লামায় পাহাড়ি সন্ত্রাসীদের হামলা, ১৭ দোকানে লুটপাট

মো. নুরুল করিম আরমান, লামা:
বান্দরবানের লামা উপজেলায় ফের সংঘবদ্ধ অস্ত্রধারী পাহাড়ি সন্ত্রাসী গ্রুপ দিন দুপুরে ১৭টি দোকানে লুটপাট চালিয়েছে। মঙ্গলবার সকালে উপজেলার লামা সদর ইউনিয়নের মেরাখোলা বাজার ও ছোটবমু এলাকায় এ হামলার ঘটনা ঘটে। এ সময় সন্ত্রাসীরা নগদসহ প্রায় ৬ লাখ টাকার মালামাল লুট করে এবং মিলন পাল নামের এক ব্যবসায়ীকে পিটিয়ে আহত করে। খবর পেয়ে স্থানীয় সেনাবাহিনী ও পুলিশ সদস্যরা ঘটনাস্থলে যান। ঘটনার পর ইউনিয়নের বৈল্ল্যারচর, মেউলারচর, বরিশাল পাড়া, এম. হোসেন পাড়া, চিউনি পাড়া, লক্ষণ ঝিরি, ঠাকুরঝিরি, বেগুনঝিরি, পাহাড়পাড়া, ছোটবমু, আশ্রয় প্রকল্প, মেরাখোলাসহ পুরো ইউনিয়নের মানুষের মাঝে আতংক বিরাজ করছে। নিরাপত্তার স্বার্থে ওই এলাকায় একটি সেনাবাহিনী ক্যাম্প স্থাপনের দাবী জানান এলাকাবাসী। গত ৮ আগস্ট একই ইউনিয়নের বৈল্লারচর ও ঠাকুরঝিরি এলাকার বেশ কয়েকটি দোকান ও বসতঘরে হামলা ও লুটপাট চালায় ওই সন্ত্রাসীরা।

স্থানীয় সূত্র জানায়, ভারী অস্ত্রে সস্ত্রে সজ্জিত হয়ে ২৫-২৬ জনের একদল পাহাড়ি সন্ত্রাসী মঙ্গলবার সকাল সাড়ে ৮টার দিকে প্রথমে ছোটবমু এলাকায় হামলা চালায়। এ সময় তারা শুক্কুর পাড়া ও পোয়াং পাড়ার খুইল্যামিয়া, রুহুল কাদের, জামাল উদ্দিন, নাছির উদ্দিন, হোসেন আহমদ, জাকের হোসেন, তাহেরা বেগম, বিদর্শন বড়–য়া, কামাল উদ্দিন, মোস্তাক আহমদের দোকানে হানা দিয়ে নগদ প্রায় ৩৫ হাজার নগদ টাকা লুটে নেয়। এরপর মেরাখোলা বাজারের মো. কায়েশের দোকান থেকে নগদ ১৮ হাজার টাকা, নেপাল চন্দ্র সেনের দোকান থেকে নগদ ১ লাখক ৩০ হাজার টাকা, ৬০ হাজার টাকার ঔষধ, অমর বসাকের দোকান থেকে ১ লাখ ৫০ হাজার টাকা, মিলন পালের দোকান থেকে নগদ টাকাসহ প্রায় ১০ হাজার টাকার মারামাল নিয়ে তারা। এ সময় চাঁদার টাকা না দিলে ব্যবসায়ী মিলন পালকে পিটিয়ে আহত করে সন্ত্রাসীরা। সন্ত্রাসীরা যাওয়ার সময় প্রত্যেক বসতঘর থেকে ১ হাজার ও দোকান থেকে ৩ হাজার টাকা করে চাঁদা দাবীর একটি চিঠি দিয়ে যায়। চিঠিতে তিনটি মোবাইল নম্বর উল্লেখ করা হয়। নম্বরগুলো হলো- ০১৮৮৫০৮৭৯৮৩, ০১৮৩৬২০২৮০৪, ০১৮৮৩৫৫৬৪৮৪। আগামী ৭ সেপ্টেম্বর চাঁদার টাকা না দিলে ঘরবাড়ি জ্বালিয়ে দিবে বলেও হুমকি প্রদান করে যায় সন্ত্রাসীরা। যাওয়া পথে সন্ত্রাসীরা নকশা ঝিরি এলাকায় অস্ত্রের মুখে কয়েকজনকে জিম্মি করে আরো ২টি দোকান লুট করে নগদ টাকা ও মালামাল নিয়ে যায় বলে স্থানীয়রা জনিয়েছেন। এরপর স্থানীয় সেনাবাহিনীর সদস্যরা সন্ত্রাসীদের ধাওয়া করে। এক পর্যায়ে নকশা ঝিরি নামক স্থানে সেনাবাহিনীর সাথে সন্ত্রাসীদের গোলাগুলি হয় বলে স্থানীয়রা জানান।

বেশ কয়েকজন ভুক্তভোগী জানান, সেনাবাহিনীর পোশাকের মত ইউনিফর্ম পরিহিত ও অত্যাধুনিক অস্ত্রে সজ্জিত ছিল সন্ত্রাসীরা। তারা মার্মা, ত্রিপুরা ও চাকমা ভাষায় কথা বলে। প্রায় পৌনে এক ঘন্টা তারা মেরাখোলা বাজারে অবস্থান করে লুটপাট ও হামলা চালিয়েছে। পরে সেনাবাহিনী ও পুলিশের অবস্থান টের পেয়ে দ্রুত ঘটনাস্থল ত্যাগ করে সন্ত্রাসীরা।

সন্ত্রাসী হামলার ঘটনায় উদ্বেগ প্রকাশ করে লামা সদর ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান মিন্টু কুমার সেন বলেন, গত ত্রিশ বছরেও এ ধরণের হামলার সাহস পায়নি সন্ত্রাসীরা। মানুষের জান-মালের নিরাপত্তা নেই। একইভাবে আবারো হামলা করতে পারে সন্ত্রাসীরা। তাই নিরাপত্তার স্বার্থে এলাকায় একটি সেনাবাহিনী ক্যাম্প স্থাপনের জোর দাবী জানাচ্ছি।

ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে লামা থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা অপ্পেলা রাজু নাহা বলেন, খবর পেয়ে সঙ্গীয় পুলিশ নিয়ে ঘটনাস্থলে যাই। জনসাধারণের নিরাপত্তা দিক বিবেচনা করে পদক্ষেপ নেয়া হচ্ছে।

এ বিষয়ে আলীকদম সেনাবাহিনীর জোন কমান্ডার লে. কর্ণেল মাহাবুবুর রহমান পিএসসি সাংবাদিকদের বলেন, খবর পেয়ে তিন দিকে থেকে সেনাবাহিনীর ৩টি টিম ঘটনাস্থলের দিকে পাঠানো হয়। এক পর্যায়ে সেনাবাহিনীর একটি টিমের সাথে পাহাড়ি সন্ত্রাসীদের কয়েক রাউন্ড গুলি বিনিময় হয় বলেও জানান তিনি।

কক্সবাজার নিউজ সিবিএন’এ প্রকাশিত কোনও সংবাদ, কলাম, তথ্য, ছবি, পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার দণ্ডনীয় অপরাধ।

সর্বশেষ সংবাদ

২৩ সেপ্টেম্বর কর্ণফুলীতে আসছেন সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের

কচ্ছপিয়াতে আবারও বজ্রপাতে ১ মহিলা আহত

ঈদগাঁওতে চাঁন্দের গাড়ির হেলফার নিহত , চালক গুরুতর আহত

ধর্ষণের শিকার নারীর গর্ভের সন্তানের বিধান কী?

মালয়েশিয়ায় ভেজাল মদ খেয়ে বাংলাদেশিসহ ১৫ জনের মৃত্যু

মধু খেলেই ৭ জটিল সমস্যার সমাধান

মুসলমান মেয়েদের হাত মেলানো উচিত না : পপি

নাইক্ষ্যংছড়িতে সেরা শিক্ষক বুলবুল আক্তার

পেকুয়া সড়ক দুর্ঘটনা : চালকের আসনে ছিল হেলপার , নিহত -১

কেঁওচিয়া ইউনিয়ন ছাত্রদলের ২১ সদস্য বিশিষ্ট কমিটি অনুমোদন

কক্সবাজার জেলা সদর হাসপাতালে সাপে কাটা ৩৬ রোগীর চিকিৎসা

পেকুয়ায় যাত্রীবাহী বাস খাদে, নিহত-১ আহত-২

বৃহত্তর ঐক্যের বড় বাধা বিএনপিতেই!

আল্লাহর বন্ধু হবেন যেভাবে

মিয়ানমারের বিরুদ্ধে আইসিসির তদন্ত শুরু

‘যৌনতায় অপটু’ ট্রাম্প

রোহিঙ্গাদের আশ্রয় দিয়ে হুমকির মুখে কক্সবাজারের জীববৈচিত্র্য

প্রাথমিক শিক্ষা শক্তিশালীকরণ

পেকুয়া বড়ভাইকে কুপিয়ে নগদ টাকা লুটে নিলো ছোটভাই

পেকুয়ায় ইয়াবা সহ যুবক আটক