সংবাদ বিজ্ঞপ্তি:

২৮ সেপ্টেম্বর ছিল রামু-ক্সবাজারের এক সময়ের জনপ্রিয় সংসদ সদস্য ও সাড়াজাগানো পার্লামেন্টারিয়ান মরহুম এড.খালেকুজ্জামানের ১৭ তম ইন্তেকাল বার্ষিকী।

মরহুমের স্মরণে সপ্তাহজুড়ে কর্মসূচী শেষে শুক্রবার বিকেলে মরহুম এড খালেকুজ্জামান স্মরণে রামু রশিদ নগর রত্নগর্ভা রিজিয়া আহমদ মাধ্যমিক বিদ্যালয়ে অনুষ্ঠিত হয় এক আলোচনা সভা ও দোয়া মাহফিল।

এতে প্রধান অথিতি ছিলেন মরহুমের ছোট ভাই রামু-সদরের সাবেক এমপি ইঞ্জিনিয়ার মুহাম্মদ সহিদুজ্জামান।

প্রধান অথিতি বলেন, মরহুম এড খালেকুজ্জামানের ভালবাসার রাজনীতি শেষ হয়ে যায়নি। এই ভালবাসার রাজনীতি যুগয়ুগ ধরে টিকে থাকবে।

তিনি বলেন আমার বাবা মৌলবী ফরিদ আহমদ, বড় ভাই খালেকুজ্জামানসহ আমাদের পরিবার রামু-কক্সবাজারের মানুষের জন্য নিজেদের উজাড় করে দিয়েছি। রামু কক্সবাজারের মানুষও আমাদেরকে ভালোবাসার বন্ধনে আবদ্ধ করে নিয়েছেন। এই বন্ধন যেন ছিড়ে যাবার নয়।

ইঞ্জিনিয়ার সহিদুজ্জামান সপ্তাহজুড়ে খালেকুজ্জামানের স্মরণ অনুষ্ঠানে বিভিন্নভাবে সহযোগিতা ও সলবাদপত্র গুলো তা প্রচার করে সহযোগিতার জন্য কৃতজ্ঞতা ও ধন্যবাদ জানান।

অনুষ্ঠানে বিশেষ আকর্ষণ ছিলেন মরহুম এড খালেকুজ্জামানের স্ত্রী মারুফা জামান ও বড় ছেলে তানছীর জামান উৎস।

মরহুমের বড় ছেলে তানছীর জামান উৎস আবেগ আপ্লোত হয়ে বলেন, আমি আপনাদের মাঝে আমরা বাবাকে খু্জেঁ পেয়েছি। আমি আজ ধন্য। আপনারা আমার জন্য দোয়া করবেন।

মরহুমের স্ত্রী মারুফা জামান বলেন, আপনারা আমার স্বামী এড খালেকুজ্জামানকে যেভাবে ভালবাসেন এজন্য আমরা আপনাদের নিকট কৃতজ্ঞ।

লিয়াকত নুর চৌধুরীর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত আলোচনা সভাও দোয়া মাহফিলে বক্তব্য রাখেন, সাবেক চেয়ারম্যান আমিনুল হক, সাবেক চেয়ারম্যান জাফর আলম, প্রফেসর নাছির উদ্দীন, মুছলেহ উদ্দীন চৌধুরী, দিদারুল আলম, কবি মুরশেদ ও কবি ওমর শওকত।

২০০১ সালের ১লা অক্টোবরের জাতীয় সংসদ নির্বাচনের মাত্র তিনদিন আগে ২৮ সেপ্টেম্বর’ কক্সবাজার-রামু আসনের  তৎকালীন ৪ দলীয় জোটেরসংসদ সদস্য পদপ্রার্থী ও কক্সবাজার-রামুবাসীর প্রিয়মূখ এড. খালেকুজ্জামান ইন্তেকাল করেছিলেন।

তাঁর সেই মহাপ্রয়ানের ১৭ তম বার্ষিকীতে রামু-কক্সবাজারবাসী তাঁকে আজো স্মরণ করছে নানা আয়োজনে।

তাঁর স্মরণে শুরু হওয়া সপ্তাহজুড়ে কর্সূচী কাল শুক্রবার শেষ হয়েছে।

কাল ২৮ সেপ্টেম্বরও মরিচ্যা বাজার মসজিদ থেকে শুরু করে রামু-কক্সবাজাবের বিভিন্ন সজিদে মসজিদে একযোগেদোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়েছে।

দোয়া মাহফিল গুলোতে মরহুমের মাগফিরাত কামনার পাশাপাশি তাঁর পরিবারের শান্তি সমৃদ্ধি ও কল্যাণের জন্যও দোয়া করা হয়।

সপ্তম ও অষ্টম জাতীয় সংসদে কক্সবাজার-রামু আসন থেকে দুই দুইবার সংসদ সদস্য নির্বাচিত হয়ে তিনি সাড়া জাগিয়েছিলেন পার্লামেন্টে।

প্রচার বিমুখ কম্পিউটার বিজ্ঞানী এড খালেকুজ্জামান ছিলেন সদালাপী, নিরহংকার, সহজ সরল এক দুর্লভ ব্যক্তিত্ব।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •