অতীত একটি আত্মজীবনীমুলক গ্রন্থ 

হালিম মোঃ জয়
অতীত একটা আত্মজীবনী মূলক গ্রন্থ,যা শুধু নিজে পড়া যায়। পড়ে কখনো কাঁদতে হয়, কখনো হাসতে হয়, আবার কখনো বা লজ্জা পেতে হয়। কিছু অতীত-তো এমন আছে,যা কেবল-ই নিজের ভেতর লালান করা হয়। শত চেষ্টা করে -ও অন্য কারো কাছে প্রকাশ করা সম্ভব হয় না। এই চির গোপন অতীতগুলো-ই লালনকর্তাকে কুড়ে কুড়ে খায়,
পথ চলতে সহায়তা করে,আত্মার শক্তিকে আরো সানিত করে, লক্ষ পানে ছুটে চলতে উৎসাহিত করে,স্বার্থপর ও নিষ্ঠুর করে তোলে, সপ্ন দেখতে শেখায়, সবচেয়ে বড় কথা হল অন্য সবার থেকে লালনকারিকে আলাদা করে রাখে। অতীত অবিজ্ঞতাকে সমৃদ্ধ করে,শিক্ষাকে বাস্তবতায় পরিনত করতে বাধ্য করে।
জীবনের কোন একটা সময়ে এসে সবার মনে-ই প্রশ্ন জাগে,আসলে জীবনটা কি? তখন কিন্তু উত্তর একটা-ই, আমার অতীত-ই হল আমার জীবন। যদি-ও অতীত,বর্তমান,ভবিষ্যৎ এই নিয়েই এক একজন মানুষের জীবন।একটু গভীর ভাবে চিন্তা করলে বুঝবেন যে,বর্তমানটা কত ছোট। জীবনের প্রতি মুহূর্ত-ই এক পলকে অতীত হয়ে যাচ্ছে।। সেই সূত্র ধরে বলতে পারি অতীত আপন ক্ষমতা বলে বর্তমান এবং ভবিষ্যতকে প্রতি নিঃশ্বাসের সাথে সাথে গ্রাস করে নিচ্ছে। অতীতের কাছে প্রতিনিয়ত পরাজিত হচ্ছে ভবিষ্যৎ এবং অতিক্ষুদ্র বর্তমান।
অতিতকে ভুলে থাকার প্রচেস্টা অনেকে করে থাকেন। জানি না ভুলতে পারেন কি না। ক্ষণিকের জন্য ভুলে থাকা গেলে-ও মুছে ফেলা সম্ভব না। কোন না কোন ভাবে অতীত সামনে এসে আপনাকে ডাকবে। চোখ বন্ধ করে তাকে একটু ভাবতে বলবে। তার এঁকেবেঁকে ছুটে চলা পথ ধরে আপনাকে ঘুরে আসতে-ই হবে। এভাবে-ই অতীত একদিন হয়ে উঠবে আপন মহিমায় কালের জলন্ত সাক্ষি অথবা ইতিহাসের অংশ। উপমা হয়ে ঘুরেফিরবে মানুষের মুখে মুখে।
ফেলে আসা দিন গুলো যদি কখনো দেখতে ইচ্ছা হয়,তাহলে একমাত্র অতীত-ই সহযগিতার হাত বাড়াতে পারে । ঘুরিয়ে নিয়ে আসতে পারে আদর মাখা শিশুকাল,পরিচিত খেলার মাঠে,শৈশবের দুরন্তপনা,যৌবনের উচ্ছালতা । ইচ্ছা হলে হারিয়ে যাওয়া মানুষগুলোর ছবি দেখা যেতে পারে অতীতের বিশাল এ্যালবামে। এর জন্য আপনাকে এ্যালবামের পাতা উলটানোর কোন ঝামেলা পোহাতে হবে না। বাংলাদেশ ডিজিটাল হয়ার হাজার হাজার বছর আগে অতীত তার সকল সিস্টেমকে ডিজিটাল করে রেখেছে। এই বলে কিন্তু অতীতকে ডিজিটাল এনালগ রাজনীতিতে জড়ানো ঠিক  হবে না।

সর্বশেষ সংবাদ

সমাজসেবায় মাদার তেরেসা স্বর্ণ পদক পেলেন কামরুল হাসান

পরিচালকের যৌনতার অভিযোগে প্রিন্সিপ্যালের পদত্যাগ

ফেঁসে গেলো খরুলিয়ার ভূমিদস্যু শফিক, ১২ জনের বিরুদ্ধে মামলা

বসতভিটা রক্ষার চেষ্টাই কাল হলো তাদের

বর্তমান শাসনামলে খেলাপি ঋণ সবচেয়ে বেশি বেড়েছে: মেনন

সকল মানুষের কাছে চিরকাল স্মরণীয় হয়ে থাকবেন কবি আল মাহমুদ

নুসরাত হত্যাকারিদের দ্রুত শাস্তি দাবী পূজা উদযাপন পরিষদের

খরুলিয়ার জমি সংক্রান্ত বিরোধের ঘটনাস্থল পরিদর্শনে এমপি কমল

চকরিয়ায় সড়ক দুর্ঘটনায় এনজিও কর্মী নিহত

পেকুয়ায় কাছারীমোড়া সাহিত্যকেন্দ্রের উদ্বোধন

বাংলাদেশ সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতির দেশ হিসেবে দৃষ্টান্ত স্থাপন করেছে -ধর্ম প্রতিমন্ত্রী

শৃংখলা মেনে চললে যানজটের ও দুর্ঘটনাও কমে আসবে – ভারপ্রাপ্ত পুলিশ সুপার

শ্রীলঙ্কা হামলায় আইএসের বুনো উল্লাস

শ্রীলঙ্কায় হামলার পেছনে ‘ন্যাশনাল তৌহিদ জামাত’

চট্টগ্রামে আসামি ধরতে গিয়ে গোলাগুলিতে আহত ৬ পুলিশ

মক্কা থেকে হারিয়ে গেল কক্সবাজারের সাদ

আল্লাহর কসম খেয়ে বলছি মাদকের সাথে আমি জড়িত নই- দিদার বলী

জিন তাড়ানোর বাহানায় যৌন সম্পর্ক গড়তো সেই পিয়ার

নুসরাত হত্যাকাণ্ডে অভিযুক্ত রুহুল আমিনের উত্থানের নেপথ্যে

বেনাপোল বন্দরের নির্মান কাজের চুরি যাওয়া রড উদ্ধার