রাঙামাটি শহরে সাবেক স্বামী ও তার স্বজনদের হামলায় ২ নারী আহত

আলমগীর মানিক,রাঙামাটি :

বিবাহিত স্ত্রীকে ডিভোর্সের পর তার আরো দুই বোনের সাথে অসামাজিক কার্যকলাপের প্রস্তাব দিয়ে রাজি নাহওয়ায় হামলা চালিয়ে দুই নারীকে আহত করার অভিযোগ উঠেছে রাঙামাটি জেলা পরিষদের এক কর্মচারি ইউনুছ ও তার সহযোগিদের বিরুদ্ধে। হামলায় শারীরিকভাবে আহত রেজিয়া ও তার ভাগনি বর্তমানে রাঙামাটি জেনারেল হাসপাতালে চিকিৎসাধীন আছে। ন্যায় বিচারের প্রত্যাশায় আহত রেজিয়া রাঙামাটি কোতয়ালী থানায় লিখিত এজাহার দিয়েছে বলে জানিয়েছেন প্রতিবেদককে। রাঙামাটি কোতয়ালী থানার সেকেন্ড অফিসার এসআই লিমন বোস এজাহার প্রাপ্তির সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, আমরা ঘটনাটি তদন্ত করে সত্যতা পেলে পরবর্তীতে মামলা হিসেবে গ্রহণ করবো। এই লক্ষ্যে আমরা কোতয়ালী থানার এসআই আনোয়ারকে বিষয়টি খতিয়ে দেখার দায়িত্বে দেওয়া হয়েছে।

ঘটনার শিকার রেজিয়া বেগম এজাহারে উল্লেখ করেন, বিগত ৯৬ সালে বিয়ে হওয়ার পর বিভিন্ন সময় আমাকে মাসনিক নির্যাতন করতো আমার স্বামী রাঙামাটি জেলা পরিষদের কর্মচারি মোঃ ইউনুছ। ২০১৮ সালের ৮ই মার্চ নির্যাতনের এক পর্যায়ে তার সাথে আমার ডিভোর্স হয়ে যায়। এরপর ইউনুছ আমার ছোট দুই বোনের সাথে অনৈতিক কাজের প্রস্তাব দেয়। এতে আমার বোনরা রাজি নাহলে আমিসহ আমার বোনদের বিরুদ্ধে নানা ধরনের কুৎসা রটনার পাশাপাশি নানাভাবে হেনস্তা করে। এক পর্যায়ে শুক্রবার সন্ধ্যায় মোঃ ইউনুছ(৪২), (পিতা মোঃ আব্দুল হামিদ) তার সঙ্গী ২। জাহিদুল আলম নাছিম(২৮)পিতা জাকির হোসেন, ৩। রেজিয়া বেগম (৪৫) স্বামী জাকির ড্রাইভার ৪। তানিয়া আক্তার (২৫) পিতা জাকির ড্রাইভার ৫। ফাহিমা হোসাইন তন্নি (১৮) পিতা জাকির ড্রাইভার, ৬। সেনোয়ারা বেগম (৫০) স্বামী অলি আহম্মদ ৭। অলি আহম্মদ (৫৫) পিতা অজ্ঞাত, ৮। পারুল আক্তার (৪৫) পিতা মৃত হানিফ ড্রাইভার ৯। জাকির ড্রাইভার (৫০) পিতা অজ্ঞাত, অজ্ঞাত আরো ৫/৬ জন, সর্ব সাং-আমানতবাগ, কলেজ গেইট, থানা-কোতয়ালী ১০। মোঃ ইউনুছ হাওলাদার (৩০) পিতা আলম হাওলাদার, সাং-বুড়িঘাট, থানা-নানিয়ারচর, জেলা-রাঙামাটি।

আমার বাড়িতে এসে আমাকে ও আমার বোনের মেয়েকে জোরপূর্বক খারাপ কাজ করাবে বলে হুমকি দেয়। এসময় আমাকে বালতি ভর্তি পানিতে জোর করে মাথা চোবাই এবং আমার ছোট বোনের মেয়েকে উক্ত বিবাদীগন মাটিতে ফেলে এলোপাতাড়ি কিল ঘুষি লাথি এবং দেওয়ালের সাথে মাথা বাড়ি দিয়ে মাথায় গুরতর জখম করে। তখন একপর্যায়ে আমার ছোট বোনের মেয়ের চিৎকার শুনে এলাকাবাসী আমার ঘরে আসলে বিবাদীগন ঘরের পিছনের দরজা দিয়ে পালিয়ে যায়।এবং এলাকাবাসি আমাকে এবং আমার ছোট বোনের মেয়েকে রাঙামাটি সদর হাসপাতালে ভর্তি করে। রেজিয়া জানান বর্তমানে ইউনুছ ও তার সঙ্গীরা আমার পরিবারের সকল সদস্যদের প্রান নাশের হুমকি দিচ্ছে।

এদিকে ঘটনা সম্পর্কে জানতে ইউনুছের সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি জানান, এসব আমার বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র। আর আমি ঘটনার সময় ঘটনাস্থলে উপস্থিত ছিলাম। খবর পেয়ে সেখানে গেছি। এরআগে ঘরের ভেতরে কি হয়েছে সেটা আমি জানি না।

এদিকে উপরোক্ত এজাহারে উল্লেখিত পারুল আক্তার ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, পাওনা টাকা চাইতে গিয়ে উভয়পক্ষের মধ্যে সামান্য ধস্তাধস্তির ঘটনা ঘটেছে। সেখানে আমাকেও ডেকে নিয়ে গেছে। কিন্তু আমি উভয়পক্ষকে নিবৃত করার চেষ্ঠা করেছি।

এদিকে রাঙামাটি জেনারেল হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রেজিয়া ও তার ভাগ্নী জানান, তাদের পাশে দাঁড়ানোর মতো কেউ না থাকায় ইউনুছ জেলাপরিষদের ক্ষমতা দেখিয়ে বারংবার তাদের সাথে অমানবিক আচরণ করলেও তারা ন্যায় বিচার পাচ্ছে না। রেজিয়া জানান, আমার ভাগ্নীর অবস্থা ভালো নয়, মারধরের পর তার বুকের ব্যথা বেড়ে গিয়ে মাঝে মাঝে নিঃশ্বাস আটকে যাচ্ছে। বেশ কয়েকবার অক্সিজেন লাগানোও হয়।

কক্সবাজার নিউজ সিবিএন’এ প্রকাশিত কোনও সংবাদ, কলাম, তথ্য, ছবি, পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার দণ্ডনীয় অপরাধ।

সর্বশেষ সংবাদ

এই জনপদটি ইয়াবা নামক বিষ বৃক্ষের আবক্ষে নিম্মজ্জিত : সকলের সহযোগিতা প্রয়োজন

যুগ্মসচিব হলেন কক্সবাজারের সন্তান শফিউল আজিম : অভিনন্দন

ধর্মীয় শিক্ষা মানুষের মাঝে মূলবোধের সৃষ্টি করে-এমপি কমল

কক্সবাজার সদর মডেল থানা পুলিশের অভিযানে ১৪জন আসামী গ্রেফতার

কক্সবাজার জেলা পুলিশকে আইসিআরসির ২৫০ বডি ব্যাগ হস্তান্তর

চকরিয়ায় পল্লীবিদ্যুতের ভুতুড়ে জরিমানা নিয়ে আতঙ্ক!

ঈদগাঁওয়ে পাহাড় কাটার দায়ে এক নারীকে ১ বছর কারাদন্ড

শুধু চালককে অভিযুক্ত করে লাভ নেই আমাদেরও সচেতন হতে হবে-ইলিয়াছ কাঞ্চন

মাওলানা সিরাজুল্লাহর মৃত্যুতে জেলা জামায়াতের শোক

কক্সবাজারের ৩দিন ব্যাপী ‘প্রাথমিক চক্ষু পরিচর্যা’ কর্মশালার উদ্বোধন

‘ঘরের ছেলে’র বিদায়ে ব্যথিত পেকুয়াবাসী

শিল্পী ফাহমিদা গ্রেফতার : জামিনে মুক্ত

‘মাশরুম একটি অসীম সম্ভাবনাময় ফসল’

তথ্য প্রযুক্তি’র সেবা সাধারণের দোরগোড়ায় পৌঁছাতে সরকার বদ্ধ পরিকর : শফিউল আলম

চট্টগ্রামে জলসা মার্কেটের ছাদে ২ কিশোরী ধর্ষণ, গ্রেপ্তার ৬

কোটালীপাড়ায় নিজ জমিতে অবরুদ্ধ ৬১ পরিবার : মই বেয়ে যাদের যাতায়াত

জামায়াত নেতা শামসুল ইসলামকে গ্রেফতারের প্রতিবাদ ও মুক্তি দাবী

দুর্ঘটনারোধে সচেতনতার বিকল্প নেই : ইলিয়াস কাঞ্চন

Google looking to future after 20 years of search

ইবাদত-বন্দেগিতে মানুষ যে ভুল করে