১,৬৩,৭৫৩ রোগীর বিনামূল্যে সেবা দিয়ে বিদায় রংধনু ফ্রেন্ডশীপ হাসপাতাল

এফ এম সুমন:
১,৬৩,৭৫৩ রোগীর বিনামূল্যে সেবা দিয়ে পেকুয়া কুতুবদিয়ার উপকুল থেকে বিদায় নিল ভাসমান রংধনু ফ্রেন্ডশীপ হাসপাতাল। দীর্ধ পাচঁ টি বছর ধরে বঙ্গোপসাগরের উপকুলের মানুষের দুয়ারে দুয়ারে এসে সেবা দিয়েছিল এই ভাসমান হাসপাতালটি। পাচঁ বছরের এই দীর্ঘ সময়ে তারা নোঙর করেছে কখনো পেকুয়ার উপকুল কখনো বা কুতুবদিয়ার উপকুল।
বিনামূল্যে তাদের সেবা নিয়েছে ১৬৩,৭৫৩ জন রোগী। তার মধ্যে অস্ত্রপ্রচার করেছে সাড়ে পাচঁ হাজারের ও বেশি মানুষের। তার মধ্যে চোখের অপারেশন ছিল অন্যতম।
কুতুবদিয়া বড়ঘোপ এলাকা থেকে চোখের চিকিৎসা নিতে আসা বৃদ্ধ জসিম উদ্দিন বলেন,আমি এসে সত্যি অবাক হয়েছি। ইতিমধ্যেই আমি চিকিৎসা নিয়েছি মনে হচ্ছে সেবার মান অনেক ভালো। কিন্ত বিনে পয়শায় এমন সেবা আর কোথাও নেই বলে তিনি উল্লেখ করেন। তার মতই কথা হচ্ছিল সেবা নিতে আসা মরিয়ম বেগম (৪০) সাথে তিনি বলেন আমার মায়ের চোখের অস্ত্রপ্রচার হয়েছে এখানে আমি এই রকম সেবা কোথাও আর দেখিনি। রংধনু চলে যাবে শুনে তার মুখটি শুকিয়ে আসে।
কুতুবদিয়া উপজেলা চেয়ারম্যান এটিএম নুরুল বশর চৌধুরী বলেন, আমি মনে কষ্ট পেয়েছি রংধনু চলে যাবে শুনে তবে তাদের ধন্যবাদ ও দিতে চাই তারা যে আমার এলাকার গরীব মানুষকে বিনে পয়শায় সেবা দেয়ার জন্য। তবে তারা কথা দিয়েছে কুতুবদিয়ায় স্থলভাগে হাসপাতাল নির্মাণ করবেন। তার পরে ও ভাসমান এইরকম হাসপাতাল গরীব মানুষের খুব বেশি উপকারে আসে তাই এই রকম উদ্যোগ যেন চলমান থাকে।
পেকুয়া উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান শাফায়েত আজিজ রাজু বলেন, এটা সত্যিকার অর্থে গরিবের সেবা। সাধারণ মানুষ এখানে এসে সেবা নেন উপকৃত হন জনপ্রতিনিধি হিসেবে খুবই ভালো লাগে তবে তারা চলে যাচ্ছেন এটা খারাপ লাগছে। আশা করবো সামনে তারা নতুন জাহাজ দিয়ে যেন এ সেবা অব্যাহত রাখেন।
গত ২৭শে আগষ্ট কুতুবদিয়ার উপকুলে জাহাজের হল রুমে এক সমাপনি অনুষ্টানের মাধ্যমে তাদের এই ভাসমান সেবা কার্যক্রম আনুষ্টানিকভাবে শেষ করেন। এসময় রংধনু ফ্রেন্ডশীপের প্রতিষ্টাতা নির্বাহী পরিচালক রুনা খান বলেন, জাহাজের মেয়াদ শেষ হওয়ায় তারা এই ভাসমান সেবা কার্যক্রম বন্ধ করে দিয়েছেন। তবে সামনে কুতুবদিয়ার স্থলভাগে চ্যাটেলাইট হাসপাতালের মাধ্যমে তাদের চিকিৎসা সেবা চলমান থাকবে। সমাপনি অনুষ্টানে পেকুয়া উপজেলা চেয়ারম্যান শাফায়াত আজিজ রাজু, কুতুবদিয়া উপজেলা চেয়ারম্যান এটিএম নুরুল বশর চৌধুরী, পেকুয়া উপজেলা সদর হাসপাতালের আবাসিক মেডিকেল অফিসার ডাক্তার মুজিবুর রহমান, কুতুবদিয়া উপজেলা পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা বিধান কান্তি রুদ্র উপস্থিত ছিলেন।

কক্সবাজার নিউজ সিবিএন’এ প্রকাশিত কোনও সংবাদ, কলাম, তথ্য, ছবি, পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার দণ্ডনীয় অপরাধ।

সর্বশেষ সংবাদ

অনূর্ধ ১৭ ফুটবলে সহোদরের ২ গোলে মহেশখালী চ্যাম্পিয়ন

টাস্কফোর্সের অভিযানঃ ৪৫০০ ইয়াবাসহ ব্যবসায়ী আটক

টেকনাফে ৭৫৫০টি ইয়াবাসহ দুইজন আটক

এলোমেলো রাজনীতির খোলামেলা আলোচনা

কক্সবাজারে হারিয়ে যাওয়া ব্যাগ ফিরে পেলেন পর্যটক

সুষ্ঠু নির্বাচনে জাতীয় ঐক্য

সঠিক কথা বলায় বিচারপতি সিনহাকে দেশত্যাগে বাধ্য করেছে সরকার : সুপ্রিম কোর্ট বার

সিনেমায় নাম লেখালেন কোহলি

যুক্তরাষ্ট্রের কথা শুনছে না মিয়ানমার

তানজানিয়ায় ফেরিডুবিতে নিহতের সংখ্যা শতাধিক

যশোরের বেনাপোল ঘিবা সীমান্তে পিস্তল,গুলি, ম্যাগাজিন ও গাঁজাসহ আটক-১

তরুণদের এগিয়ে নিয়ে যাওয়াটা অনেক বেশি জরুরি- কক্সবাজারে মোস্তফা জব্বার

চলন্ত অটোরিকশায় বিদ্যুতের তার, দগ্ধ হয়ে নিহত ৪

খরুলিয়ায় বখাটেকে পুলিশে দিলো জনতা, রাম দা উদ্ধার

টস হেরে ব্যাটিংয়ে বাংলাদেশ

সতীদাহ প্রথা: উপমহাদেশের ইতিহাসে কলঙ্কজনক অধ্যায়

খুরুশকুলে সন্ত্রাসী হামলায় কলেজ ছাত্র আহত

নুরুল আলম বহদ্দারের কবর জিয়ারত করলেন লুৎফুর রহমান কাজল

জীবনের প্রথম প্রচেষ্টাতে ঈর্ষনীয় সাফল্য মৌসুমীর

এলআইসিটি বেস্ট অ্যাওয়ার্ড পেলো চবি শিক্ষার্থী নিপুন