প্রতিবেদক, নাইক্ষ্যংছড়ি:
দৈনিক আমাদের সময় মিডিয়া গ্রুপ ও সিপ্লাস টেলিভিশনের প্রতিনিধি এবং দৈনিক সাগর দেশের সিনিয়র রিপোর্টার আলহাজ্ব হাবিবুর রহমান সোহেলের ফার্মেসী মেসার্স মায়েশ মনি মেডিকেল থেকে একটি মুল্যবান ল্যাপটপ ও একটি সামসং মোবাইল চুরির দায়ে একজন আটক হয়েছে। ২৩ সেপ্টম্বর সকাল ১০ টায় গর্জনিয়া পুলিশ ফাড়িঁর আইসি পরিদর্শক মোঃ আলমগীরের নির্দেশে এএসআই মনজুর ইলাহী সঙ্গীয় ফোর্স অভিযান চালিয়ে রামুর কচ্ছপিয়া ইউনিয়নের ফাক্রির কাটা মুরা পাড়া এলাকার আনোমিয়া মাঝির ছেলে গোলাম মওলা (২০) কে ফাক্রির কাটা থেকে আটক করে।
পুলিশ জানিয়েছেন, সিসিটিভির ফুটেজ দেখে ওই চোরকে সনাক্ত করে, পুলিশ হেফাজতে নিয়ে তাকে জিঙ্গেসাবাদ করা হলে সে চোর গোলাম মওলা ওই চুরির দায় শিকার করে। পরে এলাকার গন্যমান্য ব্যক্তিদের উপস্থিতিতে চোর গোলাম মওলা আবারও ল্যাপ্টপ ও মোবাইল চরির দায় স্বীকার করে। আর চুরি কৃত ল্যাপ্টপ ও মোবাইল ৪ দিনের মধ্যে ফিরিয়ে দিবে বলে ৩শ টাকা দামে স্টাম্পে স্বাক্ষার দিয়ে গন্যমান্যদের জীম্মায় ছাড়া পায়। আগামী ২৭ সেপ্টম্বরে ওই চুরি কৃত মালামাল সহ অপর চোরকে হাজির করা কথা রয়েছে বলে পুলিশ সুত্রে জানা গেছে।
জানা যায়, গত  ২২ সেপ্টম্বর শনিবার দুপুর ১ টায় রামুর গর্জনিয়া বাজার মসজিদ মার্কেটে সাংবাদিক সোহেলের ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে দিন দুপুরে এই চুরি সংঘটিত হয়। তিনি জানান, দুপুর ১টায় জুহুরের নামাজ আদায় করতে সে মসজিদে গেলে, তার অনুপস্থিতি টের পেরে ২ জন চোর পরিকল্পিত ভাবে তার ফার্মেসীতে ঢুকে ভিতরের চেম্বার থেকে একটি ল্যাপটপ (ডেল) আর একটি সামসং মোবাইল সেট নিয়ে ফ্লিম স্টাইলে পালিয়ে যায়। এই ঘটনায় রামু থানার অফিসার ইনচার্জ মনসুর আলমের নির্দেশে গর্জনিয়া পুলিশ ফাড়িঁর এএসআই মনজুর ইলাহীর সঙ্গীয় ফোর্স ঘটনা স্থল পরিদর্শন করেন এবং ওই চুরির ঘটনার সিসিটিভির ভিডিও ফুটেজ সংগ্রহ করেন। এই ঘটনার ১৪ ঘন্টার ব্যবধানে ওই চোরকে আটক করে গর্জনিয়া পুলিশ।
  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •