এম.মনছুর আলম, চকরিয়া:

একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের তফসিল ঘোষনার পরপর নির্বাচন ঠেকাতে নাশকতার পরিকল্পনার অভিযোগে পুলিশ উপজেলা বিএনপির সভাপতি আলহাজ মিজানুর রহমান চৌধুরী ওরফে খোকন মিয়াসহ দলের আট নেতাকর্মীকে আটক করেছে পুলিশ। গতকাল বুধবার রাত ৯টার দিকে উপজেলার ডুলাহাজারাস্থ নিজবাড়ি থেকে বিএনপির সভাপতিসহ নেতাকর্মীদের আটক করে পুলিশ।

পুলিশ বলছেন, অভিযানের সময় বিএনপি নেতাকর্মীদের হেফাজত থেকে মাধ্যমে একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের তফসিল ঘোষনার পরপর নির্বাচন ঠেকাতে নাশকতার অংশ হিসেবে চট্টগ্রাম-কক্সবাজার মহাসড়ক অচল করে দেয়ার ঘোষনা লেখা একটি চিরকুট ও লাঠিসোঠা উদ্ধার করা হয়েছে।

অভিযানে উপজেলা বিএনপির সভাপতি খোকন মিয়া ছাড়াও আটক নেতাকর্মী হলেন খুটাখালী ইউনিয়ন বিএনপির সভাপতি জাফর আহমদ, ইউনিয়ন বিএনপির সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক ফরিদুল আলম, উপজেলা যুবদলের যুগ্ম আহবায়ক আবদুস ছালাম, ডুলাহাজারা যুবদলের সাবেক যুগ্ম আহবায়ক আনোয়ারুল আজিম, ইউনিয়ন ছাত্রদলের সাবেক আহবায়ক আনোয়ার পারভেজ সোহেল, ডুলাহাজারা ইউনিয়ন ছাত্রদলের সিনিয়র যুগ্ম আহবায়ক হেলাল উদ্দিন ও সাবেক সদস্য সচিব মোহাম্মদ হেলাল।

অভিযানের সত্যতা নিশ্চিত করে চকরিয়া সার্কেলের সিনিয়র সহকারী পুলিশ সুপার কাজী মতিউল ইসলাম বলেন, গোপনসূত্রে খবর পেয়ে থানার একদল পুলিশ গতকাল রাতে ডুলাহাজারাস্থ চকরিয়া উপজেলা বিএনপির সভাপতির বাড়িতে অভিযান চালায়। ওই সময় বৃহস্পতিবার (আজ) একাদশ সংসদ নির্বাচনের তফসিল ঘোষনা করলেই চকরিয়া অচল করে দেয়ার পরিকল্পনার একটি চিরকুট ও লাটিসোটাসহ উপজেলা বিএনপির সভাপতি খোকন মিয়াসহ অপর ৭ জনকে আটক করা হয়।

তিনি বলেন, চিরকুটটি ইউনিয়ন ও ওয়ার্ড পর্যায়ে বিএনপির নেতাকর্মীদের কাছে পৌছে গেলে ব্যাপক নাশকতা হতে পারে আশংকায় তাদের আটক করা হয়েছে। এ ঘটনার পর পুরো উপজেলায় পুলিশী টহলের জোরদারের পাশাপাশি নাশকতা করতে পারে সম্ভাব্য কর্মীদের আটক করতে পুলিশের একাধিক টিম অভিযানে রয়েছে।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •