মুহাম্মদ গিয়াস উদ্দিন, কুতুবদিয়া থেকে:

কক্সবাজারের কুতুবদিয়া উপজেলার দরবার রোড সড়কের বেহাল দশা। সারা বিশ্বে পরিচিত অলিকুল সম্রাট হযরত শাহ আব্দুল মালেক মুহিউদ্দিন আজমী (রহ) এর নামে দরবার রোডটি দরবার ঘাট থেকে চৌমুহনী বাজার পর্যন্ত ছোট-বড় ঝূকিঁপূর্ণ হাজারো গর্ত এবং চৌমুহনী থেকে দরবার রাস্তার মাথা পর্যন্ত সড়কের মাটি সরে গিয়ে উভয় সাইটের অধিকাংশ কার্পেটিং ভেঙ্গে যাচ্ছে।

সরেজমিনে গিয়ে দেখা গেছে, পুরো সড়কের মধ্যে ২-৩ কিলোমিটারজুড়ে সড়কের বেহাল দশা বিরাজ করছে। সড়কের কার্পেটিং উঠে গিয়ে সড়কটির অধিকাংশ জায়গায় সৃষ্টি হয়েছে হাজারো ছোট-বড় ঝূকিঁপূর্ণ গর্ত। সড়কটি যেন মরন ফাঁদে পরিনত হয়েছে। অনেক জায়গায় রাস্তাটি দিয়ে চলাচল একেবারে অনুপযোগি হয়ে পড়েছে। রাস্তায় চলতে গিয়ে হরহামেশা দুর্ঘটনার স্বীকারও হচ্ছেন অনেকে।

সারাদেশ থেকে অলিকুল সম্রাট হযরত শাহ আব্দুল মালেক মুহিউদ্দিন আজমী (রহ) এর কুতুব শরীফ দরবারে মাজার জেয়ারতের উদ্যেশে আসা বিভিন্ন হাজার-হাজার ভক্তগণকেও ঝূকিঁপূর্ণ সড়কদিয়ে অতিকষ্টে যাতায়ত করতে হচ্ছে। তাদের মধ্যে অনেকই বৃষ্টিতে ভিজা কাঁদা মাটিতে অতি কষ্টের মাঝে পায়ে হেটে যাওয়ার দৃশ্য সরজমিনে চোখে পড়ছে। সড়কের দু’পাশ ও মাঝে-মধ্যে ভেঙ্গে বড় বড় গর্ত সৃষ্টি হওয়ায় যান চলাচলে মারাত্মক ব্যাঘাত সৃষ্টি হচ্ছে।

“দরবার রোড” সড়কটি লেমশীখালী, দক্ষিণ ধূরং, উত্তর ধূরং ইউনিয়ন সহ পাশের এলাকার জন্য অতিপ্রয়োজনীয় গুরুত্বপূর্ণ সড়ক। স্কুল-কলেজগামী ছাত্র-ছাত্রীর, ধূরং বাজার ও চৌমুহনী বাজারসহ বিভিন্ন ব্যবসা-বানিজ্যেও ক্ষেত্রে এ সড়ক গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে। দরবার রোডটিতে চলতে গিয়ে পথচারিদের যেমন সময়ের অপচয় হচ্ছে ঠিক তেমনি রয়েছে জীবনের ঝুঁকি।

এলাকাবাসী ও দরবার ভক্তগণ যাতায়তের অতি গুরুত্বপূর্ণ দরবার রোড সড়কটি মেরামতের জন্য সরকারের সংশ্লিষ্ট কর্তৃপরে জরুরী দৃষ্টি ও হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন।

কুতুব শরীফ দরবার পরিচালক শাহজাদা শেখ ফরিদ জানান, দরবার সড়কটি কুতুবদিয়া উত্তর জোনের মানুষের জন্য খুবই দরকরী। সড়কটিতে ছোট-বড় অনেক গর্ত হওয়ায় ঝুঁকি নিয়ে লোকজন ও যানবাহন চলাচল করছে। কুতুব শরীফ দরবারে জেয়ারত করতে আসা বাহিরের মেহমানদেরও চরম অসুবিধায় পড়তে হচ্ছে। সড়কটি দ্রুত সংস্কার প্রয়োজন। সরকার কর্তৃপক্ষের নিকট সড়কটি সংস্কারের দাবি জানাচ্ছি।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •