চট্টগ্রাম প্রতিনিধি:

চট্টগ্রাম শহরের সাথে দক্ষিণ জেলার যোগাযোগ সংযোগে নতুন মাত্রা। আর মাত্র ৫ বছর পর স্বপ্ন বাস্তবায়নের দ্বারপ্রান্তে চলে যাবে কর্ণফুলী টানেল। এ যেন নতুন এক অগ্রযাত্রা। নদীর তলদেশে যোগাযোগ মাধ্যম বাংলাদেশে প্রথম। চট্টগ্রামের কর্ণফুলী টানেলের কাজ ২৪ শতাংশ শেষ হয়েছে বলে জানিয়েছেন সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের। শনিবার পতেঙ্গায় টানেলের নির্মাণ কাজ পরিদর্শন শেষে সাংবাদিকদের একথা জানান তিনি।

চীনের সাংহাইয়ের মতো ওয়ান সিটি টু টাউন মডেলে নির্মাণ করা হচ্ছে কর্ণফুলী টানেল। গত বছরের ডিসেম্বর মাস থেকে শুরু হওয়া এ টানেলের সম্ভাব্য নির্মাণ সময় ধরা হয়েছে ৫ বছর।

সেতুমন্ত্রী কাদের বলেন, “প্রকল্পের শুরুতে আমরা অর্থায়ন নিয়ে বারবার হোঁচট খেয়েছিলাম। কিন্তু এখন সমস্যা নেই। টানেল নির্মাণের পথে।”

সাড়ে আট হাজার কোটি টাকার এ প্রকল্পে বাংলাদেশের আড়াই হাজার কোটি টাকা ব্যয় করছে, বাকি অর্থ দিচ্ছে চীন।

মন্ত্রী জানান, টানেলের বোরিং মেশিন চীন থেকে আনা হয়েছে। আগামী অক্টোবরের শেষ সপ্তাহে মেশিনটি কাজ শুরু করবে। চার লেইনের তিন দশমিক চার কিলোমিটার দৈর্ঘ্য এ টানেল হবে দুই টিউব সম্বলিত।

পূর্ব পশ্চিম প্রান্তে হবে পাঁচ দশমিক ৩৫ কিলোমিটার সংযোগ সড়ক। টানেলের মোট ব্যয় ধরা হয়েছে এক হাজার ৫৫ দশমিক ৮৩ মিলিয়ন মার্কিন ডলার।

বাংলাদেশি টাকায় তা আট হাজার ৪৪৬ দশমিক ৬৪ কোটি টাকা। ফলে অচিরেই স্বপ্ন পূরণ হবে চট্টগ্রামের মানুষের।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •