সোয়েব সাঈদ, রামু:

রামুতে পাহাড় কেটে পাথর উত্তোলন করার অভিযোগে দু’ব্যক্তিকে আটক করে, জরিমানা আদায় করেছে ভ্রাম্যমান আদালত। সোমবার (১৫ অক্টোবর) সকাল ১০টা থেকে দুপুর ২টা পর্যন্ত রামু উপজেলার কাউয়ারখোপ ইউনিয়নের সওদাগর পাড়া এলাকায় উপজেলার সহকারি কমিশনার (ভূমি) ও বিজ্ঞ নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট চাই থোয়াইহ্লা চৌধুরী এ ভ্রাম্যমান আদালত পরিচালনা করেন। অভিযানে পাহাড় কেটে পাথর উত্তোলন করার সময় কাউয়ারখোপ ইউনিয়নেরর গুদাম কাটার এলাকার মোহাম্মদ কাশেমের ছেলে মোহাম্মদ সাইফুল (২৬), একই ইউনিয়নের সওদাগর পাড়া এলাকার আবদুর রহমানের ছেলে সিরাজুল ইসলাম (১৯) নামে দু’জনকে আটক করে ভ্রাম্যমান আদালত। ঘটনাস্থল থেকে সবুজ রঙের একটি ডাম্পার ট্রাক (গাড়ী নং- চট্টমেট্রো-অ/০০১৫), একটি ক্রাশার মেশিন, একশ ঘনফুট ভাঙ্গা পাথর, একটি মোবাইল ফোন ও একটি শার্ট জব্দ করা হয়।

ভ্রাম্যমান আদালতের এ অভিযানে সাথে ছিলেন, পরিবেশ অধিদপ্তর কক্সবাজারের সহকারি পরিচালক সাইফুল আশ্রাব, কক্সবাজার বন বিভাগ (উত্তর) বাকখালী রেঞ্জ অফিসার এ কে আতা এলাহী, কাউয়ারখোপ ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান মোস্তাক আহমদ, ইউপি সদস্য মো. হাবিব উল্লাহ, রামু থানার এস আই মং ছাই সহ পুলিশ ও বন বিভাগের সদস্যরা।

পরিবেশ অধিদপ্তর কক্সবাজারের সহকারি পরিচালক সাইফুল আশ্রাব জানান, পাহাড় কেটে পাথর উত্তোলন করার খবরে রামুর কাউয়ারখোপ ইউনিয়নের সওদাগর পাড়া এলাকায় অভিযান পরিচালনা করে ভ্রাম্যমান আদালত। এসময় বাংলাদেশ পরিবেশ সংরক্ষণ আইন ১৯৯৫ (সংশোধিত-২০১০) এর ৬ (খ), ১৫ (১) ৫ ধারা অনুযায়ী পরিবেশগত ছাড়পত্র ব্যাতিরেকে পাহাড় কেটে পাথর উত্তোলন করার দায়ে, মোহাম্মদ সাইফু ও সিরাজুল ইসলাম নামে আটক দু’ব্যক্তির কাছে থেকে ২৫ হাজার টাকা জরিমানা করে আদায় করা হয়। তিনি আরো জানান, জব্দকৃত মালামাল স্থানীয় আর আই এম ব্রিকস এর ম্যানেজার শাহাব উদ্দিনের জিম্মায় রাখা হয়। ভাঙ্গা পাথর নিলাম করে, নিলামের টাকা সরকারি কোষাগারে জমা করা হয়।

  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •  
  •  
  •