cbn  
সংবাদদাতা:
কক্সবাজার জেলার ঐতিহ্যবাহী সাংস্কৃতিক শিক্ষা কেন্দ্র চকোরী সাংস্কৃতিক একাডেমী আয়োজিত চকোরী মেধা অন্বেষণ বৃত্তি পরীক্ষা’১৮ এর ফলাফল ৩ নভেম্বর বিকাল ৪ টায় ঘোষণা করা হয়েছে। ২ নভেম্বর অনুষ্টিত বৃত্তি পরীক্ষায় সর্বমোট ১৪৮৫ জন শিক্ষার্থী পরীক্ষায় অংশ নেয়। তন্মধ্যে ২য় শ্রেণিতে ৫৭ জন, ৩য় শ্রেণিতে ৪৫ জন, ৪র্থ শ্রেণিতে ৪০ জন, ৫ম শ্রেণিতে ৫০ জন, ৬ষ্ঠ শ্রেণিতে ৩৪ জন এবং ৭ম শ্রেণিতে ৩৪ জন শিক্ষার্থী বিভিন্ন গ্রেডে বৃত্তি লাভ করে।
পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক অধ্যাপক জুবাইদুল হক স্বাক্ষরিত শ্রেণি ভিত্তিক ফলাফল নিম্নরূপ:
দ্বিতীয় শ্রেণিঃ  
গোল্ডেন এ প্লাস : ২০৪৬ = ০১ জন।
এ প্লাস গ্রেডে: ২১৩৪, ২০৩৯, ২১২৮ = ০৩ জন।
এ গ্রেডে: ২০২২, ২০৩৪, ২০১৪, ২০৩১, ২১৯৫, ২১০২, ২০৯৪, ২০৩২, ২১৪১, ২১২৬, ২১৯৭, = ১১ জন।
সাধারণ গ্রেডে:, ২০৫৯, ২১০৪, ২০৮৮, ২০১৯, ২০৯৬, ২০২৪, ২১৯২, ২১২৯, ২১৩৬, ২০৯৮, ২১৩৫, ২১৯৬, ২০৯৫, ২২১৯, ২০২৩, ২১৬৫, ২০৫১, ২০৫৪, ২১৩২, ২১২৭, ২০৩৫, ২১৭৫, ২০৩৭, ২০২৯, ২০১৫, ২১৪৪, ২০৯৯, ২০৮৫, ২০১৮. ২০৮৪, ২১১১, ২০৫০, ২২০৭, ২০৯৭, ২১২২, ২২০১, ২২৮৩, ২০২০, ২১৩০, ২১২৫, ২০৪০, ২১৯৮ = ৪২ জন।
তৃতীয় শ্রেণিঃ
গোল্ডেন এ প্লাস: নাই।
এ প্লাস গ্রেডে: ৩০২৩ = ১ জন।
এ গ্রেডে: ৩২০৮, ৩০০৪, ৩০০৭, ৩০০৫, ৩০৫০, ৩১৬৬, ৩০৮৩ = ০৭ জন।
সাধারণ গ্রেডে: ৩২০১, ৩০১৭, ৩০৩৭, ৩০৫১, ৩০০২, ৩০৩৬, ৩০২২, ৩০৪০, ৩০৮৪, ৩০৩৯, ৩০০১, ৩০৭১, ৩১২৩, ৩০১৮, ৩১৫৩, ৩০২৪, ৩১৯৩, ৩০৬৬, ৩১৬১, ৩১১৪, ৩১৮১, ৩০২৯, ৩০১৯, ৩০৩৪, ৩১৯৭, ৩০৮১, ৩০২৫, ৩০১৩, ৩১৮৮, ৩০৩৮, ৩০৭২, ৩১৮৪, ৩০৬৯, ৩০৭৯, ৩০৬৫, ৩০০৯, ৩১৭৮ = ৩৭ জন।
চতুর্থ শ্রেণিঃ
গোল্ডেন এ প্লাস: ৪২২৩, ৪২২৭, ৪২১৮ = ০৩ জন।
এ প্লাস গ্রেডে: ৪২১৭, ৪২২৬, ৪২২৫, ৪২১৯, ৪১৭৭ = ০৫ জন।
এ গ্রেডে: ৪২২০, ৪২০৬ = ০২ জন।
সাধারণ গ্রেডে: ৪১৯৮, ৪০৩২, ৪০৯৫, ৪০২৯, ৪১৩৬, ৪০৯৩, ৪০৯২, ৪১০৪, ৪২০৯, ৪০৭৭, ৪২২৪, ৪০১৪, ৪২২৮, ৪০১৩, ৪০১৫, ৪০২৫, ৪১৩৫, ৪০১৭, ৪০৬৫, ৪১৩০, ৪০১৬, ৪২০৪, ৪১৩৩, ৪২২২, ৪০৯৪, ৪১৩৭, ৪০৩৪, ৪০২২, ৪২০৫, ৪০২৮ = ৩০ জন।
পঞ্চম শ্রেণি:
গোল্ডেন এ প্লাস: নাই।
এ প্লাস গ্রেডে: ৫০৬০, ৫০৩৩ = ০২ জন।
এ গ্রেডে: ৫০৮৫, ৫০৫৯, ৫০৫৪, ৫২৩৭ = ০৪ জন।
সাধারণ গ্রেডে: ৫২৬৭, ৫০৪২, ৫০০৫, ৫০৩০, ৫১০৬, ৫১৬২, ৫০৩৪, ৫০৩১, ৫২৭১, ৫২৭৩, ৫২২৬, ৫০০৬, ৫১৭৫, ৫১৮০, ৫০৫৮, ৫২২৮, ৫১০০, ৫২৫৮, ৫২৩৪, ৫১০৫, ৫০৫১, ৫৩০২, ৫২৭২, ৫০৫২, ৫২৬১, ৫২২৭, ৫০৪৪, ৫০১৬, ৫০৮৩, ৫২৫৩, ৫০৮২, ৫১৬১, ৫৩১১, ৫০৫৩, ৫০১২, ৫০৫৫, ৫২৬৬, ৫১৬৩, ৫১০৯, ৫১৫৬, ৫২৯৪, ৫২৪৭, ৫০৪৩, ৫১০২ = ৪৪ জন।
ষষ্ঠ শ্রেণি:
গোল্ডেন এ প্লাস: নাই।
এ প্লাস গ্রেডে: ৬২১৫, ৬১০৬ = ০২ জন।
এ গ্রেডে: ৬১৩৮, ৬০৮৬, ৬০৯৮, ৬০৮১, ৬১২৮ = ০৫ জন।
সাধারণ গ্রেডে: ৬০০৯, ৬১৯১, ৬১২৫, ৬২১৪, ৬২২৮, ৬০৩০, ৬১৮১, ৬১৩৮, ৬২২২, ৬০৮৯, ৬২২৭, ৬১৪২, ৬০৮৫, ৬১২৬, ৬১৯০, ৬১০২, ৬০৯৬, ৬০২৬, ৬১৬৬, ৬০৮৩, ৬১৪৯, ৬১৮৫, ৬১৬৩, ৬১৩৯, ৬০৬৩, ৬১০০, ৬০৭৯ = ২৭ জন।
সপ্তম শ্রেণি:
গোল্ডেন এ প্লাস: নাই।
এ প্লাস গ্রেডে: নাই।
এ গ্রেডে: ৭১১০, ৭০৩২, ৭০৩৬, ৭০৫০, ৭০৩৩, ৭২১০ = ০৬ জন।
সাধারণ গ্রেডে: ৭০০২, ৭০০১, ৭০৮৯, ৭০৯৩, ৭০৭২, ৭১৮৮, ৭১০৯, ৭০৭০, ৭১৯৮, ৭০৩১, ৭০৬৯, ৭০৩৫, ৭১৭৮, ৭০৮৮, ৭২০৪, ৭১০২, ৭০২৬, ৭১৯৭, ৭১৯৬, ৭১৯৯, ৭১৯১, ৭০২৩, ৭০০৫, ৭১২৭, ৭০৯১, ৭২০৩, ৭০৭১, ৭১০৪ = ২৮ জন।
সর্বমোট বৃত্তি প্রাপ্ত শিক্ষার্থী: ২৬০ জন।
 বিশেষভাবে উল্লেখ্য যে, ২ নভেম্বর বৃত্তি পরীক্ষা সকাল ১০ টায় শুরু হয়ে দুপুর ১২ টায় শেষ হয়। এবারের পরীক্ষায় চকরিয়া উপজেলার পাশাপাশি পেকুয়া ও লামা উপজেলার বিভিন্ন বিদ্যালয়ের ১৪৮৫ জন শিক্ষার্থী অংশ গ্রহণ করে। দ্বিতীয়বারের মতো অনুষ্ঠিত চকোরী মেধা অন্বেষণ বৃত্তি পরীক্ষার কেন্দ্র ছিল চকরিয়া আবাসিক মহিলা বিশ্ববিদ্যালয় কলেজ ও চকরিয়া কোরক বিদ্যাপীঠ।
পরীক্ষার প্রধান উপদেষ্টা অধ্যাপক পদ্মলোচন বড়ুয়া বলেন- আমরা স্বচ্ছ ও সুন্দরভাবে পরীক্ষা সফলভাবে শেষ করেছি এবং নিরপেক্ষভাবে খাতা মূল্যায়নের পাশাপাশি আমরা ফলাফল ঘোষণা করেছি। তিনি বলেন বিগত পরীক্ষার তুলনায় এবারে শিক্ষার্থীদের অংশগ্রহণ চোখে পড়ার মতো।
পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক অধ্যাপক জুবাইদুল হক বলেন- আমরা নিরপেক্ষভাবে পরীক্ষা নিয়েছি এবং নিরপেক্ষভাবে ফলাফল প্রকাশ করা হয়েছে। তিনি বলেন- এবারে চকরিয়া, পেকুয়া ও লামা উপজেলার বিভিন্ন বিদ্যালয় থেকে সর্বমোট ১৪৮৫ জন শিক্ষার্থী বৃত্তি পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করে, তনমধ্যে ২৬০ শিক্ষার্থী বিভিন্ন গ্রেডে বৃত্তি লাভ করেছে।
কেন্দ্র সচিব এস এম এরফানুল হক বলেন- শিক্ষার্থীদের সুবিধার জন্য আমরা সংক্ষিপ্ত আকারে প্রশ্ন তৈরি করেছি এবং যথাসময়ে ফলাফল ঘোষণা করেছি। তিনি বলেন- পরীক্ষার খাতা মূল্যায়ণে শতভাগ স্বচ্ছতা দেখানো হয়েছে।
  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •