয়ে গৌরবের। এ চেতনাকে শানিত করার প্রত্যয়ে নিয়ে মুক্তিযুদ্ধের বিজয় মেলার আয়োজন করা হয়ে থাকে। মুক্তিযুদ্ধের পক্ষের শক্তির ঐক্যকে চোখের মনির মতো রক্ষা করা এবং দেশপ্রেমিক মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় কাজ করার সাফল্যকে অগ্রসর করতে এ আয়োজন।

মতবিনিময় সভায় মুক্তিযুদ্ধের বিজয় মেলা পরিষদের কো-চেয়ারম্যান ও জেলা মুক্তিযোদ্ধা সংসদের কমান্ডার মো. শাহাবুদ্দিন, মহাসচিব ও মহানগর মুক্তিযোদ্ধা সংসদের কমান্ডার মো. মোজাফফর আহমেদ, সরওয়ার কামাল দুলু, এম এন ইসলাম, যুগ্ম সম্পাদক খোরশেদ আলম, সহ-সম্পাদক অ্যাডভোকেট সুনীল সরকার, যুগ্ম সম্পাদক ফিরোজ আহমেদ প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।এতে আগামী প্রজন্ম কে মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় উজ্জীবিত করে তুলার জন্য প্রত্যয় ব্যক্তকরেছেন।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •