হাবিবুর রহমান সোহেল, নাইক্ষ্যংছড়ি:
রামু উপজেলার গর্জনিয়াতে দেশসেরা দু জন লম্বা ও খাটো মানুষের সন্ধান মিলেছে। বাংলাদেশের সবচেয়ে লম্বা মানুষটি বড়বিল এলাকার মোঃ আমির হামজার ছেলে জিন্নাত আলী (১৯)। বর্তমান তার উচ্চতা, আট ফুটের অধিক বলে দাবী করা হয়েছে। আর দেশের সব চেয়ে খাটো মানুষটিও রামুর গর্জনিয়াতে সে হচ্ছে শাহ মুহাম্মদ পাড়া এলাকার মুহাম্মদ বাচামিয়ার ছেলে মোঃ জাগির হোসেন (৩৫)।
তার উচ্চতার কথা জানিয়ে স্থানীয় জুমছড়ি এলাকার আবুল কাসেম মেম্বার বলেন, জাগির অনুমানিক দু হাত পরিমান লম্বা হবে। তার মানে তিন ফুটেরও কম হবে বলে ধারনা করেন মাষ্টার আমির হোসেন। গর্জনিয়া কচ্ছপিয়া এলাকার সচেতন মহল ওই দু জন অস্বভাবিক মানুষের প্রতি দেশের সকল বৃত্তবানদের সহযোগিতার হাত বাড়িয়ে আহবান জানান। এদিকে দেশসেরা লম্বা মানুষ ওই জিন্নাত  আলী এখন অসুস্থ বলে জানিয়েছেন তার পরিবারের লোকজন। মাথায় টিউমার সহ পায়ে ঘা হয়ে পচন ধরেছে বলে জানান তার মা শাহফুরা বেগম।
তিনি সাংবাদিক পরিচয় পেয়ে প্রতিবেদক কে কান্না জড়িত কন্ঠে জানান, তাদের ছেলের অসুস্থতা নিয়ে চিন্তায় আছেন। সহায় সম্বল বলতে তেমন কিছু নাই। ঢাকা সহ বিভিন্ন হাসপাতালে গিয়ে টাকার অভাবে চিকিৎসা নিতে পারেনি বলে জানান মাহফুরা। গর্জনিয়া ইউপি চেয়ারম্যান সৈয়দ নজরুল ইসলাম বলেন, তিনি এক জন গর্বিত লোক। তার ইউনিয়নে দেশের বিখ্যাত দু জন লম্বা ও খাটো মানুষ। সংশ্লিষ্ট প্রশাসন সহ দেশের সকল জনপ্রতিনিধিদের ওই দুজন মানুষের প্রতি সহযোগিতার হাত বাড়িয়ে দেওয়ার আহবান জানান ওই ইউনিয়নের সফল চেয়ারম্যান।
  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •