এম.জিয়াবুল হক, চকরিয়া:

আগামী একাদশ নির্বাচন উপলক্ষ্যে এবার আটগাঁট বেঁেধ চকরিয়া-পেকুয়া (কক্সবাজার-১) আসনে নৌকা মার্কার সমর্থনে আনুষ্ঠানিক নির্বাচনী প্রচারণা শুরু করলেন দশম জাতীয় সংসদ নির্বাচনে আওয়ামীলীগের মনোনীত প্রার্থী চকরিয়া উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ও উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি আলহাজ জাফর আলম। তিনি দলের সকলস্তরের নেতাকর্মীদের সঙ্গে নিয়ে মঙ্গলবার পেকুয়া উপজেলার সদর ইউনিয়নের চৌমুহনী স্টেশনে ব্যাপক গনসংযোগ শেষে স্থানীয় ব্যবসায়ী, পেশাজীবি, শ্রমিক জনতাসহ সর্বস্তরের জনগনের মাঝে নৌকা মার্কার ভোট চেয়ে প্রচারপত্র বিলি করেছেন। এরআগে তিনি চকরিয়া উপজেলার চিরিঙ্গা, ঢেমুশিয়া, বদরখালী ও বিএমচর ইউনিয়নে নৌকা প্রতীকের সমর্থনে জনগনের মাঝে প্রচারপত্র বিলি ও গনসংযোগ করেন।

পেকুয়া চৌমুহনী স্টেশনে জনগনের মাঝে নৌকা মার্কার ভোট চেয়ে প্রচারপত্র বিলি ও গনসংযোগকালে চকরিয়া উপজেলা চেয়ারম্যান জাফর আলমের সঙ্গে উপস্থিত ছিলেন জেলা আওয়ামীলীগের সদস্য এসএম গিয়াস উদ্দিন, পেকুয়া উপজেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক আবুল কাসেম, উজানটিয়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান এটিএম শহীদুল ইসলাম, টেইটং ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান ও ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সভাপতি জাহেদুল ইসলাম চৌধুরী, উজানটিয়া ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সভাপতি তোফাজ্জল করিম, সাধারণ সম্পাদক শাহ জামাল, উপজেলা আওয়ামীলীগের সহ-দপ্তর সম্পাদক জাকিরুল ইসলাম, আওয়ামীলীগ নেতা হেলাল উদ্দিন, উপজেলা যুবলীগের সহ-সভাপতি জিয়াবুল হক জিকু, উপজেলা যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক মোহাম্মদ বারেক, উপজেলা তাতীলীগের সভাপতি জায়েদ মোরশেদ, উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি কফিল উদ্দিন বাহাদুর, উপজেলা সৈনিকলীগের সভাপতি সাংবাদিক শহীদুল ইসলাম হিরু, তাতীলীগের সহ-সভাপতি কাইয়ুম রেজা, ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক নাছির উদ্দিন, ছাত্রলীগ নেতা ইয়াছিন, উপজেলা স্বেচ্ছাসেবকলীগের সভাপতি ওসমান গনী, তাতীলীগের সম্পাদক ইসমাইল, উপজেলা যুবলীগের যুগ্ম সম্পাদক সাংবাদিক নাজেম উদ্দিন, সাংবাদিক হাজি জালাল উদ্দিন, আওয়ামীলীগ নেতা মোস্তাক, আবুল খাইর, হাবিব, আবু তৈয়ব, আবুল বশর, আবদুল মালেক, সামসুল আলম, জয়নাল হাজারী, কামাল হোসেন, যুবলীগ নেতা রেজাউল করিম, তারেকুল ইসলাম, আবদুল করিম, হোসেন মুহাম্মদ বাদশা, মহিউদ্দিন, মনছুর আলম, রিদুয়ান, মির্জা বাহাদুর, সৈনিকলীগ নেতা দিদার, হারুন, সেলিম, আবদুল খালেক, হাবিব, ছাত্রলীগ নেতা জকরিয়া, আমিনুর রশিদ, শাহজাহান, মাইন উদ্দিন, ইমরান, সালাহউদ্দিন, শওকত, ইদ্রিছ প্রমুখ।

গনসংযোগ পরবর্তী পথসভায় চকরিয়া উপজেলা চেয়ারম্যান জাফর আলম বলেছেন, এলাকার উন্নয়ন ও জনগনের কল্যানে আমার রাজনীতি। চকরিয়া-পেকুয়া উপজেলার জনগন আমার প্রাণ, আমার শক্তি। তাদের ভালবাসা নিয়েই আমি সামনে এগিয়ে যেতে চাই। কারণ জনগনের কাছে আমি দায়বদ্ধ। তাদের জন্য কাজ করতে পারলে আমি স্বার্থক।

তিনি বলেন, জননেত্রী শেখ হাসিনা দেশের অগ্রউন্নয়ন ও জনগনের কল্যানে কাজ করতে বেশি ভালবাসেন। তাঁরঅনুপ্রেরনায় আমি দশম জাতীয় সংসদ নির্বাচনে চকরিয়া-পেকুয়া আসনে আওয়ামীলীগের দলীয় মনোনয়ন পেয়েছিলাম। আবার নেত্রীর নির্দেশে মনোনয়নপত্র প্রত্যাহার করে নিই। সেই থেকে চকরিয়া-পেকুয়াবাসির মুখে হাসি ফুটানোর জন্য সম্ভবপর উন্নয়নে সব ধরণের কাজ করে যাচ্ছি। আগামীতেও উন্নয়নের চলমান ধারা অব্যাহত রাখতে হবে। সেইজন্য আগামী নির্বাচনে আওয়ামীলীগকে আবারও রাষ্ট্র ক্ষমতায় আনতে হবে।দেশরত্ম শেখ হাসিনাকে পুনরায় দেশের প্রধানমন্ত্রী পদে বসাতে হবে।

উপজেলা চেয়ারম্যান জাফর আলম আরও বলেন, অতীতের যে কোন সময়ের তুলনায় চকরিয়া-পেকুয়া জনপদে আওয়ামীলীগ সাংগঠনিকভাবে এখন অনেক শক্তিশালী ও পরীক্ষিত সংগঠন হিসেবে জনগনের আস্থা অর্জন করেছে। নেতাকর্মীরা এখন দলের জন্য নিবেদিত প্রাণ। আমাদেরকে এই অর্জন ধরে রেখে আগামী নির্বাচনে নৌকার বিজয় নিশ্চিত করতে হবে। আমি চাই চকরিয়া-পেকুয়াবাসির ভালবাসা সাথে নিয়ে বারবার হাতছড়া হওয়া এই আসনটি এবার জননেত্রী শেখ হাসিনাকে উপহার দিতে।

  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •  
  •  
  •