কুতুবদিয়া  প্রতিনিধি:

কুতুবদিয়ায় পুলিশের পৃথক অভিযানে অস্ত্রসহ ২ জলদস্যু আটক হয়েছে। মঙ্গলবার (২৫ সেপ্টেম্বর) দিবাগত রাতে বিশেষ অভিযান চালিয়ে এ ২ জলদস্যু আটক করা হয়। এ সময় তাদের স্বীকারোক্তি মতে ২ টি দেশীয় তৈরি বন্দুক (এলজি) উদ্ধার করেছে পুলিশ। আটককৃতরা হল- কৈয়ারবিল ইউনিয়নের মৌলভী পাড়া (৫নং ওয়ার্ড) গ্রামের আবদুসালাম প্রকাশ ভেদোর ছেলে জলদস্যু রমিজ এবং লেমশীখালী ইউনিয়নের আনু বাপের পাড়া (৫নং ওয়ার্ড) এলাকার নুর আহম্মদের ছেলে জসিম উদ্দিন প্রকাশ বাইট্টা জসিম।

থানা সূত্রে জানা যায়, মঙ্গলবার (২৫ সেপ্টেম্বর) রাত সাড়ে ১১টার দিকে কৈয়ারবিল ইউনিয়নের মৌলভী পাড়ার সাগর পাড়ে একদল ডাকাত সাগরে ডাকাতির প্রস্তুতি নিচ্ছে এমন সংবাদের ভিত্তিতে এসআই জয়নাল আবেদীনের নেতৃত্বে এএসআই ফখরুল ইসলাম ও বিশেষ আনসার মনিরুজ্জামানসহ পুলিশের একটি দল নিয়ে ঘটনাস্থলে যায়। এসময় পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে পালিয়ে যাওয়ার সময় ওই এলাকার আবদুসালাম প্রকাশ ভেদোর ছেলে জলদস্যু রমিজকে আটক করা হয়। পরে তার স্বীকারোক্তিতে ঘটনাস্থল তল্লাশী করে একটি দেশীয় তৈরি বন্দুক (এলজি) উদ্ধার করা হয়।

আপরদিকে একই রাতে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে দক্ষিণ ধূরুং আলী ফকির ডেইল এলাকায় অভিযান চালিয়ে লেমশীখালী ইউনিয়নের আনু বাপের পাড়া (৫নং ওয়ার্ড) এলাকার নুর আহম্মদের ছেলে জসিম উদ্দিন প্রকাশ বাইট্টা জসিম নামে ৫টি মামলায় পলাতক আরো এক জলদস্যুকে অস্ত্রসহ আটক করেছে পুলিশ।

আটকের বিষয়টি নিশ্চিত করে কুতুবদিয়া থানার এসআই জয়নাল আবেদীন জানান- ‘আটক জলদস্যু রমিজ ও জসিম অস্ত্রধারী সন্ত্রাসী। তারা দীর্ঘদিন ধরে সাগরে এবং উপকূলে সন্ত্রাসী কার্যক্রম চালিয়ে আসছিল। তাদের বিরুদ্ধে কুতুবদিয়া থানায় ডাকাতি, অপহরণ ও অস্ত্র আইনে ৬ টি করে মামলা রয়েছে।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •