নতুন শ্রম আইন: দাবি মানতে মালিককে বাধ্য করতে পারবে না শ্রমিকরা

সিবিএন ডেস্ক:
বলপ্রয়োগ করে কারখানা মালিককে দাবি মানতে বাধ্য করা যাবে না। যদি শ্রমিকরা এ ধরনের অসদাচরণ করেন তাহলে অনধিক এক বছর কারাদণ্ড এবং ১০ হাজার টাকা জরিমানা অথবা উভয় দণ্ডে দণ্ডিত করা যাবে।
এমন বিধান রেখে বাংলাদেশ শ্রম আইন (সংশোধন) ২০১৮ এর খসড়া অনুমোদন দিয়েছে মন্ত্রিসভা।
আজ সোমবার মন্ত্রিপরিষদের নিয়মিত বৈঠক শেষে সচিবালয়ে সংবাদ সম্মেলনে মন্ত্রিপরিষদ সচিব মো: শফিউল আলম এসব কথা জানান।
তিনি জানান, কোনো শ্রমিক একাধিক ট্রেড ইউনিয়নের সদস্য হলে এক মাসের সাজা প্রদান করা যাবে বলে আইনে বিধান রাখা হয়েছে। প্রসূতি নারী শ্রমিককে ৬ সপ্তাহ ছুটি না দিলে উক্ত কারখানা মালিককে ২৫ হাজার টাকা জরিমানা করা যাবে।
এছাড়াও শ্রমিকদের পক্ষে বেশ কিছু সংশোধনী আনা হয়েছে নতুন আইনে।
মন্ত্রী পরিষদ সচিব বলেন, কর্মক্ষেত্রে আহত হয়ে শ্রমিকের মৃত্যু হলে ক্ষতিপূরণ এক লাখ টাকা থেকে বাড়িয়ে দুই লাখ টাকা করা হয়েছে। পাশাপাশি কর্মক্ষেত্রে স্থায়ীভাবে আহত হলে এক লাখ ২৫ হাজার টাকা থেকে বাড়িয়ে করা হয়েছে আড়াই লাখ টাকা।
তিনি বলেন, শ্রম আইনের বেশকিছু ধারা সংশোধন করা হয়েছে। এ আইনের তিন ধারায় সরকারি চাকুরিজীবিদের মতোই উৎসব ভাতার পদ্ধতি রাখা হয়েছে। আইনের ৪৪ ধারায় বলা হয়েছে, প্রতিবন্ধী ব্যক্তিদের বিপজ্জনক ও ঝুঁকিপূর্ণ কাজে নিয়োগ করা যাবে কিনা, সে সম্পর্কিত বিধান সংযুক্ত করা হয়েছে।
আইনের ৪৭ ধারায় বলা হয়েছে, নারী শ্রমিকরা সন্তান প্রসবের ৮ সপ্তাহ পর্যন্ত কাজে অনুপস্থিত থাকতে পারবেন। ৯৩ ধারায় বলা হয়েছে, সাপ্তাহিক ছুটি যৌথ দরকষাকষির ভিত্তিতে উৎসব ছুটির সাথে যুক্ত করে ভোগ করতে পারবে শ্রমিকরা। সেক্ষেত্রে সাপ্তাহিক ছুটির জন্য কোনো ভাতা পাওয়া যাবে না বরে জানান সচিব।
শিশুদের কোনোভাবেই কাজে নিয়োগ দেয়া যাবে না বলে জানান মন্ত্রী পরিষদ সচিব। যদি কোনো কারখানা মালিক শিশুদের কাজে নিয়োগ দেন সেক্ষেত্রে তাকে পাঁচ হাজার টাকা জরিমানা করা যাবে বলে আইনে উল্লেখ করা হয়েছে।

সর্বশেষ সংবাদ

দুই হাজার শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান পর্যায়ক্রমে এমপিওভুক্ত হচ্ছে

কক্সবাজার সদর থানা পুলিশের অভিযানে গ্রেফতার-১১

খাবার পানির সমস্যায় কুতুবদিয়া দক্ষিণ ধূরুং ইউনিয়ন : প্রশাসনের হস্তক্ষেপ কামনা

আমিরাতে প্রতিরক্ষা প্রদর্শনীর উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে যোগ দিলেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা

ছোট মহেশখালীতে আ. লীগ নেতা জাফর আলমের গনসংযোগ

শেষ ঠিকানায় কবি আল মাহমুদ

সড়কে শৃঙ্খলা ফেরাতে শাজাহান খানের নেতৃত্বে কমিটি

একুশের কবিতা-গান, নগ্ন-পা এবং শহীদ মিনার

পেকুয়ায় ব্রীজে ঝুঁকিপূর্ণ গর্ত

ঘটনা দেখানো হয়েছে টেকনাফ মেরিন ড্রাইভ সড়কে

লামায় ফাঁসিতে ঝুলে বৃদ্ধার মৃত্যু

সংরক্ষিত আসনে ৪৯ নারীকে নির্বাচিত ঘোষণা করল ইসি

ভ্যালেন্টাইনস ডের রাতে পোশাক কর্মীকে ‘দলবেঁধে ধর্ষণ’

ঈদগাঁওতে ওয়ার্ড আ’লীগ সভাপতির মৃত্যু : জানাজা সম্পন্ন

চকরিয়া কোরক বিদ্যাপীঠকে জাতীয়করণের দাবী

১১ সদস্যের বিএসএফ প্রতিনিধি দল এখন বাংলাদেশে

কক্সবাজারে অটোবাইক মালিক চালক ও শ্রমিকদের বিক্ষোভ

আবুধাবি IDEX-2019 এ যোগ দিতে যুদ্ধ জাহাজ ধলেশ্বরী এখন আমিরাতে

আমিরাতে পৌছেছেন প্রধানমন্ত্রী : উৎফুল্ল প্রবাসিরা

ক্ষমা চাইবে না জামায়াত, নতুন উদ্যোগ নিয়ে সংশয়