সাইফুল ইসলাম বাবুল :

হিংসা একটি মারাত্মক সামাজিক ব্যধি,যার ফল অত্যন্ত বিষময় ও ক্ষতিকর ৷ হিংসা সামাজিক বন্ধন গুলোর ভাঙ্গন সৃষ্টি করে ও মানুষের পারস্পরিক সম্পর্ক ছিন্ন করে তাদের অবজ্ঞা ও পাশ্চাৎপদতার সর্বনিন্ম স্তরে পৌঁছে দেয় ৷ হিংসা মানুষের সহজাত প্রবৃত্তি । অর্থ-সম্পদ ও পদ-মর্যাদার লোভ। এক কথায় দুনিয়ার লোভে মানুষ একে অপরকে হিংসা করে।

সকল ধর্মে সুস্পষ্ট ভাবেই বলা অাছে হিংসুক ব্যক্তি কখনো স্বর্গসুখ ভোগ করিতে পারবেনা৷ হিংসার অপর নাম জ্বলন্ত আগুন যা চোখে দেখা যায় না৷সেই আগুনে হিংসুক নিজেই জ্বলে- পুড়ে মরে ৷ হিংসুক ব্যক্তি অপরের সুখ-শান্তি সইতে পারেনা৷ হিংসুক লোক নিজেকে বীরত্ববোধ মনে করে৷ হিংসুক লোক সবসময় ভাবে আমি’ই সেরা আর সব নগণ্য ৷ হিংসুক ব্যক্তি জীবনে সুখ-শান্তি ভোগ করে যেতে পারেনা৷আর পারবেই বা কি করে,হিংসার আগুনে নিজেই জ্বলতে থাকে সারাজীবন৷

যেহেতু মানুষ চায় বড় হতে, তাই অন্যকে বড় হতে দেখলে অন্তর জ্বলে উঠে। তাকে ভুলুণ্ঠিত করার ফন্দি আটে। ঈর্ষা ও বিদ্বেষের কারণে হিংসা সৃষ্টি হয়ে থাকে। এর থেকে জন্ম নেয় হিংসা। কেননা, বিদ্বেষ মানে যার সঙ্গে বিদ্বেষ আছে, তার দুঃখ-বেদনা দেখে পুলকিত হওয়া এবং তার সুখ ও আনন্দ দেখে মত জ্বলে উঠে। অন্তরে বিদ্বেষ থাকলে হিংসাও অবশ্যই থাকবে। যখন উল্লিখিত দুটি হিংসা জন্ম নেয় মানুষ তখন হিংসুক হয়ে উঠে। শত্রুতা ও ঘৃনা করা। হিংসার শেষ পরিণাম সম্পর্কে অজ্ঞতা । ঈমানের দূর্বলতা । আল্লাহর বিচার ,ক্ষমতা ও হিকমতের ব্যাপারে দৃঢ় বিশ্বাসের অভাব । নেতৃত্ব ও সুখ্যাতি অর্জণ করার লোভ । লক্ষ্য ও উদ্দেশ্য হাতছাড়া হয়ে যাওয়ার ভয় । মানুষের কল্যাণ করার ব্যাপারে কৃপনতা । প্রতিপক্ষ বা সমকক্ষদের কারো যদি ক্ষমতা বেড়ে যায়, তবে তার নিজের ক্ষমতা পতনের ভয়।

পৃথিবীর মানবকুলের সব ধর্মই হিংসাকে পরিহার করার কথা বলা হয়েছে ৷ তারপরেও হিংসাবিহীন মানুষ পাওয়া কঠিন ৷ হিংসায় সরা পৃথিবী গ্রাস করে ফেলেছে, পৃথিবীতে যত খুনখারাপি তা শুধু লোভ আর হিংসার প্রতিফল মাত্র৷ সৃষ্টিকর্তার জমিনে সর্বপ্রথম যে হত্যাকাণ্ডটি ঘটেছিল তার মূলে ছিল হিংসা৷মানব চরিত্রে যেসব খারাপ দিক আছে তার মধ্যে হিংসা বিদ্বেষ মারাত্মক ক্ষতিকারক ৷ হিংসা একপ্রকার মানসিক ব্যধিও বলা চলে, পৃথিবীতে আয়ু বাড়ানোর ঔষধও বর্তমানকালে তৈরি করে ফেলেছে মনে হয় বিজ্ঞানীরা,কিন্তু হিংসা নিরাময়ের ঔষধ কখনো তৈরি করতে পারবেনা মনে হয় বিজ্ঞানীরা৷এই লোভ আর হিংসায় মানুষকে মৃত্যুর মুখেও ঠেলে দেয়,সোনার সংসারও ধ্বংস করে দেয় এই লোভ আর হিংসায় ৷ হিংসুক লোক যেমন পরের প্রশংসায় দিশেহারা হয়ে পরে, তেমনি হিংসুক লোকও পরের কাছে সর্বদা নিন্দনীয় হয়ে থাকে ৷
“হিংসার জ্বলন্ত আগুনে হিংসুক নিজে যেমন জলে পুড়ে শেষ হয়, সেই সাথে আরো দশজনকেও পোড়ায়”।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •