অনলাইন ডেস্ক : কুয়েতের সুন্দরী উপস্থাপিকা হালিমা বোলান্দের (৩৭) সঙ্গে এবার জড়িয়েছে সৌদি বাদশাহ সালমান বিন আবদুল আজিজের (৮২) নাম। সম্প্রতি সৌদি বাদশাহ সঙ্গে দেখা করতে গেলে তিনি উপহার পান ৮ লাখ ডলার মূল্যের অলংকার। এ উপহারকে ‘রহস্যময়’ বলে গুঞ্জন তুলেছে কুয়েতের সংবাদমাধ্যম। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমও বেশ সরব। খবর আরব নিউজের।

বহুজাতিক মেসেজিং মাধ্যম স্ন্যাপচ্যাট ও যোগাযোগ মাধ্যম ইনস্টাগ্রামের অ্যাকাউন্টে সম্প্রতি একটি ভিডিও পোস্ট করেন হালিমা। সেখানে দাবি করা হয়, রিয়াদের হোটেলে গিয়ে সৌদি বাদশাহর কাছ থেকে ৮ লাখ ডলার মূল্যের উপহার গ্রহণ করেছেন তিনি। ভিডিওতে দেখা গেছে, হোটেলের লবিতে ট্রলিতে করে উপহারের বক্স নিয়ে হাঁটছেন হালিমা। কিছুক্ষণ পর জুয়েলারি, ফুল ও পোশাক ভর্তি একটি বক্স খুলছেন। আরেকটি অলংকৃত বাক্সে ডজন খানেক পারফিউমের বোতল দেখা গেছে।

ওই বক্সের গায়ে লেখা, ‘হালিমা আবদুল জলিল বোলান্দ, বিশ্বের সবচেয়ে সুন্দরী, তোমার পায়ের নিচে লুটাবে পুরো পৃথিবী।’ তবে তিনি কবে এ উপহার গ্রহণ করেছেন বা কেন বাদশাহ তাকে উপহার দিয়েছেন, তা উল্লেখ করেননি হালিমা। এ জন্য গণমাধ্যম একে ‘রহস্যময়’ বলে উল্লেখ করেছে।

একাধারে ফ্যাশন মডেল, টিভি উপস্থাপিকা ও পারস্য উপসাগর কাঁপানো সুন্দরী হালিমা। ২০০৭ সালে কুয়েতের প্রথম নারী হিসেবে আলরাই টিভির উপস্থাপিকা হন। ওই বছরই ‘মিস আরব সাংবাদিক’ পুরস্কার পান তিনি। এরপর থেকেই উপসাগরীয় অঞ্চলে নানা কারণে আলোচনায় এসেছেন। চলতি বছরের মাঝামাঝিতে সৌদি আরবের নারীদের গাড়ি চালানোর অধিকার নিয়ে একটি ভিডিও প্রচার করেন হালিমা। এ অপরাধে তাকে নিষিদ্ধ করে কুয়েতি টিভি।

এবার সৌদি বাদশাহকে নিয়ে আবারও খবরের শিরোনাম হয়েছেন হালিমা। এর আগে যুবরাজ মোহাম্মদ বিন সালমানের (৩৩) সঙ্গে তার ঘণিষ্ঠতার খবর সংবাদ মাধ্যমে এসেছিল। এবার সৌদি বাদশাহর কাছ থেকে উপহার পাওয়ার সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে বিষয়টি নিয়ে শোরগোল তৈরি হয়েছে। অনেকেই টিটকারী দিয়ে বলছেন, বাপ-বেপা দুজনেরই নজর এখন লাস্যময় এ সুন্দরীর দিকে।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •