cbn  

মো. ওসমান গণি:
কক্সবাজার সদর উপজেলার খুরুশকুলে মামুনুর রশিদ (১৬) নামে এক কিশোরকে বিদ্যুতের শক দিয়ে হত্যা করার অভিযোগ উঠেছে।
রবিবার (৪ নভেম্বর) সন্ধ্যা সাড়ে ছয়টার দিকে ইউনিয়নের কোনাপাড়ায় মর্মান্তিক ঘটনাটি ঘটে।
নিহত কিশোর ওই এলাকার নবিউল হকের ছেলে। ঘটনায় জড়িতরা পালিয়ে গেছে।
রবিবার দিবাগত রাত সাড়ে ১০টায় রিপোর্ট লিখাকালে নিহতের মরদেহ জেলা সদর হাসপাতালে ছিল।
মামুনের সৎ মা হাজেরা খাতুনের কাছে জানতে চাইল বলেন, রবিবার বিকালে ৪ টার দিকে দুপুরের ভাত খেয়ে বাড়ী থেকে বের হয় মামুন। দীর্ঘ সময় বাড়িতে না ফেরায় খোঁজ নিতে গিয়ে জানতে পারি তাকে জাকের আলম প্রকাশ (কালু) এর টমটমের গ্যারেজে বেধে রাখা হয়েছে। সেখানে বাধা অবস্থায় বৈদ্যুতিক শক দেয়া হয়। তাতে অজ্ঞান হয়ে পড়ে।
স্থানীয়দের সহায়তায় উদ্ধার করে জেলা সদর হাসপাতালে নেয়া হলে চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন। ঘটনার সাথে স্থানীয় মোহাম্মদ মাঝির ছেলে আব্বাস মিয়া, নবাব মিয়া, ফরিদ আলমের ছেলে নুরুল হুদা জড়িত বলে প্রত্যক্ষদর্শী লোকজন জানিয়েছে।
খবর পেয়ে তাৎক্ষণিক নিহত কিশোরের মা হাজেরা খাতুন ঘটনাস্থলে গেলে গ্যারেজে ঢুকতে দেয়া হয়নি। ধাক্কা দিয়ে তাড়িয়ে দেয়া হয়। ঘটনার মূল রহস্য বের করা যায়নি।অভিযুক্তদের কারো বক্তব্য মেলেনি।
এ বিষয়ে কক্সবাজার সদর মডেল থানার ওসি মো. ফরিদ উদ্দীন খন্দকারের কাছে জানতে চাইলে বলেন, মর্মান্তিক ঘটনাটি শুনেছি, তবে বিস্তারিত জানিনা। কেউ লিখিত অভিযোগও করেনি। লিখিত অভিযোগ পেলে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •