নঈম আল ইস্পাহান
পৃথিবীতে বিভিন্ন ধরণের ভাঙ্গন আছে।যেমন ধরেন নদী ভাঙ্গন,বাঁধ ভাঙ্গন,বন্ধুত্বের ভাঙ্গন।ঠিক তেমনি আরেকটা ভাঙ্গনের নাম হলো,প্রেমভাঙ্গন।আমার বন্ধু আদিবের প্রেমিকা রাফা ফোন করে বলল,তার সাথে রাগ করে তিনদিন ধরে আদিব যোগাযোগ করছেনা।কোনভাবেই সে আদিবের রাগ ভাঙাতে পারছেনা।এখন যা করার আমাকেই করতে হবে।আমিও প্রমিস করলাম,আদিবের রাগ ভাঙাবোই।
সময় করে আদিবকে ফোন দিলাম।বুঝিয়ে বললাম,এত রাগ অভিমান ভালো না।ছেলেদের সবসময় কম্প্রোমাইজ করতে হয়।বেচারি খুব কষ্টে আছে।ওর সাথে তাড়াতাড়ি যোগাযোগ কর।একটু বানিয়ে বললাম,সে হাউমাউ করে কান্না করছে।তুই আজকেই কল না দিলে দশটা গ্যাসট্রিকের ঔষুধ খেয়ে সুইসাইড করবে।একটু একটু বুঝতে পারলাম,আদিবের রাগ অনেকটা কমতে শুরু করেছে।সে ধীরে ধীরে সময় নিয়ে বলল,সত্যি বলছিস তো?আমি বললাম,বিশটা ডমপিরিডমের কসম!
আদিব কথা দিলো সে সব ব্যস্ততা শেষ করে রাতেই যোগাযোগ করে স্যরি বলবে।
আদিবের সাথে কথা শেষ করেই রাফাকে ফোন দিলাম।রাফা প্রথমবার রিং হওয়ার আগেই কল রিসিব করে বলল ভাইয়া,কি হলো?ওর রাগ ভেঙেছে?আমি চেহারায় মুচকি ও গলায় গ্রীষ্মের তীব্র রোদে ঝলসে যাওয়া অসহায় পথিকের মত বললাম,বোন অনেক চেষ্টা করেছি।সে কিছুতেই আমার কথা শোনছেনা।তোমাকে এখন আর নাকি ভালো লাগেনা।হাজার গুণ সুন্দরীর সাথে সে এখন ডেট করে।সুতরাং তুমি বিরক্ত না করলেই খুশি হবে।
রাফা খুব রেগে গেলো।দাঁত কড়মড় করতে করতে বলল,সে এসব বলেছে।এতবড় সাহস?আমার জন্যও কি কম ছেলে পাগল,আপনিই তো সব জানেন ভাইয়া।আজকেই ওর নাম্বার ব্ল্যাকলিষ্টে দিবো।উত্তরে আমি বললাম,আজকেই দিবে?বাদ দাওনা,কি প্রয়োজন এসবের।
রাফা বলল,এক্ষুনি দিচ্ছি।
রাত দুইটায় গান শোনতে শোনতে ফেসবুকে টাইমলাইনে ঘুরাঘুরি করছিলাম।আদিব কল দিলো।রিসিব করার সাথে সাথে বলল,তোকে বলেছিলাম না ওর আরেকটা এ্যাফেয়ার চলছে।সেই দশটা থেকে কল দিচ্ছি,নাম্বার এখনো বিজি দেখাচ্ছে।এতক্ষণ কেউ ফোনে কথা বলে?নির্ঘাত নতুন কোন ছেলের সাথে চক্কর চলছে।আমি মুচকি হেসে বললাম,হতে পারে।এযুগের মেয়েদের গ্যারান্টি নেই।তুই,আপাতত ঘুমিয়ে যা।দেখি,কি করা যায়।আদিব বলল,যা করবি কর রাফার সাথে আমি আর নেই,আজীবন ব্রেকাপ….
  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •