আন্তর্জাতিক ডেস্ক:
সৌদি আরবের ভিন্ন মতাবলম্বী সাংবাদিক জামাল খাশোগির মরদেহের টুকরো অংশ পাওয়া গেছে বলে দাবি করেছে ব্রিটিশ গণমাধ্যম স্কাই নিউজ। ইস্তাম্বুলে সৌদি কনসাল জেনারেলের বাসভবনের বাগান থেকে খাশোগির লাশের টুকরো অংশ উদ্ধার করা হয়। খবর পার্স ট্যুডে।

স্কাই নিউজের খবরে বলা হয়েছে, হত্যার পর খাশোগির লাশ টুকরো টুকরো টুকরো করা হয়। খাশোগির মুখমণ্ডল বিকৃত করে ফেলা হয়েছে বলেও জানিয়েছে স্কাই নিউজ। তবে স্পষ্ট করে সূত্র উল্লেখ করা হয়নি। এছাড়া কীভাবে খাসোগির দেহাবশেষ উদ্ধার করা হয়েছে সে বিষয়েও বিস্তারিত তথ্য জানানো হয়নি।

সোমবার সৌদি আরব স্বীকার করে নিয়েছে যে, সাংবাদিক জামাল খাশোগিকে হত্যা করা হয়েছিল। দেশটির দাবি, দুর্বৃত্তরা এ হত্যাকাণ্ড ঘটিয়েছে। ফক্স নিউজকে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে সৌদির পররাষ্ট্রমন্ত্রী আদেল আল জুবায়ের জানিয়েছিলেন, এটা ভয়ানক ভুল ছিল। এ ঘটনার সঙ্গে যুবরাজ জড়িত নন বলে দাবি করেন তিনি।

গত ২ অক্টোবর তুরস্কের ইস্তাম্বুল শহরের সৌদি কনস্যুলেট ভবনে ব্যক্তিগত কাগজপত্র আনার প্রয়োজনে ঢোকার পর থেকেই নিখোঁজ ছিলেন সৌদির খ্যাতনামা সাংবাদিক জামাল খাশোগি। শুরু থেকেই তুরস্ক দাবি করছিল, খাশোগিকে কনস্যুলেট ভবনের ভেতর সৌদি ঘাতক টিমের সদস্যরা হত্যা করেছে এবং তার লাশ টুকরো টুকরো করে কোথাও ফেলে দিয়েছে।

গত বছর যুবরাজ মোহাম্মদ বিন সালমান সৌদি আরবের ক্ষমতার কেন্দ্রে আসার পর থেকেই রোষানলে পড়েন ৫৯ বছর বয়সী খাশোগি। তিনি দেশ ছেড়ে স্বেচ্ছা নির্বাসনে যুক্তরাষ্ট্রে চলে যান। মার্কিন সংবাদমাধ্যম ওয়াশিংটন পোস্টে যুবরাজের কর্মকাণ্ডের সমালোচনা করে একের পর এক কলাম লিখেছিলেন খাশোগি। অভিযোগ রয়েছে, যুবরাজের নির্দেশে রাষ্ট্রীয় পৃষ্ঠপোষকতায় এ হত্যাকাণ্ড সংঘটিত হয়েছে।

বিশ্বের বিভিন্ন মহল থেকে মরদেহ হস্তান্তরের দাবি উঠেছে। তার স্বজন ও বন্ধুরা বলছেন, তারা খাশোগির লাশ চান। তাকে দাফন করতে চান।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •