কক্সবাজার নিউজ :

পরু দুনিয়া জুড়ে যেভাবে হিংসা বিদ্বেষ ছড়িয়ে পড়ছে এটা কোন ভাবেই মানবসভ্যতার জন্য সুখবর নয়। শক্তিধর দেশ চাইছে তার পরমানু বোমা দিয়ে অন্যদেশকে শাষন করা,পূজিবাদীরা চাইছে তার অর্থনৈতিক ক্ষমতা দিয়ে উন্নতশীল দেশগুলোকে শাষন করা। আবার ক্ষমতাশীন দল চাইছে তার রাষ্ট্রযন্ত্রকে ব্যবহার করে বিরুধী দলকে নিয়ন্ত্রন করা ঠিক তেমনি ব্যাক্তি জীবনে প্রতিবেশীর হিংসার আগুনে পুড়ে ক্ষতিগ্রস্থ হচ্ছে প্রতিবেশী মানুষ। এভাবে পুরু ব্যবস্থাপনায় হিংসা বিদ্বেষে ভরে গেছে। এই অবস্থা থেকে আমাদের বেরিয়ে আসতে হবে। হিংসা নয় শান্তির বানী দিয়ে জীবন গড়তে হবে তাইলে জীবনের প্রকৃত শান্তি আসবে। তাই আমাদের প্রত্যেকের ব্যক্তি জীবনে অহিংসনীতি অবলম্বন করে জীবনকে শান্তিময় করে গড়ে তুলতে হবে। সুশাসনের জন্য নাগরিক সুজন কক্সবাজার জেলা কমিটি আয়োজনে আর্ন্তজাতিক অহিংস দিবস পালন উপলক্ষে আয়োজিত আলোচনা সভায় বক্তারা এসব কথা বলেন, ২ অক্টোবর দক্ষিন এশিয়ার অন্যতম শান্তিকামি নেতা ভারতের জাতির পিতা মহাত্মা গান্ধির জন্মদিন উপলক্ষে আর্ন্তজাতিক অহিংস দিবসের কর্মসূচী পালন করে সুজন কক্সবাজার।  বিকাল ৪ টায় কক্সবাজার স্টেডিয়াম হল রুমে অনুষ্টিত সভায় প্রধান অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন কক্সবাজার সরকারি কলেজের অধ্যক্ষ প্রফেসর একেএম ফজলুল করিম চৌধুরী, সুজন জেলা সভাপতি প্রফেসর এম এ বারীর সভাপতিত্বে অনুষ্টিত সভায় আরো বক্তব্য রাখেন উখিয়া ডিগ্রি কলেজের বাংলা বিভাগীয় প্রধান অধ্যাপক অজিত দাশ, কক্সবাজার সরকারি বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মোঃ নাছির উদ্দিন,কক্সবাজার মডেল হাই স্কুলের প্রধান শিক্ষক রমজান আলী, এতে আরো উপস্থিত ছিলেন সুজনের সাংগঠনিক সম্পাদক হোসাইনুল ইসলাম মাতবর,সদস্যএম জাবের,মোঃনাজিম উদ্দিন,প্রবীর কুমার বড়ুয়া,এম জাফর আলম দিদার,মোঃমনুজর আলম,তাসলিমা খানম,রাজিয়া সুলতানা,ইসমত আরা,বুলবুল এ জান্নাত,ডাঃ চন্দন কান্তি দাশ,প্রদীপ চন্দ্র শীল, সাইফুল কবির সাঈকী। অনুষ্টান পরিচালনা করেন সুজন জেলা কমিটির সাধারণ সম্পাদক মাহাবুবুর রহমান।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •