শাহিদ মোস্তফা শাহিদ, ঈদগাঁও

সুপারী পারাকে কেন্দ্র করে এক প্রতিবন্ধী ছোট ভাইকে পিঠিয়ে জখম করার অভিযোগ পাওয়া গেছে চাচাতো ভাইয়ের বিরুদ্ধে। ঘটনাটি ঘটেছে ৮ সেপ্টেম্বর শনিবার সকাল সাড়ে ১০ টার দিকে সদরের পোকখালী ইউনিয়নের দক্ষিণ নাইক্ষ্যংডিয়া এলাকায়। আহত প্রতিবন্ধী একই এলাকার হাজী ছৈয়দ আহমদের পুত্র মোহাম্মদ শাহাজাহান (৩০)। এ ঘটনায় কেউ আটক হয়নি।আহত শাহাজাহানকে উদ্ধার করে হাসপাতালে নিয়ে গেছে স্বজনরা।অভিযোগে জানা যায়,শাহাজাহানের মা-বাবা ঘরে না থাকার সুযোগে তার বাগান থেকে গোপনে কাঁচা সুপারী পারার চেষ্টা করে তার ভাই সেলিম।এতে শাহাজাহান বাধা দিলে ক্ষিপ্ত হয়ে অকাথ্য ভাষায় গালিগালাজ ও চর থাপ্পর মেরে চলে যায়।পরে তার অপর চাচাতো ভাই মৃত মোজাম্মেল হকের ছেলে আবদুল কুদ্দুস ও মৃত ইদ্রিসের ছেলে ফোরকানকে ডেকে এনে প্রতিবন্ধী শাহাজাহানকে ২য় দফায় হামলা করে।এতে বাধা দেওয়ার চেষ্টা করলে তার স্ত্রী কুলছুমা আক্তারকে শ্লানীনতাহানী, মারধর এবং স্বর্নের চেইন, কানের দুল, ঘরে প্রবেশ করে নগদ টাকা ছিনিয়ে পালিয়ে যায়।বর্তমানে আহত শাহাজাহান ঈদগাহ্স্থ একটি বেসরকারি ক্লিনিকে চিকিৎসাধীন রয়েছে।এদিকে অভিযুক্ত আবদুল কুদ্দুস আহত শাহাজাহানকে ক্লিনিকে দেখতে আসলে শাহাজানের ছোট ভাই তাকে হামলা চালায় বলে জানান কুদ্দুস। তিনি জানায় দুইভাইয়ের মারামারি নিবৃত্ত করতে গিয়ে অহেতুক আমার বিরুদ্ধে মিথ্যা অভিযোগ এনে হয়রানি করার চেষ্টা চালাচ্ছে। ঈদগাঁও পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রের ইনচার্জ পুলিশ পরিদর্শক মিনহাজ মাহমুদ ভুঁইয়া বলেন খবর পেয়ে হাসপাতালে এএসআই নিজাম উদ্দীনের নেতৃত্বে পুলিশ ফোর্স পাঠানো হয়েছে।ভিকটিমের পক্ষ থেকে অভিযোগ কিংবা মামলা করলে তদন্তপুর্বক জড়িতদের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •