মহেশখালীতে ছেলের কুরপীর কোপে প্রাণ গেলো পিতার

শাহেদ মিজান, সিবিএন:
মহেশখালী উপজেলার শাপলাপুরে জেমঘাট হিমছড়ি এলাকায় পারিবারিক কলহের জের ধরে পিতাকে কুপিয়ে হত্যা করলো ছেলে। নিহতের নাম কালা মিয়া (৬৫)। তিনি ওই এলাকার মৃত অালী হোসেনের পুত্র। রোববার ভোরে এই খুনের ঘটনা ঘটে। নিহতের লাশ উদ্ধারের জন্য পুলিশ ঘটনাস্থলে যাচ্ছে। ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন মহেশখালী থানার ওসি (তদন্ত) শফিকুল আলম চৌধুরী।

পরিবারের সদস্যদের বরাত দিয়ে ওসি (তদন্ত) শফিকুল আলম চৌধুরী জানান, কিছু দিন আগে কালা মিয়ার স্ত্রী মারা যান। তিনি আবার বিয়ে করেছেন। এই নিয়ে ছেলে নেজাম উদ্দীনের (২৫) সাথে নানা বিষয় নিয়ে তার বিরোধ সৃষ্টি হয়। এই নিয়ে প্রায় সময় তাদের মধ্যে ঝগড়া হয়ে আসছিল। গত ৩১ আগস্ট ছেলের বিরুদ্ধে থানায় অভিযোগ করেছিলেন কালা মিয়া। দু’পক্ষকে ডেকে ওসি প্রদীপ কুমার দাশ তাদের মধ্যে মীমাংস দিয়েছিলেন। কিন্তু তাতেও বিবাদ মিটেনি। এর অংশ হিসেবে রোববার ভোরে ঝগড়ার এক পর্যায়ে পুত্র নেজাম উদ্দীন কুরপি দিয়ে পিতা কালা মিয়াকে মাথায় ও পিটে আঘাত করে। এতে তার মৃত্যু হয়।

লাশ উদ্ধারের জন্য পুলিশ ঘটনাস্থলে যাচ্ছেন বলে জানিয়েছেন ওসি (তদন্ত) শফিকুল আলম চৌধুরী।

কক্সবাজার নিউজ সিবিএন’এ প্রকাশিত কোনও সংবাদ, কলাম, তথ্য, ছবি, পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার দণ্ডনীয় অপরাধ।

সর্বশেষ সংবাদ

জামিন পেলেন শহিদুল আলম

নিজ দেশে ফিরতে রাজি না রোহিঙ্গারা, চলছে বিক্ষোভ

গোপালগঞ্জের কোটালীপাড়ায় মৃত্যু ঝুঁকিতে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স

কক্সবাজার-৩ আসনে আ’লীগের মনোনয়ন প্রত্যাশী নাজনীন সরওয়ার কাবেরী

নয়া পল্টনে বিএনপির নাশকতা জাতির জন্য অশনি সংকেত: মেয়র নাছির

সুষ্ঠু নির্বাচন বনাম অসুস্থ মনোনয়ন!

‘অবৈধ উপায়ে অর্জিত টাকায় ‘আয়কর’ দিয়ে রেহাই মিলবেনা’

অর্ন্তজালের জনপ্রিয়তা এবং নৈতিকতা

‘স্বেচ্ছায়’ ফিরলেই প্রত্যাবাসন: কমিশনার

সেনা মোতায়েন ভোটের দুই থেকে দশদিন আগে: ইসি সচিব

প্রস্তুত প্রত্যাবাসন ঘর, দুপুরে ফিরছে রোহিঙ্গারা

শরিকদের ৬০ আসন ছাড়তে পারে আ.লীগ

বিয়ের আনুষ্ঠানিকতা সারলেন দীপিকা-রণবীর

যেভাবে প্রস্তুতি নিচ্ছে জামায়াতে ইসলামী

নায়ক হয়ে এসে ভিলেন হিসেবে দেশ কাঁপিয়েছিলেন রাজীব

নায়িকাকে জোর করে প্রকাশ্যে চুমু খেলেন অভিনেতা

মনোনয়নে ছোট নেতা, বড় নেতা দেখা হবে না : শেখ হাসিনা

অসুখী হতাশা বাড়াচ্ছে স্মার্টফোন

ফিরতে চান না রোহিঙ্গারা, প্রত্যাবাসনে অনিশ্চয়তা

রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসনে মন্ত্রণালয়ের চূড়ান্ত সম্মতি