সংবাদদাতা:
বর্তমান বিশ্বে সবচেয়ে মানবাধিকার বঞ্চিত জাতি রোহিঙ্গা। তাদের স্থান দিয়ে কক্সবাজারবাসী মহানুভবতার পরিচয় দিয়েছে। তবে এখনো মানবাধিকার প্রতিষ্ঠিত হয়নি। যে যার অবস্থান থেকে বঞ্চিত মানুষের পক্ষে কাজ করতে হবে। সবাই আন্তরিক হলে মানবাধিকার প্রতিষ্ঠিত করা সম্ভব হবে।
মানবাধিকার সংরক্ষণে গঠিত সিএসও/এনজিও হিউম্যান রাইটস কোয়ালিশন এর দিনব্যাপী কনসালটেশন ওয়ার্কশপে এসব কথা ওঠে আসে।
বৃহস্পতিবার (১৩ সেপ্টেম্বর) জেলা পরিষদ সম্মেলন কক্ষে সভায় সভাপতিত্ব করেন বেসরকারি সংস্থা পালস্ এর প্রধান নির্বাহী এবং অত্র কোয়ালিশনের আহ্বায়ক আবু মোর্শেদ চৌধুরী।
তিনি কক্সবাজার জেলায় মানবাধিকার পরিস্থিতি পরিবীক্ষণ ও উন্নয়নের জন্য সরকারি, বেসরকারি, বুদ্ধিজীবিসহ সকল শ্রেণীর মানুষদের নিয়ে একত্রে কাজ করার প্রত্যয় ব্যক্ত করেন।
অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য রাখেন বেসরকারি সংস্থা একলাব এর নির্বাহী পরিচালক কোয়ালিশনের যুগ্ম-আহ্বায়ক সৈয়দ তারিকুল ইসলাম। তিনি সিএসও/এনজিও মানবাধিকার কোয়ালিশন গঠনের সংক্ষিপ্ত পটভূমি তুলে ধরেন। কোয়ালিশনের কাজের ক্ষেত্র তুলে ধরে একটি সাম্য ও ন্যায়ভিত্তিক সমাজ গড়ে তোলার জন্য সকলের প্রতি আহ্বান জানান। ওয়ার্কশপে সবাই উন্মুক্ত আলোচনায় অংশগ্রহণ করেন এবং কোয়ালিশনের কার্যক্রমের মানোন্নয়নে তাদের মূল্যবান পরামর্শ প্রদান করেন। মানবাধিকারের ধারণাপত্র পাঠ করেন কোয়ালিশনের যুগ্ম-আহ্বায়ক এস.এম নাজের হোসেন।
কোয়ালিশনের যুগ্ম-আহ্বায়ক ও হেল্প কক্সবাজার এর নির্বাহী পরিচালক আবুল কাসেম বলেন, মানবাধিকার নিয়ে কাজ করার জন্য আমাদের সবাইকে নিজ উদ্যোগে কাজ শুরু করতে হবে। এই কোয়ালিশনের মাধ্যমে কক্সবাজার জেলায় মানবাধিকার লংঘনের বিষয়সমূহ বিভিন্ন পরিসরে তুলে ধরতে হবে।
ইসলামিক ফাউন্ডেশন কক্সবাজার এর সহকারি পরিচালক বলেন, ইসলামে মানবাধিকারের উপর ব্যাপক আলোচনা রয়েছে, ইসলাম মানুষকে অধিকার দিয়েছে, সম্মান দিয়েছে। মদিনা সনদে মানবাধিকার নিয়ে আলোচনা রয়েছে। তিনি সরকারি ও বেসরকারি সংস্থার মেলবন্ধনের মাধ্যমে মানবাধিকার সংরক্ষণে কাজ করার প্রত্যয় ব্যক্ত করেন।
সভায় কোয়ালিশনের ভবিষ্যৎ কর্মপরিকল্পনা, পরিচালনা নীতিমালা, নতুন সদস্য ভর্তি ফরম, লোগো তৈরী, ওয়েবসাইট তৈরী বিষয়ে বিস্তারীত আলোচনা করা হয়। এছাড়া সভায় কোয়ালিশনের পূর্ণাঙ্গ কমিটি গঠনের বিষয়ে আলোচনা করা হয়।
সভায় উপস্থিত সকল সদস্য মানবাধিকার সংরক্ষণে বিশেষ করে নৃ-গোষ্ঠি, দলিত ও আদিবাসী জনগোষ্ঠির অধিকার রক্ষায় কাজ করার প্রত্যয় ব্যক্ত করেন। সিএসও/এনজিও হিউম্যান রাইটস কোয়ালিশন আয়োজিত কনসালটেশন ওয়ার্কশপেসার্বিক সহযোগিতা প্রদান করে জাতিসংঘ উন্নয়ন কর্মসূচী (ইউএনডিপি)। কক্সবাজার জেলায় কর্মরত স্থানীয় ও জাতীয় পর্যায়ের বিভিন্ন উন্নয়ন সংস্থা ওয়ার্কশপে অংশগ্রহণ করেন। সভায় উপস্থিত সকল সদস্যের প্রতিকোয়ালিশনের পক্ষ থেকে ধন্যবাদ জ্ঞাপন করা হয়।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •