সেলিম উদ্দীন, ঈদগাঁও:

চকরিয়া উপজেলার খুটাখালীতে নারী-পুরুষ মিলে ১৮ হাজার ৪’শ ১৪ জন নাগরিক জাতীয় পরিচয়পত্র বা স্মার্ট কার্ড (এনআইডি) পাচ্ছেন। ছবিসহ ভোটার তালিকা হালনাগাদ কার্যক্রমে অন্তর্ভূক্ত এসব নাগরিকদের মধ্যে ২৯ সেপ্টেম্বর শনিবার থেকে স্মার্ট কার্ড বিতরণ কার্যক্রম শুরু হচ্ছে। ব্যক্তিগত ২৮টি তথ্য এই কার্ডে অন্তভুক্ত থাকবে এবং সরকারি সবধরণের সেবা পেতে প্রয়োজন হবে এই কার্ডটি।

চকরিয়া নির্বাচন কমিশন অফিস সূত্রে জানা যায়, চকরিয়া উপজেলার ১৮টি ইউনিয়ন ও একটি পৌরসভায় ছবিসহ ভোটার তালিকা হালনাগাদ কার্যক্রমে অন্তর্ভূক্ত ২ লাখ ৭১ হাজার ১’শ ৪৬জন নাগরিক স্মার্ট জাতীয় পরিচয় পত্র (স্মার্টকার্ড) পাবেন। যার মধ্যে চকরিয়া পৌরসভা এবং উপজেলার ১৮ ইউনিয়নের নাগরিককে এই কার্ড দেওয়া হবে। এরপর পর্যায়ক্রমে ভোটার তালিকায় অন্তর্ভূক্ত সকল ভোটারকে এ কার্ড দেওয়া হবে।

উপজেলা নির্বাচন অফিসার মো: সাখাওয়াত হোসেন জানান, সব নাগরিকের হাতে স্মার্টকার্ড তুলে দিতে নির্বাচন কমিশন সবধরণের প্রস্তুুতি সম্পন্ন করেছে। এরই ধারাবাহিকতায় গত ১২ আগস্ট চকরিয়ায় স্মার্ট কার্ড বিতরণ কার্যক্রম আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করা হয়। উদ্বোধনের পর থেকে আগামী ১৯ নভেম্বর পর্যন্ত মাঠ পর্যায়ে বিতরণ করা হবে।

জানা যায়, খুটাখালী ইউনিয়নের নাগরিকদের জন্য শনিবার ২৯ সেপ্টেম্বর থেকে ৩ অক্টোবর সকাল ৮টা হতে বিকেল ৫টা পর্যন্ত খুটাখালী উচ্চ বিদ্যালয়ে বিতরণ করা হবে। নির্বাচন অফিসার মো: সাখাওয়াত হোসেন আরও জানান, কার্ড বিতরণের সময় প্রয়োজনীয় ফিঙ্গারপ্রিন্ট স্ক্যানার দিয়ে কার্ডধারীর দুই হাতের ১০ আগুলের ছাপ নেয়া হবে এবং ইমেজ রিকগনিশন ইন্টেলিজেন্ট সফটওয়্যার (আইরিস) স্ক্যানার দিয়ে চোখের ছাপ নেয়া হবে। এই কার্ডে প্রত্যেক ব্যক্তির ২৮টি তথ্য লিপিবদ্ধ থাকবে। সরকারি সব অনলাইন সুবিধা, ড্রাইভিং লাইসেন্স, পাসপোর্ট, সম্পত্তি কেনাবেচা, টিআইএন প্রাপ্তি, বিয়ে রেজিস্ট্রেশন, ই-পাসপোর্ট, ব্যাংক হিসাব খোলা, ব্যাংক ঋণগ্রহণ, সরকারি ভাতা উত্তোলন, সহায়তা প্রাপ্তি, বিআইএন, শেয়ার-বিও একাউন্ট, ট্রেড লাইসেন্স, যানবাহন রেজিস্ট্রেশন, বীমা স্কিম, ই-গভর্নেন্স, গ্যাস-বিদ্যুৎ সংযোগ, মোবাইল সংযোগ, হেলথ কার্ড, ই-ক্যাশ, ব্যাংক লেনদেন ও শিক্ষার্থীদের ভর্তির কাজ ছাড়াও আরও অনেক গুরুত্বপূর্ণ রাষ্ট্রীয় সেবা নিতে এই কার্ড প্রয়োজন হবে।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •