cbn  

ঈদগাঁও সংবাদদাতা:
কক্সবাজার সদরের ইসলামাবাদ পাহাসিয়াখালী এলাকার এক সৌদি প্রবাসীর স্ত্রী ও ৩ সন্তানের জননী কুপ্রস্তাবে রাজি না হওয়ায় তাকে ব্লাকমেলিং করে ফেসবুকে ছবি প্রচারের অভিযোগ পাওয়া গেছে। শুধু তাতে শেষ নয়, ওই মহিলার স্কুল পড়ুয়া তিন সন্তানকেও স্কুলে যেতে বাধা দিচ্ছে। মুঠোফোনে প্রতিনিয়ত উত্যক্তমূলক কথা, হুমকি দিয়ে যাচ্ছে মো. রুবেল (২৮) নামের বখাটে। অভিযুক্ত মো. রুবেল পূর্ব লরাবাগ এলাকার আমির হোসেনের ছেলে। তার কারণে প্রবাসীর স্ত্রী, সন্তানেরা নিরাপত্তাহীনতায় রয়েছে। প্রবাসে অবস্থানরত স্বামীর কাছে এডিটকরা নগ্ন ছবি পাঠিয়ে তাদের সংসারে ফাটল ধরানোর অপচেষ্টা চালাচ্ছে।
এ ঘটনায় বখাটের বিরুদ্ধে কক্সবাজার সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালত-৪ এ মামলা করেছেন ভুক্তভোগি প্রবাসীর স্ত্রী। রবিবার (৪ নভেম্বর) দায়ের করা মামলাটি আমলে নিয়ে পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশন (পিবিআই)কে তদন্তের দায়িত্ব দিয়েছেন বিচারক তামান্না ফারাহ।
মামলার এজাহারসুত্রে জানা গেছে, তার স্বামী সাড়ে ৫ বছর ধরে সৌদি আরব অবস্থান করছে। সেই সুযোগে প্রবাসীর স্ত্রীকে নানাভাবে কুপ্রস্তাব দেয় বখাটে রুবেল। তাতে রাজি না হওয়ায় বিভিন্ন উপায়ে শ্লিলতাহানির চেষ্টা করে। পরিবারের ছবি সংগ্রহ করে এডিট করে নগ্নভাবে ফেসবুকে প্রচার করে। এসব অপপ্রচার বন্ধ করতে ২ লাখ টাকা চাঁদা দাবী করে।
মামলার বাদিনি জানিয়েছে, বখাটে রুবেল ফোনে ও সরাসরি বিভিন্ন সময় কুপ্রস্তাব দেয় তাকে। রাজি না হলে স্কুলগামী তিন মেয়েকে অপহরণের হুমকি প্রদান করে। বিভিন্ন ফেক আইডি খোলে এডিট করা নগ্ন ছবি প্রচার করে। প্রবাসীর স্ত্রী ৩ মেয়ের প্রথমটি ঈদগাহ জাহানারা ইসলাম বালিকা বিদ্যালয়ে ৭ম শ্রেণী, দ্বিতীয় মেয়ে ঈদগাঁও এটাস প্রাইমারীতে ৫ম ও কনিষ্ট মেয়ে ২য় শ্রেনীতে পড়ে।
অভিযুক্ত মো. রুবেল প্রবাসীর স্ত্রীকে বিভিন্ন সময় বাড়ির প্রয়োজনীয় বাজার করে দেয়াসহ নানা কাজে সহায়তা বাবদ টাকা খরচ করেছেন বলে দাবী করেন। তবে, কি কারণে, কোন প্রয়োজনে খরচ করেছেন? কত টাকা খরচ করেছেন? জানতে চাইলে সদুত্তর দিতে পারেননি। ফেসবুকে নগ্ন-আপত্তিকর ছবি প্রচারের বিষয়টি এড়িয়ে যান।

মামলার বাদীপক্ষের কক্সবাজার আদালতের সিনিয়র আইনজীবী রমিজ আহমদ জানিয়েছেন, একজন মহিলার ছবি এভাবে নগ্ন করে প্রচার করার অধিকার কারো নাই। অভিযুক্ত ব্যক্তি এটি চরম অপরাধ করেছে। তার বিরুদ্ধে তথ্যপ্রযুক্তি আইনে মামলার প্রস্তুতি চলছে।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •