cbn  

আবদুল আলিম নোবেল:

কক্সবাজার বিমান বন্দর সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের আঙ্গিনায় ময়লা আর্বজনায় যেন ময়লার ভাগাড়ে পরিনতি হয়েছে। এতে প্রতিদিন ওই বিদ্যালয়ের শিক্ষক ও শিক্ষার্থীদের পড়তে হচ্ছে চরম বেকায়দা। ময়লা আর্বজনার দূর্গন্ধে নানা ধরণের রোগ ব্যায়ধি ছড়িয়ে পড়তে পারে এমন আশংকাও করছেন সচেতন এলাকাবাসী। এই বিদ্যালয় অতীতে একাধিক প্রধান শিক্ষক চলে গেলেও কোন দিন পরিষ্কার হয়নি এই আর্বজনার স্তুপ। ২ নভেম্বর সরজমিনে গেয়ে দেখা যায়, বিদ্যালয়ের বন্ধের দিনে সদ্য যোগদান করা প্রধান শিক্ষিকা শাহনাজ ইয়াসমীন নিজ উদ্যোগে ময়লা সরাতে দেখা গেছে।

দীর্ঘদিনের ময়লা আর্বজনা সরাতে বেশ কয়েকজন শ্রমিকও কাজ করছে। শ্রমিক মনির আহাম্মদ জানান নতুন যোগদান করা মেডাম এই ময়লা আর্বজনা সরিয়ে নিতে আমাদেরকে নিয়ে এসেছে, আসলে এটি খুব ভাল কাজ করছেন মেডাম। ১৯৬৫সালে স্থাপিত হওয়া এই বিদ্যালয়টিতে এই শহরের প্রাণ কেন্দ্রে হলেও নানা কারণে বেকায়দায় রয়েছে। বর্তমানে ৫০৩ জন শিক্ষার্থী পড়াশুনা করছে এখানে।

প্রধান শিক্ষিকা শাহনাজ ইয়াসমীন জানান, তিনি গত মাসের ১৫ তারিখ এই বিদ্যালয়ে যোগদান করেছেন, তিনি এই বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের ভাল মানের পড়ালেখাসহ নানাভাবে দক্ষ করে তুলতে একনিষ্ট দায়িত্বপালন করবেন। একই সাথে অভিভাবক ও বিদ্যালয় পরিচালনা কমিটির একান্ত সহযোগিতা কামনা করেন তিনি। শাহনাজ ইয়াসমীন গত বছর জেলা পর্যায়ে শ্রেষ্ঠ শিক্ষিকা নির্বচিত হয়েছিলেন।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •