cbn  

শাহিদ মোস্তফা শাহিদ, ঈদগাঁওঃ

দুলা ভাইয়ের সাথে শালীর অনৈতিক সম্পর্কের জের ধরে অস্ত্র দিয়ে ফাঁসাতে গিয়ে শালাসহ তিন জনের বিরুদ্ধে অস্ত্র মামলা দায়ের করেছে পুলিশ। দুলা ভাইয়ের বিরুদ্ধে ধর্ষনের মামলা করেছে কালা শাশুড়। পৃথক মামলায় দুইজনকে কারাগারে পাঠানো হয়েছে। সংগঠিত এ ঘটনায় এলাকায় ব্যাপক চাঞ্চল্য সৃষ্টি হয়েছে। পলাতক আসামীদের আটকে অভিযান চালাচ্ছে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী। এ ঘটনাটি ঘটেছে কক্সবাজার সদর উপজেলা ২নং পোকখালী ইউনিয়নের মধ্যম পোকখালী এলাকায়।আটককৃতরা হল চকরিয়া উপজেলার ফাঁসিয়াখালী মুসলিম নগর এলাকার আহমদ হোছনের ছেলে রেজাউল করিম(৩৫) ও মধ্যম পোকখালী এলাকার আবদুল জলিলের ছেলে ইসমাঈল (২২)।
১৯ অক্টোবর রাত আনুমানিক সাড়ে ১০ টার দিকে তাদের আটক করা হয়।পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা যায়,মধ্যম পোকখালী এলাকার আবদুল জলিল আটককৃত রেজাউল করিমের কালা শাশুড় হয়।সে সুবাদে রেজাউল তার বাসায় থেকে বাঁশের ব্যবসা শুরু করে। এরই মধ্যে আবদুল জলিলের এক মেয়ের সাথে (সঙ্গত কারনে নাম গোপন রাখা হল) তার প্রেমের সম্পর্ক গড়ে উঠে। এমন কি শারীরিক সম্পর্ক পর্যন্ত গড়ায়। বেশ কয়েকদিন আগে রেজাউল চলে যায় তার চকরিয়াস্থ বসত বাড়িতে।চলে যাওয়ার পর প্রেম ও ধর্ষনের বিষয়টি পরিবারের সদস্যরা জেনে যায়।তারপর ফন্দি আঁকে রেজাউলকে আটকের।১৯ অক্টোবর রাতে দাওয়াত দিয়ে পোকখালীতে আনে আবদুল জলিলের পরিবার।রাতে খাবার দাওয়া শেষে তাকে বেঁধে রাখে জলিলের ছেলে ইসমাঈল এবং স্থানীয় আনছারুল ও শুয়াইব নামের তিন ব্যক্তি।পরে অস্ত্রসহ এক যুবককে আটক করা হয়েছে মর্মে স্থানীয় পুলিশকে খবর দেয় ইসমাঈল।তাৎক্ষণিক ঈদগাঁও পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রের এসআই শাহাজ উদ্দীন সঙ্গীয় ফোর্স ঘটনাস্থলে গিয়ে বন্দী অবস্থায় রেজাউলকে আটক করে।
এসময় অস্ত্র কোথায় জানতে চাইলে ইসমাঈল তার বাড়ির উঠানের সবজি বাগান থেকে একটি এলজি বের করে দিয়ে বলেন, এই অস্ত্র দিয়ে তাদের বাসায় হামলা করতে এসেছে। বিষয়টি পুলিশের সন্দেহজনক হলে উভয় জনকে আটক করে তদন্ত কেন্দ্রে নিয়ে আসে।রাতে ব্যাপক জিজ্ঞাসাবাদে ইসমাঈল ঘটনার স্বীকারোক্তি দিলে ঘটনার মুল রহস্য বেরিয়ে আসে।পরে তার বিরুদ্ধে পুলিশ বাদী হয়ে অস্ত্র মামলা দায়ের করেন। ইসমাঈলের বাবা আবদুল জলিল তার মেয়েকে ধর্ষনের অভিযোগ এনে রেজাউলের বিরুদ্ধে অপর একটি ধর্ষন মামলা দায়ের করেন।
ঈদগাঁও পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রের ইনচার্জ মোঃ আবুল কায়েস আখন্দ ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, উভয় জনের বিরুদ্ধে থানায় মামলা হয়েছে। তার পরিপ্রেক্ষিতে আদালতে সোপর্দ করা হয়েছে।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •