পেকুয়ায় প্রবাসীর স্ত্রীকে নির্যাতন

পেকুয়া প্রতিনিধি:

পেকুয়ায় প্রবাসীর স্ত্রীকে নির্যাতনের অভিযোগ পাওয়া গেছে। ভুক্তভোগী প্রবাসীর স্ত্রী বাদী হয়ে নির্যাতনকারী ভাসুর আব্দুল খালেকসহ ২ জনকে বিবাদী করে পেকুয়া থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করে।

অভিযোগ সূত্রে জানা যায়, পেকুয়া সদর ইউনিয়নের উত্তর মেহেরনামা ঠান্ডাবর পাড়া এলাকার মৃত জহির আহমদের মেয়ে আরফা বেগমের সাথে একই এলাকার মৃত আবুল শরীফের পুত্র সৌদি প্রবাসী মোহাম্মদ কাইছার উদ্দিনের সাথে ইসলামী শরীয়াহ্ মোতাবেক সামাজিক ভাবে বিয়ে সম্পূর্ন হয়। ৩ লক্ষ টাকা দেনমোহর মূলে এবং স্বামীকে নগদ এক লক্ষ টাকা ও আসবাবপত্র দিয়ে বিবাহ সম্পন্ন করে কনের পরিবার। বিয়ের দেড় বছর পর যৌতুকের জন্য যৌতুক লোভী স্বামী ও তার ভাসুর স্ত্রীকে শারিরিক ও মানষিক নির্যাতন চালিয়ে ৬বছর ধরে গৃহবন্ধী রাখে। এমনকি তার স্বামীকে ২ লক্ষ টাকা যৌতুক না দিলে সে আরেকটি বিয়ে করবে বলে হুমকি দেয়।

আরফা বেগম অভিযোগ করে বলেন, আমি নাকি ঘর থেকে বের হলে ৩ তালাক এবং ছাদে উঠলে ২ তালাক দিবে মর্মে হুমকি প্রদর্শন করে। এসবকিছুর নায়ক ভাসুর আব্দুল খালেক। স্বামীর সরলতা এবং টাকার লোভে আমার স্বামীকে নানা ধরণের কথা বলে আমার উপর নির্যাতনের মাত্রা বাড়িয়ে দিয়ে হয়রানি শুরু করছে। বিয়ের পর আমার স্বামী সৌদি আরব গমন করে। সৌদি আরব থাকা অবস্থায় আমার ভাসুর আমার সরলতাকে পুজি করে নানা ধরণের কুকর্মের আশ্রয় নিয়ে আমার স্বামীকে মোবাইল ফোনে বাজে কথাবার্তা বলে আমাকে হাকাবকা শুরু করে। এমনকি ঘর থেকে বের করে দেবে বলেও হুমকি দেয়। আমার পরিবার অসহায় বলে তার দাবীকৃত যৌতুক দিতে না পারায় আমার ভাসুর খালেক সুকৌশলে কোনাখালী এলাকার এক মেয়ের সাথে তার বিয়ে ঠিক করছে বলে হুমকি দেয়। একপর্যায়ে আমাকে ঘর থেকে জোর করে ধাক্কা দিয়ে কোন জিনিস পত্র ছাড়া মারধর করে বের করে দেয়। পরে স্থানীয়ভাবে মিমাংসা করার চেষ্টা করলেও তারা তা মানেনি। ঘরে আমার মূল্যবান স্বর্ণ, কাপড় আছে। সেগুলো আমার ভাসুর জব্দ করে রাখে সে ভোগ করার কুমানষে। তার পরও তারা ক্ষান্ত হয়নি উল্টো আমাকে ও আমার ৪ ভাইকে আসামী করে আমার পরিবারকে হয়রানি করার উদ্দ্যেশে চাঁদাদাবী ও বাউন্ডারী ভাঙ্গিয়ে ভিতরে প্রবেশ করে ঘরের মালামাল তচনচ করার অভিযোগ এনে গত ৭ নভেম্বর চকরিয়া সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিষ্ট্রেট আদালতে আব্দুল খালেক বাদী হয়ে চাঁদাবাজী মামলা দায়ের করেন। যার সিআর মামলা নং ১২১৭। ওই দিনই গভীর রাতে পেকুয়া থানার পুলিশ আমার তিন ভাইকে গ্রেপ্তার করে। গ্রেপ্তারের পর পরই বিবাদীগণ আমার পিতার ঘরের দরজা ও বেড়া ভাংচুর চালিয়ে ঘরের মালামাল লুট করে। এতে পিতার লক্ষাধিক টাকার ক্ষতি হয়। এ বিষয়ে পুলিশকে জানানো হলেও কোন কর্ণপাত না করে উল্টো আমাকে হত্যার হুমকি দিচ্ছে। অভিযুক্ত আব্দুল খালেকের সাথে যোগাযোগ করার জন্য ওনার বাড়ীতে গেলেও গেইট খুলেনি এবং মোবাইলে কল দিলেও কথা বলেনি।

পেকুয়া থানার ওসি (প্রশাসন) জাকির হোসেন ভুইয়ার সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি বলেন, ভুক্তভোগি আরফা বেগমের লিখিত অভিযোগটি তদন্তপূর্বক যথাযত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

এ ব্যাপারে পেকুয়া উপজেলা নিবার্হী কর্মকর্তা মাহাবুবউল করিমের সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি বিষয়টি শুনেছেন এবং সুষ্ট তদন্ত করার জন্য পেকুয়া থানার ওসি তদন্তকে নিদের্শ দিয়েছেন বলে জানান।

cbn
কক্সবাজার নিউজ সিবিএন’এ প্রকাশিত কোনও সংবাদ, কলাম, তথ্য, ছবি, পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার দণ্ডনীয় অপরাধ।

সর্বশেষ সংবাদ

কক্সবাজার আদালতে ইয়াবা মামলার আসামীর ১০ বছরের সশ্রম কারাদণ্ড

ভিন্ন স্টাইলে জুয়ার আসর

ভিটামিন ‘এ’ ক্যাম্পেইন ফেব্রুয়ারিতে

আরও ২৫০ রোহিঙ্গাকে বাংলাদেশে ফেরত পাঠাচ্ছে সৌদি

২২ জানুয়ারি থেকে ২৭ ফেব্রুয়ারি সব কোচিং সেন্টার বন্ধ: শিক্ষামন্ত্রী

শেখ হাসিনার রূপগল্প বাস্তবায়নে শিক্ষার আলো ছড়িয়ে দিতে হবে : এমপি জাফর আলম

জন্মনিবন্ধন কার্যক্রম বন্ধ: ভোগান্তিতে ঈদগাঁওবাসী

সাংসদ জাফর আলমকে ডুলাহাজারা বহুমুখী উচ্চ বিদ্যালয়ে লালগালিচা সংবর্ধনা

‘এনজিওগুলোতে স্থানীয়দের ছাঁটাইয়ের অভিযোগ খতিয়ে দেখা হচ্ছে’

বাংলাদেশ অটো-বাইক শ্রমিক কল্যাণ সোসাইটি জেলা কমিটি গঠিত

নৌবাহিনী প্রধান হলেন আওরঙ্গজেব চৌধুরী

সরকারের নির্বাচনী ইশতেহার বাস্তবায়ন সংক্রান্ত কর্মশালা অনুষ্ঠিত  

পানি সম্পদ উপমন্ত্রীর সাথে জেলা আ’লীগ নেতৃবৃন্দের শুভেচ্ছা বিনিময়

এডভোকেট আবু হেনা নদী পরিব্রাজক দল জেলা শ্রেষ্ঠ সভাপতির পুরস্কারে ভূষিত

ঈদগাঁওতে কোরআন শিক্ষার মক্তব থেকে বঞ্চিত হচ্ছে শিশুরা!

কক্সবাজার কলেজ বাংলা বিভাগের শিক্ষা সফর : ব্যক্তিগত অনুভূতি

কক্সবাজারে জনস্বাস্থ্য প্রকৌশল অধিদপ্তরের নতুন সভাকক্ষ উদ্বোধন

যুবসমাজের আনন্দায়োজন: কিছু ভাবনা , কিছু কথা…

সর্বক্ষেত্রে আল্লাহর নির্দেশ মেনে চলার নাম ইবাদত

উখিয়ায় উপজেলা নির্বাচনী হাওয়া : মাঠে বীর মুক্তিযোদ্ধা জাফর আলম চৌধুরী