চকরিয়ায় মাকে মারধর করার অভিযোগে পুত্রের বিরুদ্ধে মায়ের মামলা

চকরিয়া প্রতিনিধি:

চকরিয়ায় নিজের মাকে মারধর করে টাকা ছিনিয়ে নেয়ার অভিযোগে ওই ছেলের বিরুদ্ধে চকরিয়া সিনিয়র জুড়িসিয়াল ম্যাজিষ্ট্রেট আদালতে মামলা দায়ের করেছেন তার গর্ভধারিণী মা। আদালত মামলাটি আমলে নিয়ে তদন্তপূর্বক প্রতিবেদন দাখিলের জন্য উপজেলা যুব উন্নয়ন কর্মকর্তাকে নির্দেশ দিয়েছেন।

জানাগেছে, উপজেলা কাকারা ইউনিয়নের পূর্ব কাকারা এলাকার মৃত মো. নুরুল ইসলামের স্ত্রী রোকেয়া বেগম (৬৫) আদালতে দায়ের করা মামলায় দাবী করেন, তার স্বামী মারা যাওয়ার পূর্বে বসতভিটার জায়গাটি তার নামে দান করে যান। তার দুই ছেলের মধ্যে ইসমাইল হোসেন নামের এক ছেলের সাথেই তিনি ওই বসতভিটায় দীর্ঘদিন ধরে বসবাস করে আসছিল। ছেলে ইসমাইলের শশুড়বাড়ি তাদের পার্শ্ববর্তী হওয়ায় ওই শশুড় বাড়ির লোকজনের ইন্দনে ছেলে ইসমাইল হোসেন বিভিন্ন সময় তার স্বামীর দানকৃত জমিটি নিজের নামে লিখে দেয়ার জন্য বিভিন্ন নির্যাতনের মাধ্যমে চাপ সৃষ্টি করে। এতে তিনি রাজি না হওয়ায় তার ছেলে ইসমাইল শাররীক ভাবে বিভিন্ন সময় তাকে মারধর করেন।

সর্বশেষ গত ১৫ সেপ্টম্বর মারধর করে বাড়িতে কোরবানীর গরু বিক্রি বাবত রাখা ৫০ হাজার টাকাও জোর পূর্বক ছিনিয়ে নেয় ইসমাইল। এ ব্যাপারে প্রতিবাদ করলে তাকে বাড়ি থেকে তাড়িয়ে দেয়ারও হুমকি দেয় ছেলে ইসমাইল। বৃদ্ধা রোকেয়া বেগম নিরুপায় হয়ে আদালতের আশ্রয় নেন তার ছেলের বিরুদ্ধে। এদিকে আদালতে দায়ের করা মামলাটি বিজ্ঞ আদালত আমলে নিয়ে তদন্তপূর্বক প্রতিবেদন দাখিলের জন্য উপজেলা যুব উন্নয়ন কর্মকর্তাকে নির্দেশ দেন।

কক্সবাজার নিউজ সিবিএন’এ প্রকাশিত কোনও সংবাদ, কলাম, তথ্য, ছবি, পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার দণ্ডনীয় অপরাধ।

সর্বশেষ সংবাদ

মেয়র নাসিরের পিএস হলেন কক্সবাজারের মুফিদ

দেশব্যাপী সাড়ে চার লাখ অতিদরিদ্র পরিবারকে সহায়তা দেবে ব্র্যাক

মাতারবাড়িতে বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে ২ নলকূপ শ্রমিকের মৃত্যু

২৮ অক্টেবর উদ্বোধন হচ্ছে পার্বত্য চট্টগ্রাম কমপ্লেক্স

থানচিতে ঝিরিতে ভেসে ঢাকার পর্যটক নিখোঁজ

ঈদগাঁওতে মাংস কম দেয়ায় কনে পক্ষের উপর বর পক্ষের হামলা !

সাড়ে ৩ মাসেই ফের বদলী কক্সবাজার সদরের ইউএনও

রোহিঙ্গা ক্যাম্পে গ্যাস সিলিন্ডার বিস্ফোরণে শিশুসহ তিন জন দগ্ধ

পেকুয়ায় কিশোরীকে গণধর্ষণ, আটক-৩

প্রকাশিত সংবাদের প্রতিবাদ

ঈদগাঁওতে ২ বসতঘরে ডাকাতিঃ প্রহারে আহত ২

মালয়েশিয়া বাংলাদেশের উন্নয়ন সহযোগী রাষ্ট্র -চবি উপাচার্য

ব্রীজ থাকলেও নেই সড়ক 

কক্সবাজার থেকে যাওয়া প্লেনের দুই যাত্রীর পেটে মিলল ৭৬ পোটলা ইয়াবা

গ ইউনিটে ফেল, রেকর্ড নম্বর পেয়ে ঘ ইউনিটে প্রথম!

জীবিত অবস্থায়ই টুকরো টুকরো করা হয় খাশোগিকে

বিচারপতি মোজাম্মেল হক আর নেই

রামুতে ১৯ হাজার ইয়াবাসহ পুলিশ কনস্টেবল আটক

বিশ্বের প্রথম বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রতিষ্ঠাতা মুসলিম নারী

হারিয়ে যাচ্ছে চিতিপেট-হুতোম পেঁচা