ট্রাস্টি এড. দিপংকর বড়ুয়া পিন্টুর বিবৃতি : মামলা ও অসমাপ্ত কাজ সমাপ্ত করুন

সিবিএন :

২৯ ও ৩০ সেপ্টেম্বর ২০১২ সাল। কক্সবাজার জেলার রামু, উখিয়া, টেকনাফের বৌদ্ধ সম্প্রদায়ের জন্য অত্যন্ত বেদনাময় ও আতংকের দু’টি রাত। প্রথম রাতে রামু’র ১২ টি বৌদ্ধ বিহার ও বৌদ্ধদের ৩০টি বসত বাড়ি, দ্বিতীয় রাতে উখিয়া, টেকনাফের ৭টি বৌদ্ধ বিহার ও বৌদ্ধদের ১১টি বসত বাড়ি নরপিপাষু দূর্বৃত্তরা পুড়িয়ে দিয়েছিল। বৌদ্ধ ধর্মীয় কল্যাণ ট্রাস্টের ট্রাস্টি ও কক্সবাজার জেলা হিন্দু বৌদ্ধ খ্রীষ্টান ঐক্য পরিষদের কার্যকরী সভাপতি এডভোকেট দিপংকর বড়ুয়া পিন্টু সেই বেদনাবিদূর কালো ২টি রাতের স্ম্মরণে এক বিবৃতি প্রদান করেছেন। বিবৃতিতে তিনি বলেন, এই জঘন্য হামলায় নষ্ট হয়ে গিয়েছিল শত বছরের অনেক ঐতিহাসিক ঐতিহ্য ও নিদর্শন। আস্হাহীনতায় পড়েছিল হাজার বছরের লালিত সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি। এই ঘটনায় উদ্বিগ্ন হয়ে পড়ে বিশ্বনেতৃবৃন্দ, সীমাহীন আস্হার সংকটে পড়ে সারাদেশের বৌদ্ধ সম্প্রদায়। এই পৈচাশিক নারকীয় ধ্বংসজঙ্গের পর প্রধানমন্ত্রীর তড়িৎ হস্তক্ষেপ, স্হানীয় প্রশাসন, পুলিশ প্রশাসন, জনপ্রতিনিধি, সেনাবাহিনী, রাজনৈতিক দল, আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়, দেশী বিদেশী এনজিও, সামাজিক ও ধর্মীয় সংগঠন, স্হানীয় জনসাধারণ সহ বিভিন্ন মহলের অভুতপূর্ব সহযোগিতায় পুড়িয়ে দেয়া বৌদ্ধ বিহার গুলো নান্দনিক স্হাপত্য শৈলীতে পূণঃনির্মান ও বসতবাড়ি পুড়িয়ে দেয়া বৌদ্ধ পরিবার গুলোকে পূর্ণবাসন করা হলেও এখনো কিছু কাজ অসমাপ্ত রয়েছে। এ ঘটনায় ৩৭৮ জনকে এজাহারভূক্ত করে দায়েরকৃত ১৯টি মামলার মধ্যে বাদী কর্তৃক ১টি মামলা প্রত্যাহার করা হলেও অবশিষ্ট ১৮ টি মামলায় ৯৯৫ জনকে অভিযুক্ত করে আদালতে চার্জশীট দেয়া হয়। এই ঘৃন্য ও নিন্দনীয় ঘটনার দীর্ঘ ৬ বছর অতিক্রান্ত হলেও সাক্ষীর অভাবে মামলা গুলো এখনো নিষ্পত্তি হয়নি। এখনো শাস্তি পায়নি এ ঘটনার প্রকৃত দোষীরা। মামলাগুলোর অগ্রগতি খুবই হতাশাব্যান্জ্ঞক। বাংলাদেশ বৌদ্ধ ধর্মীয় কল্যাণ ট্রাস্টের ট্রাস্টি এডভোকেট দিপংকর বড়ুয়া পিন্টু তাঁর দেয়া বিবৃতিতে এই ধ্বংসজঙ্গ থেকে তড়িৎ উত্তরনে সহযোগিতা করায় প্রধানমন্ত্রী সহ সংশ্লিষ্ট সকলের প্রতি বৌদ্ধ সম্প্রদায়ের পক্ষে আন্তরিক কৃতজ্ঞতা জানান। তিনি বলেন, সকলের প্রশংসনীয় উদ্যোগে বৌদ্ধ ও অন্যান্য সম্প্রদায়ের মাঝে সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি পূণঃ প্রতিষ্ঠা ও আতংক অনেকটা দূর হয়েছে। তিনি অসমাপ্ত কাজগুলো দ্রুত সমাপ্ত করার অনুরোধ জানান। তাছাড়া এ ঘটনায় দায়েরকৃত মামলা গুলোর সাক্ষীর সাক্ষ্য গ্রহন ও অন্যান্য আইনী প্রক্রিয়া শেষ করে মামলাগুলো চুড়ান্তভাবে নিষ্পত্তি করার জন্য তিনি এই কালো দুটি রাত্রি স্মরণে প্রদত্ত বিবৃতিতে আহবান জানিয়েছেন।

সর্বশেষ সংবাদ

বিনা ভোটে জয়ীরা ইলেকটেড না সিলেকটেড, প্রশ্ন মাহবুবের

সাতকানিয়ায় বাল্যবিয়ে পড়িয়ে জেলে গেল কাজী

চকরিয়া উপজেলা নির্বাচন সুষ্ঠু-নিরপেক্ষ ও প্রভাবমুক্ত করা চ্যালেঞ্জ ছিল : এসপি মাসুদ

নিজের বিজয় জনগণকে উৎসর্গ করলেন অধ্যাপক মোঃ শফিউল্লাহ

জেসমিন হক জেসি মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান নির্বাচিত

কাইয়ুম উদ্দিনের গণসংযোগে স্বতঃস্ফূর্ত সাড়া

এইচ কে আনোয়ার মৃত্যুতে মাহামুদুল হক চৌধুরীর শোক

বাঘাইছড়িতে ব্রাশফায়ারে নিহতের সংখ্যা বেড়ে ৭ , আহত ১৯ (ভিডিও)

হ্নীলা ইউপি চেয়ারম্যান এইচ কে আনোয়ার আর নেই

পিএমখালীতে হামলায় প্রবীণ আ. লীগ নেতা সুলতান মেম্বারসহ আহত ৩

চকরিয়ায় চুট্টু ভাইস-চেয়ারম্যান নির্বাচিত

জুয়েলকে বিজয়ী করতে সব চেয়ারম্যান ও আ.লীগ নেতাসহ তৃণমূলের নেতাকর্মীরা ঐক্যবদ্ধ

২৭ হাজার ৭১৬ ভোটে সাঈদীকে বিজয়ী ঘোষণা

আনারসের ভারে ডুবলো নৌকা

কুতুবদিয়ায় ১৮ দিন ধরে নিখোঁজ বৃদ্ধ

লামায় চেয়ারম্যান মোস্তফা, ভাইস চেয়ারম্যান জাহেদ ও মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান মিল্কি

নাইক্ষ্যংছড়িতে রেকর্ড গড়ে চেয়ারম্যান হলেন শফিউল্লাহ 

৯৮ কেন্দ্রে ২৭ হাজার ৩৪ ভোটে এগিয়ে সাঈদী, এক কেন্দ্র স্থগিত

ইত্তেফাক’র কক্সবাজার প্রতিনিধি হলেন সায়ীদ আলমগীর

সুষ্ঠু নির্বাচনে নিরুত্তাপ ভোট