অনলাইন ডেস্ক :

এক সময় স্মার্টফোন ব্যাপারটি বহু মানুষের কাছেই একটা বিস্ময় ছিল৷ আজ হাতে হাতে ঘুরছে৷ না-থাকাটাই বিস্ময়৷ তেমনই ড্রোন সম্পর্কে অনেকের ধারণা থাকলেও, সকলের কাছে নেই৷ ফলে বিস্ময়টা এখনও আছে৷ কারণ, ভারতে ড্রোন কেনার লাইসেন্স সকলকে দেওয়া হয় না৷ ছবি: গুগল এক সময় স্মার্টফোন ব্যাপারটি বহু মানুষের কাছেই একটা বিস্ময় ছিল৷ আজ হাতে হাতে ঘুরছে৷ না-থাকাটাই বিস্ময়৷ তেমনই ড্রোন সম্পর্কে অনেকের ধারণা থাকলেও, সকলের কাছে নেই৷ ফলে বিস্ময়টা এখনও আছে৷ কারণ, ভারতে ড্রোন কেনার লাইসেন্স সকলকে দেওয়া হয় না৷

এ বার ড্রোনও ঘুরবে সকলের হাতে হাতে৷ পয়লা ডিসেম্বর থেকে ভারতে বৈধ হয়ে যাচ্ছে ড্রোন৷ অর্থাত্‍‌ ভারতে স্বচ্ছন্দ্যে ড্রোন ওড়াতে পারবেন আপনিও৷ ড্রোনকে বৈধ ঘোষণা করে দিল বিমান মন্ত্রক৷

মন্ত্রক জানিয়েছে, ৫টি ক্যাটেগরিতে ড্রোনকে ভাগ করা হচ্ছে ভারতে৷ ন্যানো, মাইক্রো, স্মল, মিডিয়াম ও লার্জ৷ নোটিশে বলা হয়েছে, ন্যানো সাইজের ড্রোন (২৫০ গ্রামের কম ওজন ও ১৫ মিটারের বেশি উচ্চতায় উড়ানো যায় না) ছাড়া বাকি সবগুলিই ন্যাশনাল আননেমড ট্র্যাফিক ম্যানেজমেন্ট প্ল্যাটফর্ম (ডিজিটাল স্কাই)-এর মাধ্যমে রেজিস্টার্ড করতে হবে৷ ডিজিটাল স্কাই ছাড়পত্র দিলেই আপনি ড্রোন ওড়াবেন নিশ্চিন্তে৷

কিন্তু অনেক দেশে ড্রোন বৈধ হলেও, ভারতে এত দেরি হল কেন? মন্ত্রকের দাবি, ড্রোন প্রযুক্তি এত দ্রুত পরিবর্তন ও অনেক দেশ ড্রোন রেগুলেশন এখনও তৈরি করছে৷ সব দিক খতিয়ে দেখতে সময় লাগল৷ তবে জিনিস বা খাবার ডেলিভারির জন্য এখনই ড্রোন ব্যবহার করা যাবে না ভারতে৷

কৃষি ক্ষেত্রে ড্রোন ব্যবহার করা গেলেও, কিটনাশক ছড়ানোর জন্য ড্রোনের ব্যবহার নিষিদ্ধ৷ একইসঙ্গে বিস্ফোরক বহন করা যাবে না ড্রোনে৷ খুব শীঘ্রই ড্রোনের নয়া নীতি প্রকাশ করবে ভারত সরকার৷
– নিউজ ১৮

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •