‘কক্সবাজারের সাম্প্রতিক সাহিত্যচর্চা আশাব্যঞ্জক নয়’

প্রেস বিজ্ঞপ্তি:

প্রান্তিক জেলা কক্সবাজারের সাহিত্য-সংস্কৃতির একটি নিজস্ব বৈশিষ্ট্য ছিলো, ছিলো পৃথক পরিচিতি। বিশেষ করে স্বাধীন আরাকানের অভিন্ন অংশ হিসেবে কক্সবাজাৃর প্রাচীন জনপদ রামুসহ সন্নিহিত এলাকায় মধ্যযুগ থেকে সাহিত্যচর্চা হয়ে এসেছে। বিশেষ করে আরাকান রাজসভার অমাত্যবর্গের সাহিত্যচর্চা ও সাহিত্যিক মননের কারণেই এখানে সাহিত্যচর্চার ক্রমধারা অব্যাহত ছিলো। যার ধারাবাহিকতা বাংলাদেশের স্বাধীনতার পরবর্তীকালেও গতিশীল ছিলো। দেশের স্বাধীনতার পরবর্তীতে বিশেষ করে বিগত শতকের নব্বই দশক পর্যন্ত কক্সবাজার জেলার সর্বত্র মোটামুটিভাবে সাহিত্যচর্চা হয়ে এসেছে। বিশেষ বিশেষ দিন উপলক্ষে যেমন একুশে ফেব্রুয়ারি, স্বাধীনতা দিবস, বিজয় দিবস, বাংলা নববর্ষ, ঈদসহ জাতীয় দিবসসমূহে লিটল ম্যাগে পুরো জেলা সয়লাব হয়ে যেতো। আর লিটল ম্যাগের সুবাধে অনেকেই লিখে হাত পাকিয়েছেন। কিন্তু সাম্প্রতিক সময়ে জেলার সাহিত্যচর্চায় ভাটা পড়েছে। বর্তমানে কালেভদ্রে প্রকাশ হয় লিটল ম্যাগ। শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের সংখ্যা বৃদ্ধি পেলেও এসব প্রতিষ্ঠান থেকে লিটল ম্যাগ বা প্রতিষ্ঠানের কোনো স্মরণিকা প্রকাশিত হয়। যা বা প্রকাশিত হয় তা হাতে গুনা।

বক্তাগণ বলেন, বর্তমানের তরুন প্রজন্ম সাহিত্য চর্চার প্রতি আগ্রহী নয়। তরুনেরা এখন সাহিত্য চর্চার চেয়ে পাঠ্য বইসহ ফেইসবুক নিয়েই ব্যস্ত। ভবিষ্যত প্রজন্ম শিশুরা সাহিত্য চর্চা কি তাও অনেকেই জানার সুযোগ পাচ্ছে না। শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে শিশুদেরকে পুরস্কার হিসেবে প্রদান করা হয় মেলামাইনের পণ্যসমাগ্রী। ফলে কক্সবাজারের ভবিষ্যৎ সাহিত্যচর্চা অনেকটাই অন্ধকারে। এখান থেকে উত্তরণের একমাত্র উপায় হচ্ছে শিশু ও তরুনদেরকে সাহিত্য চর্চার প্রতি আগ্রহ সৃষ্টি করতে সম্ভব সব কিছু করা। এসব কাজগুলো করতে হবে শিক্ষা প্রতিষ্ঠানসমূহকে। পাশাপাশি সাহিত্য সংগঠনসমূহ এব্যাপারে বিভিন্ন কর্মসূচি নিয়ে তরুন ও শিশুদেরকে সাহিত্যচর্চায় সম্পৃক্ত করতে পারে।

কক্সবাজার সাহিত্য একাডেমীর ৪২৭ তম পাক্ষিক সাহিত্য সভা বক্তাগণ এসব কথা বলেন।

৩১ আগস্ট ২০১৮ শুক্রবার, বিকাল ৪টায় শহরের এন্ডারসন সড়কের একাডেমীর অস্থায়ী কার্যালয়ে অনুষ্ঠিত পাক্ষিক সাহিত্য সভায় সভাপতিত্ব করেন একাডেমীর সভাপতি মুহম্মদ নূরুল ইসলাম। এবারের পাক্ষিকে আলোচনার বিষয় ছিলো ‘কক্সবাজারের সাম্প্রতিক সাহিত্যচর্চা’।

একাডেমীর সাধারণ সম্পাদক কবি রুহুল কাদের বাবুলের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠিত আলোচনায় অংশ গ্রহণ করেন একাডেমীর স্থায়ী পরিষদের চেয়ারম্যান এডভোকেট কবি সুলতান আহমেদ, স্থায়ী পরিষদের সদস্য গবেষক নূরুল আজিজ চৌধুরী, মূল্যায়ন সম্পাদক কবি অমিত চৌধুরী, একাডেমীর সহ-সভাপতি কক্সবাজার সরকারি বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের সহকারী প্রধান শিক্ষক ছড়াকার মো. নাছির উদ্দিন, এডভোকেট নুরুল হক ও একাডেমীর সহকারী স্ধাারণ সম্পাদক কক্সবাজার কেজি এন্ড মডেল হাইস্কুলের সহকারি শিক্ষক ছড়াকার জহির ইসলাম।

৭ সেপ্টেম্বর একাডেমীর ৪২৮তম সাহিত্য সভা

কক্সবাজার সাহিত্য একাডেমীর ৪২৮তম পাক্ষিক সাহিত্য সভা আগামী ৭ সেপ্টেম্বর ২০১৮ শুক্রবার বিকাল ৪টায় একাডেমীর এন্ডারসন রোডস্থ অস্থায়ী কার্যালয়ে অনুষ্ঠিত হবে। উক্ত সাহিত্য সভায় সাহিত্য একাডেমীর প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী উপলক্ষে প্রকাশিত সমুদ্র সংলাপের উপর আলোচনা করা হবে।

অনুষ্ঠানে একাডেমীর সংশ্লিষ্ট সকলসহ জেলার কবি-সাহিত্যিক, সাহিত্যামোদি, সাহিত্যানুরাগী, চিন্তাশীল গবেষক, বুদ্ধিজীবীদেরকে যথাসময়ে উপস্থিত থাকার জন্য একাডেমীর সভাপতি মুহম্মদ নূরুল ইসলাম ও সাধারণ সম্পাদক কবি রুহুল কাদের বাবুল অনুরোধ জানিয়েছেন।

সর্বশেষ সংবাদ

৭০ টাকার ওষুধ ৬০০ টাকায় বিক্রি!

লোহাগাড়ায় বাড়ি ফেরার পথে দেড়মাস ধরে মাদ্রাসা ছাত্র নিখোঁজ

১৬তম শিক্ষক নিবন্ধনে আবেদন করবেন যেভাবে

মাছুয়াখালী বনবিটের নার্সারীর ২৫ হাজার চারা গাছ কেটে দিলো দুর্বৃত্তরা

কক্সবাজারস্থ টেকনাফ ফোরামের ইফতার মাহফিল

অবৈধ দখল তিন দিনের মধ্যে ছেড়ে দিন : মেয়র মুজিব

পিএমখালী-খুরুশকুল সড়কে ১১ কিলোমিটারে ৩৭ গতিরোধক

রাতে অরক্ষিত রোহিঙ্গা ক্যাম্প, নিরাপত্তা নিশ্চিতে ১৬ প্রস্তাবনা

তুমি রবে নীরবে

দুবাই ও উত্তর আমিরাতে কবিতা মঞ্চ গড়ার লক্ষ্যে প্রস্তুতি সভা সম্পন্ন

কক্সবাজার ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটি’র সিএসই ডিপার্টমেন্টের ইফতার মাহফিল

প্রকাশিত সংবাদে যুবলীগ নেতা আবুল মনছুরের প্রতিবাদ

স্থানীয় সরকার সচিব হলেন কক্সবাজারের কৃতি সন্তান হেলাললুদ্দীন আহমেদ

স্কুল ছাত্র আনাস খুনের ঘটনায় ৬ জনের বিরুদ্ধে মামলা, গ্রেফতার ১

কক্সবাজার সরকারি কলেজের ইংরেজি বিভাগের ইফতার মাহফিল সম্পন্ন

বাদশার ভালোবাসায় ঘর ছাড়লো ‘প্রিয়া’, মামলা-হুমকিতে অধরা সুখ

বান্দরবানে আ’লীগ নেতা চথোয়াই মং’র হত্যার প্রতিবাদে অর্ধদিবস হরতাল পালিত

প্রকাশিত সংবাদের প্রতিবাদ

‘সত্য-নিষ্ঠ সংবাদ নিয়ে পাঠকের মন জয় করেছে দৈনিক ইনানী’

সেফহোমে ইয়াবা ডন সাইফুল করিম!