সিবিএন:
বাংলাদেশের শরণার্থী শিবির এবং মিয়ানমারে থেকে যাওয়া রোহিঙ্গা শিশুরা উপযুক্ত শিক্ষা থেকে বঞ্চিত হচ্ছে বলে জানিয়েছে জাতিসংঘের শিশু ফান্ড ‘ইউনিসেফ’। এসব রোহিঙ্গা শিশুরা ‘লস্ট জেনারেশন বা সব হারানো প্রজন্মে’ পরিণত হতে পারে বলে সংস্থাটি সতর্ক করেছে।

ছয় সপ্তাহ কক্সবাজারের শরণার্থী শিবিরে থাকার পর গত বৃহস্পতিবার জেনেভায় এক সংবাদ সম্মেলনে জাতিসংঘ শিশু তহবিলের (ইউনিসেফ) মুখপাত্র সিমোন ইনগ্রাম এ সতর্কবাণী করেন।

সিঙ্গাপুরভিত্তিক সংবাদমাধ্যম চ্যানেল নিউজ এশিয়া এই খবর জানিয়েছে।

সংবাদ সম্মেলনে ইনগ্রাম বলেন, ‘আমরা রোহিঙ্গাদের নতুন প্রজন্মের চলমান ক্ষতি ও ভবিষ্যৎ ক্ষতির ঝুঁকির কথা বলছি। আমরা শুধু বাংলাদেশে বসবাসকারী পাঁচ লাখ শিশুর কথা বলছি না। আমরা তাদের কথাও বলছি যারা মিয়ানমারের রাখাইন রাজ্যে রয়ে গেছে। তাদের শিক্ষার সুযোগ একেবারেই সীমিত।’

বাংলাদেশে আশ্রয় নেওয়া রোহিঙ্গা শিশুদের ভবিষ্যৎ সম্পর্কে মন্তব্য করতে গিয়ে ইউনিসেফের মুখপাত্র বলেন, ‘যেসব রোহিঙ্গা শিশু মিয়ানমার থেকে পালিয়ে বাংলাদেশে আশ্রয় নিয়েছে তারাও নানা ধরণের ঝুঁকি মোকাবেলা করছে। নানা ধরণের অসুখে ভুগছে এবং বন্যার ঝুঁকির মধ্যে রয়েছে।’

ইউনিসেফের এ মুখপাত্র আরও বলেন, ‘গত জুনে জাতিসংঘের সঙ্গে ইয়াঙ্গুন সরকারের প্রত্যাবাসন চুক্তি স্বাক্ষর সত্ত্বেও রোহিঙ্গাদের মিয়ানমারে ফেরার আশা যেকোনও সময়েই বিবর্ণ হতে পারে। রাখাইনের পরিস্থিতি এখনও অনিরাপদ।’

তবে রোহিঙ্গাদের ফিরিয়ে নিতে প্রস্তুত থাকার কথা দাবি করছে মিয়ানমার প্রশাসন। গত মঙ্গলবার সিঙ্গাপুরে এক ভাষণে দেশটির নেত্রী অং সান সু চি এ দাবি করেন।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •