শাহেদ মিজান/এম. মনছুর আলম
চকরিয়া উপজেলার হারাবাং ইনাননী হোটেল এলাকায় আরএফএল’র পণ্যবাহী কাভার্ড ভ্যানের ধাক্কায় ইজিবাইকের (টমটম) তিন যাত্রীর প্রাণ হারিয়েছে। বুধবার সকাল সাড়ে ১০টায় এই ঘটনা ঘটে। আহত হয়েছে আরো চারজন।

নিহতরা হলো-হারবাং জমিদার পাড়ার মৃত ছৈয়দ আহমদের পুত্র ও স্থানীয় ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সভাপতি আবু তাহের (৫০), পেকুয়া উপজেলার রাজাখালী দশের ঘোনা এলাকার আবদুল খালেকের পুত্র ইউছুফ মিয়া (৩৭), হারবাং মুসলিম পাড়ার আবদুস সাত্তারের পুত্র তাজ উদ্দীন (২৪), আরো এক মহিলা মত্যৃ হয়েছে। তবে তার পরিচয় পাওয়া যায়নি।

প্রত্যদক্ষদর্শীদের বরাদ দিয়ে হারবাং পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ মিজানুর রহমনা জানান, কক্সবাজারমুখী আরএফএল পণ্যবাহী কাভার্ড ভ্যানটি বিপরীত দিক থেকে আসা টমটমটিকে ধাক্কা দেয় । এতে টমটমটি ধুমড়ে-মুচড়ে গিয়ে ঘটনাস্থলেই দু’যাত্রীর মৃত্যু হয়। পরে হাসাপাতালে আরো দু’জনের মৃত্যু হয়েছে। গুরুতর আহত চারজনকে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেয়া হয়েছে।

তারা হলেন- হারবাং গয়ালমারার দলিলুর রহমানের পুত্র জালাল উদ্দীন (৪৮), বাশখালী প্রেমবাজার এলাকার মোঃ সেলিমের স্ত্রী সেলিনা আকতার ও তার শিশু কন্য তাসফি (৮) এবং হারবাং গয়ালমারার আবুল হোসেনের পুত্র নূরুল হোসেন (৪২)।

চকরিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) বখতিয়ার উদ্দীন চৌধুরী বলেন, নিহতদের লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। আহতদের চিকিৎসার জন্য চট্টগ্রাম মেডিকেলে হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

উল্লেখ, গতকাল মঙ্গলবার হারবাংয়ে সড়ক দুর্ঘটনায় ৭জনের মৃত্যু হয়। আহত হয় আরো ১০ জন।

  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •  
  •  
  •